শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ০৬:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরের চিতুলিয়া গ্রামে আগুন,দুইটি ঘরসহ পুড়ল ১২ লাখ টাকার মালামাল জগন্নাথপুরে এখনও সম্পন্ন হয়নি আ.লীগের ওয়ার্ড ভিত্তিত্ব কমিটি প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা শুরু ১৭ নভেম্বর জগন্নাথপুরে সংবাদ প্রকাশের পর অবশেষে সুযোগ পেল ১৭ পরীক্ষার্থী বন্ধ হলো ফেসবুকের সাড়ে পাঁচ’শ কোটি ভুয়া অ্যাকাউন্ট রংপুর এক্সপ্রেসে আগুন, চারটি বগি লাইনচ্যুত জেলা মহিলা আ.লীগ নেত্রী রফিকা চৌধুরীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে জগন্নাথপুরে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত আর্জেন্টিনার আদালতে সু চির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ছাতক-সুনামগঞ্জ সড়কে বিআরটিসি বাস চালুর দাবি সম্মেলনকে সামনে রেখে জগন্নাথপুরে আ.লীগের কার্যকরী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

বলিউড তারকা সালমান খানকে ৫ বছরের কারাদণ্ড

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৬ মে, ২০১৫
  • ১২৫ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েনিডেস্ক:: ১৩ বছর আগে গাড়ি চাপা দিয়ে হত্যা মামলায় বলিউড তারকা সালমান খানকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

বুধবার স্থানীয় সময় দুপুর ২টার দিকে মুম্বাই সেশন কোর্টের বিচারক ডি. ডব্লিউ দেশপাণ্ডে এ রায় ঘোষণা করেন।

তবে রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিলের সুযোগ পাবেন সালমান খান।

২০০২ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর মধ্য রাতে মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় ‘আমেরিকান এক্সপ্রেস’ বেকারির সামনের ফুটপাতে উঠে পড়ে সালমানের সাদা রঙের টয়োটা ল্যান্ডক্রুজার। ওই গাড়ির নিচে চাপা পড়ে মারা যান ফুটপাতে ঘুমন্ত এক ব্যক্তি, আহত হন আরও চার জন।

সালমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, মদ্যপ অবস্থায় বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালাতে গিয়ে ওই ঘটনা ঘটে। কিন্তু তার দাবি, সে সময় তিনি গাড়ি চালাচ্ছিলেন না।

এর আগে সকাল সাড়ে ১১টার দিকে সালমানকে দোষী সাব্যস্ত করেন আদালত। বিচারক বলেন, ‘সালমানের বিরুদ্ধে আনা সবগুলো অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে।’

বিচারক এ সময় সালমানকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘মদ্যপ অবস্থায় আপনি গাড়ি চালাচ্ছিলেন এবং আপনার লাইসেন্স ছিল না।’

বিচারক তার কিছু বলার আছে কি-না জানতে চাইলে নিরব থাকেন ভারতীয় চলচ্চিত্রের বর্তমান সময়ের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই অভিনেতা।

সালমানের গাড়িচালক অশোক সিং স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে জানিয়েছিলেন, ওই রাতে তিনিই গাড়ি চালাচ্ছিলেন এবং সালমান মদ্যপ ছিলেন না।

সালমান খানের ৫ বছরের কারাদণ্ড
মামলার রায় উপলক্ষে বুধবার মুম্বাইয়ের একটি আদালতে হাজির হন সালমান খান- এএফপি
দোষী সাব্যস্ত করার পর সালমানের শাস্তির মেয়াদ নিয়ে শুনানি হয়। তার মানবতাবাদী কাজের কথা বিবেচনায় নিয়ে তাকে সর্বোচ্চ দুই বছর কারাদণ্ড ও জরিমানা করার জন্য আদালতে আবেদন করেন এই অভিনেতার আইনজীবীরা।

অন্যদিকে সালমানের সর্বোচ্চ শাস্তি চান সরকারি কৌঁসুলি।

শুনানি শেষে শাস্তি ঘোষণা করেন আদালত। সালমান খানকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। দণ্ড শুনে বসে পড়েন সালমান, কান্নায় ভেঙে পড়েন এই তারকা।

জামিন পেতে উচ্চ আদালতে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন সালমানের আইনজীবী।

এই মামলায় সর্বোচ্চ ১০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারত সালমানের। এদিকে জেল হওয়ায় আটকে যেতে পারে তার ওপর লগ্নি করা প্রায় ২০০ কোটি রুপির ব্যবসা।

প্রথমে অবহেলাজনিত মৃত্যুর অভিযোগে সালমানের বিরুদ্ধে মামলা চললেও গত বছরের এপ্রিলে নতুন করে এ মামলার বিচারকাজ শুরু হয়। এবার তার বিরূদ্ধে আনা হয় দণ্ডনীয় নরহত্যার (কাল্পেবল হোমিসাইড) অভিযোগ।

বলিউডে প্রভাবশালী অভিনেতাদের মধ্যে অন্যতম সালমান খান। তিনি অন্তত ৮০টি হিন্দি ছবিতে অভিনয় করেছেন।

সালমান অভিনীত ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ ও ‘প্রেম রতন ধন পাও’ ছবির শ্যুটিং এখন প্রায় শেষ পর্যায়ে। এছাড়া ‘দাবাং ৩’, ‘নো এন্ট্রি মে এন্ট্রি’সহ আরও ৪টি ছবি রয়েছে তার হাতে। কারাদণ্ড হওয়ায় তার হাতে থাকা ছবিগুলোর কাজ অনিশ্চিত হয়ে পড়ল।

দীর্ঘ ১৩ বছর ধরে চলা এই মামলার রায় ও সম্ভাব্য দণ্ডাদেশ নিয়ে বুধবার সকাল থেকে সবার মধ্যে এক ধরনের কৌতূহল বিরাজ করছিল। সবার নজরই ছিল মুম্বাইয়ের সংশ্লিষ্ট আদালতের দিকে।

আদালতের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার আগে সালমানের সঙ্গে দেখা করেন বলিউডের আরেক প্রভাবশালী তারকা শাহরুখ খান। খবর: এনডিটিভি, জি নিউজ এবং বিবিসি

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24