শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৫:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
দিরাইয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মানববন্ধন মুসলিমবিদ্বেষী আইনের বিরুদ্ধে ভারতজুড়ে বিক্ষোভ আমি স্বাধীনতা বিরুধী পরিবারের সন্তান নই- চেয়ারম্যান আব্দুল হাশিম জগন্নাথপুরে বাংলা মিরর সম্পাদক আব্দুল করিম গনি সংবর্ধিত জগন্নাথপুরে তিনদিন ব্যাপি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন ব্রিটেনের নির্বাচনে আফসানার বড় জয়ে জগন্নাথপুরে উৎসবের আমেজ ব্রিটিশ পালার্মেন্টে ঝড় তুলবে বিজয়ী বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ৪ নারী এমপি ব্রিটেনের নির্বাচনে একটি আসনে বিশাল জয় পেয়েছেন জগন্নাথপুরের আফসানা বেগম অপরাধীদের প্রতি মহানবীর আচরণ যেমন ছিল সুদখোরদের ধরতে জেলা ও উপজেলায় মাঠে নামছে প্রশাসন

যুক্তরাজ্য বিএনপির সম্মেলনের অনুষ্ঠিত নতুন কমিটির নামের তালিকা ঢাকায় অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয়েছে

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৪ মে, ২০১৫
  • ১১২ Time View

আমিনুল হক ওয়েছ লন্ডন থেকে:: যুক্তরাজ্য বিএনপির দিনব্যাপী সম্মেলনের পর নতুন কমিটির নামের তালিকা ঢাকায় অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতৃবৃন্দ। বিগত বছরের ন্যায় আবারো তারেক রহমানকে যুক্তরাজ্য বিএনপির শীর্ষ নেতাদের পরামর্শক হিসেবে রাখা হয়েছে নতুন কমিটি ঘোষণার আগ পর্যন্ত।
যুক্তরাজ্য বিএনপি বুধবার দুপুর ২টা থেকে শুরু হওয়া সম্মেলন চলে রাত ৮টা পর্যন্ত। এ সময় তারেক রহমান জোনাল প্রতিনিধিদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলেন এবং তাদের মতামত জানতে চান। অনেকের ধারনা ছিল রাতেই যুক্তরাজ্য বিএনপির নতুন কমিটি ঘোষণা হবে। তবে তিনি তা আবারো ঢাকায় কেন্দ্রীয় অফিসে প্রেরন করবেন বলে জানিয়েছেন। যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি সায়েস্তা চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক কয়ছর এম আহমদের পরিচালনায় যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহর থেকে প্রতিনিধিরা পরামর্শমূলক বক্তব্য রাখেন। এ সময় তারা দলের প্রয়োজনে পরিশ্রমী ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করতে তারেক রহমানের প্রতি আহ্বান জানান। সম্মেলনে উপস্থিত অনেকেই মনে করেন সাধারণ সম্পাদক পরিবর্তন না হলেও সভাপতি পরিবর্তন আসন্ন।
এদিকে মাঠ পর্যায়ের অনেক নেতাকর্মীদের সঙ্গে আলাপ করে জানা যায়, দলের শীর্ষ কয়েকটি পদের মধ্যে সভাপতি পদে যাদের নাম শুনা যাচ্ছে তারা হচ্ছেন বর্তমান সভাপতি শায়েস্তা চৌধুরী কুদ্দুছ, সাবেক আহ্বায়ক এম এ মালিক, সহ-সভাপতি আখতার হোসেন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ব্যারিষ্টার এম এ সালাম, সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল হামিদ চৌধুরী, উপদেষ্টা মুজিবুর রহমান মুজিব, সহ-সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, আলহাজ্ব তৈমুছ আলী, তাজুল ইসলাম। সাধারণ সম্পাদক পদে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক কয়ছর এম আহমদ, বর্তমান যুগ্ম-সম্পাদক ও যুক্তরাজ্য যুবদলের জনপ্রিয় সাবেক সভাপতি নাসিম আহমদ চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন সেলিম, দপ্তর সম্পাদক ড. মুজিবুর রহমান, সহ-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট তাহির রায়হান চৌধুরী পাবেল, সাদিক মিয়া। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে যুক্তরাজ্য যুবদলের বর্তমান আহ্বায়ক দেওয়ান মোকাদ্দেম চৌধুরী নিয়াজ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাছিত বাদশা, লন্ডন মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক এনামুল হক এনুর নাম শোনা যাচ্ছে।
উল্লেখ্য, বিগত ২০১৩ সালের মে মাসে তারেক রহমানের উপস্থিতিতে প্রতিনিধি সম্মেলন করার পর ২ বছরের জন্য যুক্তরাজ্য বিএনপির নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছিল । সেসময় কমিটি থেকে বাদ পড়েছিলেন অনেক ত্যাগী নেতা কর্মী। উঠে আসে অনেক নবীন ও অনভিজ্ঞ নেতা। তারেক রহমানের উপস্থিতিতে বেশ কয়েকটি সফল সভা সমাবেশ করলেও আর্ন্তজাতিক সমর্থন আদায়ে ব্যর্থ হয়েছে বলে মনে করেন অনেকে। বাংলাদেশের বাইরে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে জাতীয়তাবাদী রাজনীতির এক গুরুত্বপূর্ণ স্থান ব্রিটেন। যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের উন্নয়ন সহযোগী বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্র। এছাড়াও যুক্তরাজ্য ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের একটি প্রভাবশালী সদস্য রাষ্ট্র বিধায় পুরো ইউরোপে রয়েছে এর প্রভাব। বাংলাদেশের জাতীয় রাজনীতিতে যুক্তরাজ্য একটি উন্নয়ন সহযোগী ও দাতা রাষ্ট্র হিসেবে বিএনপির যুক্তরাজ্য শাখার গুরুত্ব অপরিসীম।
এক্ষেত্রে তারেক রহমান গঠিত যুক্তরাজ্য বিএনপি কতটুকু সফল তার মূল্যায়ন করতে মঙ্গলবার দুপুরে পূর্ব লন্ডনের সোনারগাঁও রেষ্টুরেন্টে বসছে যুক্তরাজ্য বিএনপির বিভিন্ন জোনাল ও শাখা কমিটির প্রতিনিধিদের নিয়ে সম্মেলন। সম্মেলনে আসার দাওয়াত পেয়েছেন এমন অনেকে আমাদের প্রতিনিধিকে জানিয়েছেন কি উদ্দেশ্যে এ সম্মেলন তারা কিছুই জানেন না। সম্মেলনের পর বলতে পারবেন।
অনেক নেতাকর্মীর অভিযোগ রয়েছে যে, যুক্তরাজ্য কমিটি গঠনের পর মাত্র একটি কার্যকরী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির মেয়াদ শেষ হতে চললেও প্রায় দুই বৎসর আগে সম্পন্ন কার্যকরী সভার কার্যবিবরণী কমিটির সদস্যরা জানতে পারেননি। এছাড়া চারটি সাংগঠনিক জোনের চারটি সভা হলেও সভাসমূহের প্রস্তাবনার কি কি বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে তা কেউ জানে না। যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহরের কিছু কিছু জোনাল কমিটি বাতিল করা হলেও এখনো সকল জোনাল কমিটি গঠনের ব্যাপারে দৃশ্যমান তৎপরতা লক্ষ্য করা যায়নি। কিছু কিছু জোনাল কমিটির আহ্বায়ক কমিটি দেয়া হলেও দলের সাংগঠনিক সদস্যের সাথে আদৌ আলাপ আলোচনা হয়েছে বলে মনে হয় না। কমিটি গুলিতে চরম আঞ্চলিকতা দেখানো হয়েছে এমন অভিযোগ রয়েছে। সবচেয়ে বড় অভিযোগটি ছিল ব্যাংক কার্ড জালিয়াতির। ঘটনাটি পরে ভুল বুঝাবুঝি হিসেবে আপোষ মীমাংসা হয়েছিল।
এত অভিযোগের পরও অনেক নেতাকর্মী মনে করেন তারেক রহমান গঠিত যুক্তরাজ্য বিএনপি অতীতের যেকোন কমিটির চাইতে বেশি কাজ করেছে। সবচাইতে বড় কথা হচ্ছে এই কমিটির বিরুদ্ধে কেউ এখনো পর্যন্ত সুস্পষ্ট অভিযোগ আনতে পারেনি কিংবা পাল্টা গ্রুপিংয়ের সৃষ্টি হয়নি। এই কমিটি যুক্তরাজ্যে দলের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে বলেও তারা মনে করেন।
এদিকে কমিটিতে স্থান পেতে যুক্তরাজ্যে অবস্থানরত তারেক রহমানের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন নেতা-কর্মীরা। তবে কাদের ভাগ্যে জুটবে বিজয়ের মালা তা বলা মশকিল। কোন নেতার দিকে তারেক রহমানের সুদৃষ্টি পড়বে তা-ই এখন দেখার বিষয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24