মনোনয়ন জমা দিলেও পদ ছাড়েননি তাহিরপুরের উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুল

স্টাফ রিপোর্টার
সুনামগঞ্জে বিএনপি’র প্রার্থী হিসেবে দু’টি আসনে দুই জন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এঁরা হলেন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার পরিষদের টানা চারবারের চেয়ারম্যান দেওয়ান জয়নুল জাকেরীন ও তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুল।
জেলা রিটার্নিং কর্মকতার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, দেওয়ান জয়নুল জাকেরীন সুনামগঞ্জ-৪ আসনে (সদর ও বিশ্বম্ভরপুর) বিএনপির প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। বুধবার বিকাল তিনটার দিকে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবদুল আহাদের কাছে তাঁর মনোনয়নপত্র জমা দেন। এর আগে দুপুরে তিনি একই কর্মকর্তার কাছে তাঁর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের পদত্যাগপত্র জমা দেন।
এই আসনে বিএনপির দলীয় মনোনয়নের চিঠি পেয়েছেনজমা দেন। এর আগে দুপুরে তিনি একই কর্মকর্তার কাছে তাঁর উপজেলা আরেকজন। তিনি হলেন দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও সাবেক সাংসদ মোহাম্মদ ফজলুল হক আছপিয়া। তিনিও মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। দেওয়ান জয়নুল জাকেরীন সুনামগঞ্জের মরমি কবি হাসন রাজার প্রপৌত্র ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি।
দেওয়ান জয়নুল জাকেরীন বলেছেন, নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা আছে উপজেলা চেয়ারম্যানের পদ ছেড়ে সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হবে। তাই আমার মনোনয়ন নিয়ে যাতে কোনো সমস্যা না হয় এ জন্য আমি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানে পদ থেকে পদত্যাগ করেছি।
এদিকে কামরুজ্জামান কামরুল দলীয় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন সুনামগঞ্জÑ১ আসনে (তাহিরপুর, জামালগঞ্জ, ধরমপাশা)। তবে তিনি উপজেলা চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগ করেননি। জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান কামরুল বলেছেন,‘আমি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করে জেনেছি, মনোনয়নপত্র জমা দিতে হলে উপজেলা চেয়ারম্যানের পদ ছাড়তে হয় না। যদি নির্বাচিত হই তখন পদ ছাড়তে হবে। এ কারণে আমি পদত্যাগ করিনি।’
এই আসনে বিএনপির দলীয় মনোনয়ের চিঠি পাওয়া আরও দুইজন তাঁদের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তাঁরা হলেন সাবেক সংসদ সদস্য নজির হোসেন ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো. আনিসুল হক।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» অধ্যক্ষ আব্দুল মতিনের কবিতা-মিছিল হবে মিছিল

» ‘ড. কামালের ওপর হামলা দুঃখজনক, ফৌজদারি অপরাধ’

» ভোটকক্ষে সাংবাদিকরা যা করতে পারবেন, যা পারবেন না

» বিএনপির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকন গুলিবিদ্ধ

» বিদ্রোহী প্রার্থীদের সরে দাড়াতে দুই দিনের আল্টিমেটাম আ.লীগের

» জগন্নাথপুরে বিএনপির সভায় পাশা- সকল ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ধানের শীষের বিজয় নিশ্চিতের আহবান

» জগন্নাথপুরে নৌকার পোষ্টার ছেঁড়ে ফেলায় যুবদল নেতা গ্রেফতার

» উন্নয়নের প্রতিক নৌকায় ভোট দিন- এম এ মান্নান

» জগন্নাথপুরে ডা: মাসুম খানের মৃত্যুতে শোকসভা

» নৌকা সমর্থনে পাটলী ইউনিয়ন যুবলীগের কর্মীসভা

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

মনোনয়ন জমা দিলেও পদ ছাড়েননি তাহিরপুরের উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুল

স্টাফ রিপোর্টার
সুনামগঞ্জে বিএনপি’র প্রার্থী হিসেবে দু’টি আসনে দুই জন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এঁরা হলেন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার পরিষদের টানা চারবারের চেয়ারম্যান দেওয়ান জয়নুল জাকেরীন ও তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুল।
জেলা রিটার্নিং কর্মকতার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, দেওয়ান জয়নুল জাকেরীন সুনামগঞ্জ-৪ আসনে (সদর ও বিশ্বম্ভরপুর) বিএনপির প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। বুধবার বিকাল তিনটার দিকে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবদুল আহাদের কাছে তাঁর মনোনয়নপত্র জমা দেন। এর আগে দুপুরে তিনি একই কর্মকর্তার কাছে তাঁর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের পদত্যাগপত্র জমা দেন।
এই আসনে বিএনপির দলীয় মনোনয়নের চিঠি পেয়েছেনজমা দেন। এর আগে দুপুরে তিনি একই কর্মকর্তার কাছে তাঁর উপজেলা আরেকজন। তিনি হলেন দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও সাবেক সাংসদ মোহাম্মদ ফজলুল হক আছপিয়া। তিনিও মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। দেওয়ান জয়নুল জাকেরীন সুনামগঞ্জের মরমি কবি হাসন রাজার প্রপৌত্র ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি।
দেওয়ান জয়নুল জাকেরীন বলেছেন, নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা আছে উপজেলা চেয়ারম্যানের পদ ছেড়ে সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হবে। তাই আমার মনোনয়ন নিয়ে যাতে কোনো সমস্যা না হয় এ জন্য আমি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানে পদ থেকে পদত্যাগ করেছি।
এদিকে কামরুজ্জামান কামরুল দলীয় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন সুনামগঞ্জÑ১ আসনে (তাহিরপুর, জামালগঞ্জ, ধরমপাশা)। তবে তিনি উপজেলা চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগ করেননি। জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান কামরুল বলেছেন,‘আমি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করে জেনেছি, মনোনয়নপত্র জমা দিতে হলে উপজেলা চেয়ারম্যানের পদ ছাড়তে হয় না। যদি নির্বাচিত হই তখন পদ ছাড়তে হবে। এ কারণে আমি পদত্যাগ করিনি।’
এই আসনে বিএনপির দলীয় মনোনয়ের চিঠি পাওয়া আরও দুইজন তাঁদের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তাঁরা হলেন সাবেক সংসদ সদস্য নজির হোসেন ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো. আনিসুল হক।

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।