মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ০৫:২১ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুর উপজেলাকে মাদকমুক্ত করতে মতবিনিময়সভা অধ্যক্ষকে পানিতে নিক্ষেপ: ছাত্রলীগের আরো পাঁচজন গ্রেফতার নবীজীর কাছে যে সকল বেশে হাজির হতেন জিবরাইল (আ.) অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে পণ্য পরিবহন মালিক শ্রমিক লবনের গুজব জগন্নাথপুরের সর্বত্রজুড়ে,ক্রেতা সামলাতে না পেরে দোকান বন্ধ, চলছে মাইকিং জগন্নাথপুর বাজারে লবন নিয়ে গুজব জগন্নাথপুরে আমনের ফলনে কৃষক খুশি জগন্নাথপুরে দুই মেধাবী শিক্ষার্থীর সহায়তায় এগিয়ে এলেন লন্ডন প্রবাসী মোবারক আলী জগন্নাথপুরে ৬ দিন ধরে মাদ্রাসার নৈশ্য প্রহরী নিখোঁজ জগন্নাথপুরে দ্রব্য মূল্য নিয়ন্ত্রনে বাজার মনিটরিংয়ে দাবি

মিরপুরে নির্বাচনী পোষ্টারে সয়লাব

বিশেষ প্রতিনিধি::
  • Update Time : শনিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ২৪৮ Time View

বহুলপ্রতিক্ষীত সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার মিরপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে এলাকায় প্রার্থী, সমর্থক ও এলাকাবাসির মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনা বিরাজ করছে। এরমধ্যে নির্বাচনী প্রতিকের পোষ্টারে সয়লাব হয়ে গেছে নিবার্চনী এলাকা।
আজ শনিবার সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, ইউনিয়নের প্রাণকেন্দ্র মিরপুর বাজার, কেউনবাড়ি বাজার, টুকেরবাজার, শ্রীরামসী বাজারসহ ইউনিয়নের প্রতিটি হাটবাজারসহ বিভিন্ন গ্রামের যাতায়াতের রাস্তা-ঘাট, বাসা বাড়িসহ সর্বত্র ছেয়ে গেছে নির্বাচনী পোষ্টারে। নির্বাচনী আচারণ লঙ্গণে করে প্রার্থী ও তাঁর নির্বাচনী প্রতিক সংম্বলিত ব্যানার টানিয়েছেন অধিকাংশ প্রার্থী।
মিরপুর গ্রামের ভোটার মাসুম মিয়া বলেন, দীর্ঘ এক যুগেরও বেশি দিন ধরে আইনি জটিলতায় মিরাপুর ইউনিয়নের নির্বাচন আটকে থাকার পর আগামী ১৪ অক্টোবর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। যে কারণে ইউনিয়নবাসির মধ্যে অন্যরকম আনন্দ উচ্ছ্বাস বিরাজ করছে। প্রতিক বরাদ্দের সঙ্গে সঙ্গে প্রার্থীদের পোস্টারের সয়লাব হয়ে গেছে ইউনিয়নের সর্বত্রজুড়ে।
মিরপুর ইউনিয়ন নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী যুক্তরাজ্য প্রবাসি মাহবুবুল হক শেরিন বলেন, দীর্ঘ ১৬ বছর পর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে। ফলে পুরো ইউনিয়ন এখন উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। তিনি বলেন, আমরা নিবার্চনী বিধি মেনেই প্রচার প্রচারণা করছি।

আওয়ামীলীলীগের দলীয় মনোনীত প্রার্থী মিরপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির বলেন, নিবার্চনকে সামনে রেখে ব্যাপক উ”চ্ছ্বাস বিরাজ করছে ইউনিয়ন জুড়ে। নির্বাচনী আইনকে সম্মান করে নির্বাচনী আচরণ মেনে আমরা কাজ করছি।
উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কার্যালয় সুত্র জানায়, মিরপুর ইউনিয়ন নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৬জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। তাঁরা হলেন, আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী আব্দুল কাদির (নৌকা), আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুল হক শেরিন (আনারস) মিরপুর জাপা (এরশাদ) মনোনীত প্রার্থী আব্বাস মিয়া (লাঙ্গল), আঞ্জুমানে আল ইসলাহ মনোনীত প্রার্থী শওকত হোসেন (চশমা) স্বতস্ত্র প্রার্থী যুক্তরাজ্য প্রবাসি সাহাব আলী (টেলিফোন) ও আলতাবুর রহমান আলতা ( মোটরসাইকেল)। এছাড়াও ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্য পদে ৪৭ জন এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১১ জন প্রার্থী প্রতিদ্ব›ন্দ্বীতা করছেন।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুজিবুর রহমান জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, সীমানা সংক্রান্ত জটিলতায় উচ্চ আদালতে মামলা থাকায় মিরপুর ইউনিয়নে নির্বাচন হয়নি। সম্প্রতি মামলা জটিলতা নিরসন হওয়ায় নির্বাচন কমিশন তফশিল ঘোষনা করেন। ঘোষিত তফশিল অনুযায়ী আমাগী ১৪ অক্টোম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইতিমধ্যে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতিক বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। তিনি জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বড় আকারের ব্যানার নির্বাচনী আইনে নেই। কোন প্রার্থী এধরণের নিবার্চনী বিভি লঙ্গন করতে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24