মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:২০ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে ফুটবল এসোসিয়েশনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন উপলক্ষে প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে পারাপারের সময় খেলা নৌকা থেকে পড়ে মৃগী রোগির মৃত্যু জগন্নাথপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহতের স্মরণে শোকসভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালন, ৫ জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান জগন্নাথপুরে মুক্ত দিবস পালিত জগন্নাথপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত দুই যুবকের জানাজায় শোকাহত মানুষের ঢল জগন্নাথপুরে আইনশৃংঙ্খলা সভায়-আনন্দ সরকারের হত্যাকারিদের গ্রেফতারের দাবি জগন্নাথপুরে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালন, ৫ জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান জগন্নাথপুরে দুর্নীতি বিরোধী দিবসে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত ১৭ ডিসেম্বর থেকে হাওরের বাঁধ নির্মাণ কাজ শুরু

রোহিঙ্গাদের নির্যাতনের পোস্ট সরিয়ে ফেলছে ফেসবুক

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭
  • ৯৬ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক ::
মিয়ানমারে রোহিংঙ্গাদের গণহত্যা সংক্রান্ত তথ্য যেসব অ্যাকাউন্ট থেকে তুলে ধরা হচ্ছে সেই পোস্টগুলোকে সরিয়ে দিচ্ছে ফেসবুক। শুধু ছবি বা ভিডিও নয়; এমনকি এ বিষয়ক টেক্সটও মুছে দেওয়া হচ্ছে।

মানবাধিকার কর্মীরা বলছেন, রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নিষ্ঠুর ও বর্বর হামলা সংক্রান্ত পোস্ট সেন্সর করছে ফেসবুক। এরপরই জানা যায়, এটা ফেসবুকের দাপ্তরিক সিদ্ধান্ত।

মিয়ানমার সরকারের অনুরোধের ভিত্তিতে এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছে ফেসবুক। তারা বলছে, এটা সম্পূর্ণভাবে আরাকান আর্মির তৎপরতার বিশ্লেষণ করে নেওয়া হয়েছে। কারণ সন্ত্রাস, সহিংসতা বা গণহত্যার মতো অপরাধে যুক্ত সংগঠনের পক্ষে পোস্ট করা তাদের নীতিমালার লঙ্ঘন।

মার্কিন দৈনিক ডেইলি বিস্টকে এই বিষয় নিয়ে কাজ করা কর্মীরা বলেছেন, তাদের অ্যাকাউন্ট বাতিল করা হচ্ছে বা পোস্ট সরিয়ে দেয়া হচ্ছে, তারা প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন যে সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট তাদের সত্য প্রকাশে সহযোগিতা করবে।

এদিকে ব্রিটিশ সংবাদপত্র গার্ডিয়ান ফেসবুকের এক মুখপাত্রের বরাতে বলা হয়, দ্য আরাকান রোহিংগা স্যালভেশন আর্মিকে (আরসা) ফেসবুকের বিপদজনক সংগঠনের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। গত ২৫ আগস্ট আরসা রাখাইনের পুলিশের চেকপোস্টে হামলা চালানোর জেরে নতুন করে ক্লিয়ারেন্স অপারেশন শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। সেই সহিংসতার জেরে ৪ লাখ রোহিংগা নাফ নদী পেরিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

বুধবার ডেইলি বিস্টকে ফেসবুকের মুখপাত্র বলেন, আমরা ফেসবুককে এমন একটা জায়গা হিসেবে গড়ে তুলতে চাই যেখানে মানুষ দায়িত্বশীলতার সঙ্গে শেয়ার করবে, এবং নিরাপদ ও সম্মানজনক অভিজ্ঞতা ও মতপ্রকাশের অধিকারের ভারসাম্যের জন্য আমরা কঠোর পরিশ্রম করছি। মিয়ানমারের পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে আমরা আমাদের নীতিমালা অনুযায়ী পরিস্থিতি পর্যালোচনা করছি।

রহিম নামের একজন অধিকারকর্মী বলেন, ফেসবুকে রোহিংগাদের বিষয়ে ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট দেয়া হলে সেটি সরিয়ে দেয়া হয়। পোস্ট রিমুভ করে ফেসবুক থেকে বার্তায় বলা হয় পোস্টটি আমাদের নীতিমালা বহির্ভূত। এমন আরো অসংখ্য অভিযোগ আসছে।

মোহাম্মদ আনোয়ার নামের কুয়ালালামপুর ভিত্তিক সাংবাদিক মোহাম্মদ আনোয়ার বলেন, আমি মনে করি ফেসবুক গণহত্যাকারী মিয়ানমার সরকারের সঙ্গে মিলে মতপ্রকাশের স্বাধীনতাকে লংঘনের চেষ্টা করছে। তিনি বলেন, ফেসবুক তার অসংখ্য পোস্ট সরিয়ে ফেলছে যার অনেকগুলো শুধুমাত্র টেক্সট ছিল। রোহিংগাব্লগার ডট কমের জন্য কাজ করা আনোয়ার বলেন, রাখাইন বিষয়ে তার প্রতিবেদনগুলো সেখানে থাকা ৪৫ জন প্রতিনিধি ও সিটিজেন জার্নালিস্টের মাধ্যমে খবর সংগ্রহ করা হয়।

ফেসবুক আরসাকে বিপদজনক তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার কথা স্বীকার করলেও রোহিংগাদের অন্য সংগঠনের বিষয়ে কিছু বলতে অস্বীকৃতি জানায়। জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশন মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর রোহিংগা নিপীড়নকে জাতিগত নির্মূলের ‘পাঠ্যবই উদাহরণ’ হিসেবে অভিহিত করেন। সেই মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ফেসবুক পেজে প্রায় ২৬ লাখ অনুসরণকারী রয়েছে।
সুত্র-কালের কন্ঠ

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24