শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ০৪:২৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরের সাম্রাটে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র মনাফকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ জগন্নাথপুরের চিতুলিয়া গ্রামে আগুন,দুইটি ঘরসহ পুড়ল ১২ লাখ টাকার মালামাল জগন্নাথপুরে এখনও সম্পন্ন হয়নি আ.লীগের ওয়ার্ড ভিত্তিত্ব কমিটি প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা শুরু ১৭ নভেম্বর জগন্নাথপুরে সংবাদ প্রকাশের পর অবশেষে সুযোগ পেল ১৭ পরীক্ষার্থী বন্ধ হলো ফেসবুকের সাড়ে পাঁচ’শ কোটি ভুয়া অ্যাকাউন্ট রংপুর এক্সপ্রেসে আগুন, চারটি বগি লাইনচ্যুত জেলা মহিলা আ.লীগ নেত্রী রফিকা চৌধুরীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে জগন্নাথপুরে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত আর্জেন্টিনার আদালতে সু চির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

দিরাইয়ের রীমা জগন্নাথপুরের নাগরিক!

বিশেষ প্রতিনিধি::
  • Update Time : সোমবার, ২৮ অক্টোবর, ২০১৯
  • ৬২৭ Time View

নাম রীমা রানী তালুকদার। তিনি দিরাই পৌরসভার সুকলনগর এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা। তাঁর বাবার নাম অনিল তালুকদার। জালিয়াতির মাধ্যমে তথ্য গোপন করে জগন্নাথপুর উপজেলার স্থানীয় নাগরিক সেজে সার্টিফিকেট নিয়েছেন রীমা রানী। এরমধ্যে বহিরাগত হিসেবে তাকে সনাক্ত করে প্রত্যায়নপত্র দেয়া হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক নিয়োগ ২০১৮ এর লিখিত পরীক্ষায় ফলাফল গত ১৫ সেপ্টেম্বর প্রকাশিত হয়। এতে জগন্নাথপুর উপজেলা থেকে ৫০১ জন প্রার্থী উত্তীর্ণ হন। শুরু থেকে অভিযোগ উঠে উত্তীর্ণদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক প্রার্থী বহিরাগত রয়েছেন। এসব বহিরাগতদের চিহিৃত করে তালিকা তৈরি করেন স্থানীয়রা। এরমধ্যে তাঁরা বহিরাগত হিসেবে ২৫ জনকে সনাক্ত করে গত ২১ অক্টোবর জেলা প্রশাসক, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট লিখিতভাবে আবেদনপত্র দিয়েছেন।  ওই ২৫ জনের মধ্যে বহিরাগত নাগরিক হিসেবে রীমা রানী তালুকদারের
নাম উল্লেখ রয়েছে। গত ২১ অক্টোবর থেকে ২৬ অক্টোবর মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুসন্ধানে জানা যায়, জগন্নাথপুর উপজেলার পাশ্ববর্তী দিরাই পৌরসভার সুকলনগর এলাকার বাসিন্দা রীমা রানী তালুকদার জগন্নাথপুরের চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের নলুয়া নোয়াগাঁও গ্রামের বাসিন্দা সেজে চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়ন পরিষদ থেকে তথ্য গোপন করে গত মাসের ২২ সেপ্টেম্বর নাগরিক সনদপত্র সংগ্রহ করেন। তাকে ৪ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য চিলাউড়া গ্রামের সুজাত মিয়া সনাক্ত করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। তবে ইউপি সদস্য সুজাত মিয়া জানান, আমাদের পরিষদের সাবেক ইউপি সদস্য অনিল মেম্বারের মেয়ে বলে মেয়েটি পরিচয় দেয়। তখন আমি তাকে সনাক্ত করি। পরে জানতে পারলাম মেয়েটি আমাদের ইউয়িনের বাসিন্দা নয়। মিথ্যা তথ্য দিয়ে নাগরিক সনদপত্র নিয়েছে। আমরা লিখিতভাবে প্রত্যায়ন দিয়েছি, সে বহিরাগত নাগরিক।

চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রনধীর কান্ত দাস নান্টু জানান, রীমা রানী তালুকদার নামে কোন নাগরিক আমাদের ওয়ার্ডের বাসিন্দা নয়। এই নামে কেউ নেই আমাদের ওয়ার্ডে।
চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরশ মিয়া বলেন, ভুল তথ্য দিয়ে নাগরিক সনদপত্র সংগ্রহকারীর বিরুদ্ধে এরমধ্যে বহিরাগত হিসেবে সনাক্ত করে প্রত্যায়নপত্র দেয়া হয়েছে।

এবিষয়ে রিমা রানী তালকুদারের সঙ্গে মুঠোফোনে একাধিকবার চেষ্ঠা করেও তাঁর বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক পদে মৌখিক পরীক্ষার্থী জগন্নাথপুরের স্থানীয় বাসিন্দা চাকুরী প্রত্যাশি খালেদ জিবলু বলেন, আমরা বিভিন্ন এলাকার স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে এবং স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌরসভার জনপ্রতিনিধিদের নিকট থেকে বহিরাগত নাগরিক হিসেবে ২৫ জনকে সনাক্ত করে প্রশাসনকে লিখিতভাবে জানিয়েছি।

জগন্নাথপুরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহফুজুল আলম মাসুম জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমের জানান, বহিরাগতদের বিরুদ্ধে আবেদন পেয়েছি। এসব বহিরাগদের স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা সনাক্ত করে প্রত্যায়নপত্র দিয়েছেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24