সিলেট-২ আসনে জামানত হারালেন মহাজোট প্রার্থী এহিয়া

আবদুর রশিদ রেনু :
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশব্যাপী গণহারে ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থীরা জামানত হারালেও সিলেট বিভাগের ১৯টি আসনেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীরা। ১৭ জন প্রার্থী পরাজিত হলেও কেউ জামানত হারাননি।

নির্বাচনে দেশের অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় সিলেট বিভাগে ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থীদের ভোটপ্রাপ্তির হিসাব অনেক ভালো। ১৯ জনের মধ্যে তিনজন প্রার্থী লক্ষাধিক ভোট পেয়েও পরাজিত হয়েছেন। আবার লাখের নিচে ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন দুইজন। তবে মহাজোটের একজন প্রার্থী জামানত হারিয়েছেন। তিনি সিলেট-২ আসনের দশম সংসদের সদস্য ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া।
এবার তিনি ১৮ হাজার ৩২ ভোট পেয়ে চতুর্থ হয়েছেন। এ আসনে ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত গণফোরামের মোকাব্বির খান ৬৯ হাজার ৪২০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। ঐক্যফ্রন্টের আরেক প্রার্থী সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ ৭৭ হাজার ১৭০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে।

ঐক্যফ্রন্টের পরাজিতদের মধ্যে সর্বাধিক ১ লাখ ২৩ হাজার ৮৫১ ভোট পান সিলেট-১ আসনের প্রার্থী খন্দকার আবদুল মুক্তাদির। এই আসনে আওয়ামী লীগের ড. একে আবদুল মোমেন ২ লাখ ৯৮ হাজার ৬৯৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। সিলেট-৬ আসনে ফয়সল আহমদ চৌধুরী ১ লাখ ৮ হাজার ৮৯ ভোট পান। এই আসনে আওয়ামী লীগের নুরুল ইসলাম নাহিদ ১ লাখ ৯৬ হাজার ১৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। মৌলভীবাজার-২ আসনে নাসের রহমান পান ১ লাখ ৪ হাজার ৫৯৫ ভোট। এই আসনে আওয়ামী লীগের নেছার আহমদ ১ লাখ ৮৪ হাজার ৫৭৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন।

এছাড়াও ঐক্যফ্রন্টের পরাজিত প্রার্থীদের মধ্যে সিলেট-৩ আসনে শফি আহমদ চৌধুরী পান ৮৩ হাজার ২৮৮ ভোট। সিলেট-৪ আসনে দিলদার হোসেন সেলিম ধানের শীষে পান ৯৩ হাজার ৪৪৮ ভোট। সিলেট-৫ আসনে মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক পান ৮৬ হাজার ১৫১ ভোট। সুনামগঞ্জ-১ আসনে নজির হোসেন পান ৭৮ হাজার ১১৫ ভোট। সুনামগঞ্জ-২ আসনে নাছির উদ্দিন চৌধুরী পান ৬৭ হাজার ৫৮৭ ভোট। সুনামগঞ্জ-৩ আসনে শাহীনুর পাশা চৌধুরী পান ৫২ হাজার ৯২৫ ভোট।

সুনামগঞ্জ-৪ আসনে ফজলুল হক আছপিয়া পান ৬৯ হাজার ৭৪৯ ভোট। সুনামগঞ্জ-৫ আসনে মিজানুর রহমান চৌধুরী ধানের শীষে পান ৮৯ হাজার ৬৪২ ভোট। হবিগঞ্জ-১ আসনে ড. রেজা কিবরিয়া পান ৮৫ হাজার ৮৮৫ ভোট। হবিগঞ্জ-২ আসনে আবদুল বাছিত আজাদ পান ৫৯ হাজার ২৯৫ ভোট। হবিগঞ্জ-৩ আসনে জিকে গৌছ ধানের শীষে পান ৬৮ হাজার ৭৮ ভোট। হবিগঞ্জ-৪ আসনে আবদুল কাদির পান ৪৬ হাজার ১৮৩ ভোট। মৌলভীবাজার-১ আসনে নাছির উদ্দিন মিঠু পান ৬৭ হাজার ২৪৫ ভোট। মৌলভীবাজার-৪ আসনে মুজিবুর রহমান চৌধুরী পান ৯৩ হাজার ২৯৫ ভোট।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» জগন্নাথপুরে শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ থাকবে না

» লোকসভা নির্বাচন মুসলিমদের কি একপেশে করে রাখা হচ্ছে!

» জগন্নাথপুরে ১ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ, ধর্ষক গ্রেফতার

» পরীক্ষা কেন্দ্রে ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে আটক-১

» দলকে না জানিয়ে এমপি হিসেবে শপথ নিলেন বিএনপির জাহিদুর

» ‘ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার সঙ্গে শ্রীলঙ্কা হামলার সম্পর্কের প্রমাণ নেই’

» ক্লাসে শিক্ষকদের সিগারেট-পান নিষিদ্ধ

» জগন্নাথপুরে এক সন্তানের জননীর আত্মহত্যা

» জগন্নাথপুরে নিসচা’র উদ্যোগে লিফলেট বিতরণ

» জগন্নাথপুরের সাবেক ছাত্রলীগ নেতা যুক্তরাজ্য প্রবাসিকে আনহার মিয়াকে সংবর্ধনা প্রদান

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

সিলেট-২ আসনে জামানত হারালেন মহাজোট প্রার্থী এহিয়া

আবদুর রশিদ রেনু :
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশব্যাপী গণহারে ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থীরা জামানত হারালেও সিলেট বিভাগের ১৯টি আসনেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীরা। ১৭ জন প্রার্থী পরাজিত হলেও কেউ জামানত হারাননি।

নির্বাচনে দেশের অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় সিলেট বিভাগে ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থীদের ভোটপ্রাপ্তির হিসাব অনেক ভালো। ১৯ জনের মধ্যে তিনজন প্রার্থী লক্ষাধিক ভোট পেয়েও পরাজিত হয়েছেন। আবার লাখের নিচে ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন দুইজন। তবে মহাজোটের একজন প্রার্থী জামানত হারিয়েছেন। তিনি সিলেট-২ আসনের দশম সংসদের সদস্য ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া।
এবার তিনি ১৮ হাজার ৩২ ভোট পেয়ে চতুর্থ হয়েছেন। এ আসনে ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত গণফোরামের মোকাব্বির খান ৬৯ হাজার ৪২০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। ঐক্যফ্রন্টের আরেক প্রার্থী সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ ৭৭ হাজার ১৭০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে।

ঐক্যফ্রন্টের পরাজিতদের মধ্যে সর্বাধিক ১ লাখ ২৩ হাজার ৮৫১ ভোট পান সিলেট-১ আসনের প্রার্থী খন্দকার আবদুল মুক্তাদির। এই আসনে আওয়ামী লীগের ড. একে আবদুল মোমেন ২ লাখ ৯৮ হাজার ৬৯৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। সিলেট-৬ আসনে ফয়সল আহমদ চৌধুরী ১ লাখ ৮ হাজার ৮৯ ভোট পান। এই আসনে আওয়ামী লীগের নুরুল ইসলাম নাহিদ ১ লাখ ৯৬ হাজার ১৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। মৌলভীবাজার-২ আসনে নাসের রহমান পান ১ লাখ ৪ হাজার ৫৯৫ ভোট। এই আসনে আওয়ামী লীগের নেছার আহমদ ১ লাখ ৮৪ হাজার ৫৭৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন।

এছাড়াও ঐক্যফ্রন্টের পরাজিত প্রার্থীদের মধ্যে সিলেট-৩ আসনে শফি আহমদ চৌধুরী পান ৮৩ হাজার ২৮৮ ভোট। সিলেট-৪ আসনে দিলদার হোসেন সেলিম ধানের শীষে পান ৯৩ হাজার ৪৪৮ ভোট। সিলেট-৫ আসনে মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক পান ৮৬ হাজার ১৫১ ভোট। সুনামগঞ্জ-১ আসনে নজির হোসেন পান ৭৮ হাজার ১১৫ ভোট। সুনামগঞ্জ-২ আসনে নাছির উদ্দিন চৌধুরী পান ৬৭ হাজার ৫৮৭ ভোট। সুনামগঞ্জ-৩ আসনে শাহীনুর পাশা চৌধুরী পান ৫২ হাজার ৯২৫ ভোট।

সুনামগঞ্জ-৪ আসনে ফজলুল হক আছপিয়া পান ৬৯ হাজার ৭৪৯ ভোট। সুনামগঞ্জ-৫ আসনে মিজানুর রহমান চৌধুরী ধানের শীষে পান ৮৯ হাজার ৬৪২ ভোট। হবিগঞ্জ-১ আসনে ড. রেজা কিবরিয়া পান ৮৫ হাজার ৮৮৫ ভোট। হবিগঞ্জ-২ আসনে আবদুল বাছিত আজাদ পান ৫৯ হাজার ২৯৫ ভোট। হবিগঞ্জ-৩ আসনে জিকে গৌছ ধানের শীষে পান ৬৮ হাজার ৭৮ ভোট। হবিগঞ্জ-৪ আসনে আবদুল কাদির পান ৪৬ হাজার ১৮৩ ভোট। মৌলভীবাজার-১ আসনে নাছির উদ্দিন মিঠু পান ৬৭ হাজার ২৪৫ ভোট। মৌলভীবাজার-৪ আসনে মুজিবুর রহমান চৌধুরী পান ৯৩ হাজার ২৯৫ ভোট।

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।