সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৫:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
বিজয় উৎসবে জগন্নাথপুরে ৪০ জন মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে স্মার্টকার্ড বিতরণ জগন্নাথপুরে ১৪৫ ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্কুল ব্যাগ বিতরণ বিজয় দিবসে জগন্নাথপুরে বিএনপির উদ‌্যোগে বিজয় র‌্যালি, শ্রদ্ধা নিবেদন ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত বিজয় দিবসে জগন্নাথপুরে আ.লীগের বিভিন্ন কর্মসুচী পালন স্বাধীনতার ৪৮ বছরেও সম্মানী ভাতা পাচ্ছেন না জগন্নাথপুরের ছয় মুক্তিযোদ্ধার পরিবার নবী-রাসুলদের দেশাত্মবোধ আজ মুক্তির দিন শালুকের ঠোঁটে ফুটে বিজয় || আব্দুল মতিন জগন্নাথপুর উপজেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন জগন্নাথপুরে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার সম্পন্ন, ১২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কৃত

সিলেটে প্রিয়াংকার মৃত্যু নিয়ে ‘রহস্য’

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ৬ জানুয়ারী, ২০১৮
  • ৮৫ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডেস্ক ::সিলেটের প্রবাসীর স্ত্রী প্রিয়াংকা দেবের মৃত্যু এখনো ‘রহস্যাবৃত’। পুলিশ বলছে, ময়নাতদন্ত রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত ঘটনাটি পরিষ্কার হবে না। তবে প্রিয়াংকার পিতা দিলীপ দেব আত্মহত্যার বিষয়টি মানতে নারাজ। তিনি দাবি করেছেন, তার মেয়েকে খুন করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। এদিকে ঘটনার সময় দেশেও ছিলেন প্রিয়াংকার স্বামী টিটন দেব। তাদের মধ্যে
পারিবারিক কলহ ছিল বলে জানিয়েছেন প্রিয়াংকার স্বজনরা।
স্ত্রী প্রিয়াংকার রানী দেব। বয়স বর্তমানে ২৪। বাড়ি সিলেটের বিশ্বনাথের জানাইয়া গ্রামে। পিতা দিলীপ দেব। আর স্বামী টিটন কুমার দেব। দুবাই প্রবাসী। তার বাড়ি গোলাপগঞ্জ উপজেলার ঢাকা দক্ষিণ ইউনিয়নের দত্তরাইল গ্রামে। পিতা অরুণ দেব। পারিবারিক সূত্র জানিয়েছেন, ২০১৩ সালের ১২ই অক্টোবর দুই পরিবারের সম্মতিতে টিটন দেবের সঙ্গে বিয়ে হয় প্রিয়াংকা দেবের। বিয়ের পর ৬ মাস বাড়িতে ছিলেন টিটন দেব। এরপর তিনি চলে যান দুবাইয়ে। বিয়ের এক বছরের মাথায় তাদের সংসারে এক পুত্র সন্তান জন্ম নেয়। অভি দেব নামের ওই পুত্র সন্তানের বয়স বর্তমানে ৩ বছর। প্রিয়াংকার পিতা দিলীপ দেব সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, টিটন বিদেশ যাবার পর থেকেই শাশুড়ি ও ননদের রোষানলে পড়েন প্রিয়াংকা। তারা প্রায়ই প্রিয়াংকাকে নির্যাতন করত। এগুলো সব সময়ই প্রিয়াংকা তার বাপের বাড়ির লোকজনকে অবহিত করত। এসব কারণে পিতার বাড়ি বেড়াতে এলে স্বামীর বাড়ি ফিরতে চাইতো না সে। গত ২রা জানুয়ারি মঙ্গলবার সকাল ৮টার দিকে টিটনের ভাই উজ্জল কুমার দেব মোবাইল ফোনে প্রিয়াংকার গুরুতর অসুস্থতার খবর দেয়। খবর পেয়ে তার পিতা-মাতা সেখানে গিয়ে দেখতে পান তাদের মেয়েকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে পুলিশ। তাদের ‘মঙ্গলবার ভোরের দিকে প্রিয়াংকা আত্মহত্যা করেছে’ বলে তারা জানায়। দিলীপ জানান, গত ২২শে ডিসেম্বর দুবাই থেকে দেশে আসে তার মেয়ে জামাই টিটন। আসার পর থেকেই তার মেয়ের ওপর তার পরিবারের লোকজন নানা অত্যাচার-নির্যাতন করছিল। ঘটনার আগের দিন রাতেও তাকে নির্যাতন করা হয়। তিনি বলেন, আমার মেয়েকে হত্যা করে তারা আত্মহত্যার নাটক সাজিয়ে গামছা পেঁচানো অবস্থায় ঘরের তীরের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখে। অথচ তার পায়ের নিচে কোনো কিছু ছিল না। উদ্ধার করার সময় তার পা মাটিতে লাগানো ছিল। এ ঘটনায় একটি মহল দ্বারা প্রভাবিত হয়ে গোলাপগঞ্জ থানা পুলিশ মামলা নিচ্ছে না বলেও তিনি অভিযোগ করেন। সিলেটের গোলাপগঞ্জ থানার ওসি একেএম ফজলুল হক শিবলী মানবজমিনকে জানিয়েছেন, পিতার পরিবারের অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রিয়াংকার মৃত্যু নিয়ে রহস্য দেখা দিয়েছে। পুলিশ তদন্ত করে পুরো বিষয়টি খোলাসা করবে। এর বাইরেও ময়নাতদন্ত রিপোর্ট আসবে। সেই রিপোর্ট পর্যালোচনার পর যে ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন পুলিশ সেটি করবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24