সংলাপ নয়, শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন প্রধানমন্ত্রী: কাদের

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::
একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে ঐক্যফ্রন্টসহ যে রাজনৈতিক দলগুলো সংলাপে অংশ নিয়েছিল, প্রধানমন্ত্রী তাদের নির্বাচন পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময়ের জন্য আমন্ত্রণ জানাতে চান বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, এখানে কোনো সংলাপের আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে না। কেবল শুভেচ্ছা বিনিময়ের জন্য রাজনৈতিক দলগুলোকে ডাকবেন প্রধানমন্ত্রী।

সোমবার বিকেলে রাজধানীর গুলিস্থানে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ আয়োজিত বর্ধিত সভায় এসব কথা বলেন তিনি। একাদশ জাতীয় নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয় উদযাপনে ১৯ জানুয়ারি আওয়ামী লীগের জনসমাবেশ সফল করতে ওই সভার আয়োজন করা হয়।

সভায় কাদের বলেন, নির্বাচন নিয়ে সংলাপের কোনো বিষয় নেই। যে নির্বাচন নিয়ে গণতান্ত্রিক বিশ্বে কোনো প্রশ্ন নেই সেখানে সংলাপের প্রশ্ন হাস্যকর।

১৯ জানুয়ারির সমাবেশের প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিজয়ী দলের অনেক দায়িত্ব। তাই জনদুর্ভোগকে মাথায় রাখতে হবে। মহাবিজয়ে কেউ যেন মহাদাপট দেখাতে না যান। এখন থেকে জনগণের কাছে আরও বিনয়ী হবেন।

এ সমাবেশকে কেন্দ্র করে কিছুটা জনদুর্ভোগ হতে পারে আশঙ্কা করে আগাম দুঃখপ্রকাশ করেন তিনি।

দল ও সরকার আলাদা করার প্রক্রিয়া চলছে উল্লেখ করে কাদের বলেন, এ বিজয়কে সংহত করতে চাইলে আমাদের দল গোছাতে হবে। আওয়ামী লীগের ভবিষ্যৎ বিজয় চাইলে দলের ভেতরের সমস্যা আগে ঠিক করতে হবে। এই সমস্যাগুলো অনতিক্রম্য নয়, অতিক্রম্য।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ সভাপতি হাজী আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে সভায় আর বক্তব্য দেন- ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।

সভায় উপস্থিত ছিলেন- নৌ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, শিক্ষা উপমন্ত্রী মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর প্রমুখ।

এর আগে রোববার ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেছিলেন, যেসব দল ও জোটের সাথে সংলাপ হয়েছিল, তাদেরকে আবার চিঠি দিয়ে সংলাপে ডাকবেন প্রধানমন্ত্রী।
সুত্র-সমকাল

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» জেলা আইনজীবি সমিতির নির্বাচন, সভাপতি চাঁন মিয়া, সেক্রেটারী সাহারুল

» জগন্নাথপুর ক্রিকেট এসোসিয়েশনের বিরুদ্ধে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করায় সৈয়দপুর ইয়াংম্যান ক্রিকেট ক্লাবকে ৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ

» সামাদ আজাদের ৯৭ তম জন্মবার্ষিকী তাঁর জন্মভূমি জগন্নাথপুরে পালিত

» জগন্নাথপুরে ঘোড়দৌড় সম্পন্ন: মায়ের আদেশকে হারিয়ে রাজমুকুট চ্যাম্পিয়ান, উৎসুক মানুষের ঢল

» যে ১০ ক্যাটাগরির আবেদনকারী কানাডার যেতে পারবে সহজে

» কাদেরকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে বললেন ফখরুল

» ১২ বছর দল না করলে উপজেলায় মনোনয়ন দেবে না আ. লীগ

» জগন্নাথপুরে ভারতীয় নিষিদ্ধ বিড়িসহ র‌্যাবের হাতে আটক-১

» সবার সাথে বন্ধুত্বসুলভ সম্পর্ক রেখেই আমরা চলতে চাই: ড.মোমেন

» সংসদ নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ ও বির্তকিত: টিআইবি

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

সংলাপ নয়, শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন প্রধানমন্ত্রী: কাদের

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::
একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে ঐক্যফ্রন্টসহ যে রাজনৈতিক দলগুলো সংলাপে অংশ নিয়েছিল, প্রধানমন্ত্রী তাদের নির্বাচন পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময়ের জন্য আমন্ত্রণ জানাতে চান বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, এখানে কোনো সংলাপের আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে না। কেবল শুভেচ্ছা বিনিময়ের জন্য রাজনৈতিক দলগুলোকে ডাকবেন প্রধানমন্ত্রী।

সোমবার বিকেলে রাজধানীর গুলিস্থানে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ আয়োজিত বর্ধিত সভায় এসব কথা বলেন তিনি। একাদশ জাতীয় নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয় উদযাপনে ১৯ জানুয়ারি আওয়ামী লীগের জনসমাবেশ সফল করতে ওই সভার আয়োজন করা হয়।

সভায় কাদের বলেন, নির্বাচন নিয়ে সংলাপের কোনো বিষয় নেই। যে নির্বাচন নিয়ে গণতান্ত্রিক বিশ্বে কোনো প্রশ্ন নেই সেখানে সংলাপের প্রশ্ন হাস্যকর।

১৯ জানুয়ারির সমাবেশের প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিজয়ী দলের অনেক দায়িত্ব। তাই জনদুর্ভোগকে মাথায় রাখতে হবে। মহাবিজয়ে কেউ যেন মহাদাপট দেখাতে না যান। এখন থেকে জনগণের কাছে আরও বিনয়ী হবেন।

এ সমাবেশকে কেন্দ্র করে কিছুটা জনদুর্ভোগ হতে পারে আশঙ্কা করে আগাম দুঃখপ্রকাশ করেন তিনি।

দল ও সরকার আলাদা করার প্রক্রিয়া চলছে উল্লেখ করে কাদের বলেন, এ বিজয়কে সংহত করতে চাইলে আমাদের দল গোছাতে হবে। আওয়ামী লীগের ভবিষ্যৎ বিজয় চাইলে দলের ভেতরের সমস্যা আগে ঠিক করতে হবে। এই সমস্যাগুলো অনতিক্রম্য নয়, অতিক্রম্য।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ সভাপতি হাজী আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে সভায় আর বক্তব্য দেন- ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।

সভায় উপস্থিত ছিলেন- নৌ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, শিক্ষা উপমন্ত্রী মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর প্রমুখ।

এর আগে রোববার ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেছিলেন, যেসব দল ও জোটের সাথে সংলাপ হয়েছিল, তাদেরকে আবার চিঠি দিয়ে সংলাপে ডাকবেন প্রধানমন্ত্রী।
সুত্র-সমকাল

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।