বহিস্কার জেনেও বিএনপির অনেক প্রার্থী থাকবেন

স্টাফ রিপোর্টার::
উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করলে বিএনপি দল থেকে বহিস্কার করতে পারে, এমন নির্দেশনা জেনেও সুনামগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলায় দলীয় প্রার্থীদের কেউ কেউ নির্বাচনে অংশ নেবেন এমন সিদ্ধান্তের কথা দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরকে জানিয়েছেন। অবশ্য তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুজ্জামান কামরুল মনোনয়ন প্রত্যাহার করবেন বলে রোববার সন্ধ্যায় জানিয়েছেন এ প্রতিবেদককে।
তাহিরপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল। এই উপজেলায় বিএনপির বর্তমান চেয়ারম্যান, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান কামরুল স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন। রোববার সন্ধ্যায় কামরুল জানিয়েছেন, তিনি দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে মনোনয়ন প্রত্যাহার করবেন। অবশ্য. এই উপজেলার সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জেলা বিএনপির সহসভাপতি আনিসুল হক নির্বাচন করবেন বলে জানিয়েছেন। এই উপজেলায় বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জুনাব আলী ১৯ মার্চের মধ্যেই (প্রার্থীতা প্রত্যাহারের দিন পর্যন্ত) প্রার্থী হবেন কি না সেই সিদ্ধান্ত জানাবেন।
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি ফারুক আহমদ এবং জেলা বিএনপির সহসভাপতি আনছার উদ্দিন। দুজনেই প্রার্থী থাকবেন বলে জানিয়েছেন।
দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন সিলেট মহানগর বিএনপির সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক দেওয়ান আবুল হোসেন মাহবুব রাজা চৌধুরী। তিনি ১৯ মার্চের মধ্যেই সিদ্ধান্ত জানাবেন। এই উপজেলায় বিএনপির সাবেক সভাপতি মো. শাজাহান মিয়া দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করবেন বলে জানিয়েছেন।
বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বর্তমান চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা হারুন অর রশিদ প্রার্থী হবেন। হারুন অর রশিদ বললেন,‘আমি বিএনপির প্রাথমিক সদস্যও নই, সমর্থক। আমার ব্যাপারে দলের সিদ্ধান্ত নেবার যৌক্তিকতা নেই।’
জেলা বিএনপির সভাপতি, কেন্দ্রীয় বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন বলেন,‘বিএনপি উপজেলা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে না। ইতিমধ্যে সুনামগঞ্জসহ সিলেট বিভাগে বিএনপির যারা এই নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য মনোনয়ন জমা দিয়েছেন তাদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যারা দলীয় নির্দেশনা মানবেন না, তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক চূড়ান্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ চূড়ান্ত সাংগঠনিক ব্যবস্থা বলতে বহিস্কারও করা হতে পারে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» জগন্নাথপুরে প্রবাসিদের সঙ্গে আইডিয়াল ভিলেজ ফোরামের মতবিনিময় সভা

» নিউজিল্যান্ডের সংসদে পবিত্র আল কোরআন তিলাওয়াত!

» প্রাথমিক শিক্ষক পদে এপ্রিলে পরীক্ষা

» বিশ্বনাথে দুই ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ৯ জনের জামাত বাজেয়াপ্ত

» স্যান্ডেলের ভেতর ১০ হাজার ডলার!

» আবারও নিরাপদ সড়ক’র দাবীতে আন্দোলনে নামছে শিক্ষার্থীরা

» গ্র্যাজুয়েটদের উদ্দেশে রাষ্ট্রপতি- রডের পরিবর্তে বাঁশ দেবেন না

» জগন্নাথপুরে গাঁজাসহ গ্রেফতার-১

» আসসালামু আলাইকুম বলে পার্লামেন্টে বক্তব্য দিলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

» সুনামগঞ্জে ছুরিকাঘাতে আ.লীগ নেতা খুন, আটক-৩

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

বহিস্কার জেনেও বিএনপির অনেক প্রার্থী থাকবেন

স্টাফ রিপোর্টার::
উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করলে বিএনপি দল থেকে বহিস্কার করতে পারে, এমন নির্দেশনা জেনেও সুনামগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলায় দলীয় প্রার্থীদের কেউ কেউ নির্বাচনে অংশ নেবেন এমন সিদ্ধান্তের কথা দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরকে জানিয়েছেন। অবশ্য তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুজ্জামান কামরুল মনোনয়ন প্রত্যাহার করবেন বলে রোববার সন্ধ্যায় জানিয়েছেন এ প্রতিবেদককে।
তাহিরপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল। এই উপজেলায় বিএনপির বর্তমান চেয়ারম্যান, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান কামরুল স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন। রোববার সন্ধ্যায় কামরুল জানিয়েছেন, তিনি দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে মনোনয়ন প্রত্যাহার করবেন। অবশ্য. এই উপজেলার সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জেলা বিএনপির সহসভাপতি আনিসুল হক নির্বাচন করবেন বলে জানিয়েছেন। এই উপজেলায় বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জুনাব আলী ১৯ মার্চের মধ্যেই (প্রার্থীতা প্রত্যাহারের দিন পর্যন্ত) প্রার্থী হবেন কি না সেই সিদ্ধান্ত জানাবেন।
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি ফারুক আহমদ এবং জেলা বিএনপির সহসভাপতি আনছার উদ্দিন। দুজনেই প্রার্থী থাকবেন বলে জানিয়েছেন।
দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন সিলেট মহানগর বিএনপির সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক দেওয়ান আবুল হোসেন মাহবুব রাজা চৌধুরী। তিনি ১৯ মার্চের মধ্যেই সিদ্ধান্ত জানাবেন। এই উপজেলায় বিএনপির সাবেক সভাপতি মো. শাজাহান মিয়া দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করবেন বলে জানিয়েছেন।
বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বর্তমান চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা হারুন অর রশিদ প্রার্থী হবেন। হারুন অর রশিদ বললেন,‘আমি বিএনপির প্রাথমিক সদস্যও নই, সমর্থক। আমার ব্যাপারে দলের সিদ্ধান্ত নেবার যৌক্তিকতা নেই।’
জেলা বিএনপির সভাপতি, কেন্দ্রীয় বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন বলেন,‘বিএনপি উপজেলা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে না। ইতিমধ্যে সুনামগঞ্জসহ সিলেট বিভাগে বিএনপির যারা এই নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য মনোনয়ন জমা দিয়েছেন তাদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যারা দলীয় নির্দেশনা মানবেন না, তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক চূড়ান্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ চূড়ান্ত সাংগঠনিক ব্যবস্থা বলতে বহিস্কারও করা হতে পারে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।