সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:১৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুর মুক্ত দিবস আজ ডাকাত আতঙ্কে আজও নিদ্রাহীন মিরপুর ইউনিয়নবাসি, চলছে পাহারা জগন্নাথপুরে হালিমা খাতুন ট্রাষ্টের মেধা বৃত্তি পরীক্ষায় প্রথম স্থান অর্জন করেছে তাওহিদা কলকলিয়া ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী- তোমাদের স্বপ্নের বাংলাদেশ আসছে জগন্নাথপুরে আমার বিদ‌্যালয়, আমার অহংকার, নিজেরাই করি সুন্দর ও পরিস্কার প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে বন্ধুকে নিয়ে বেড়াতে গিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় দুই বন্ধু নিহত ছাতকে একই স্থানে আ.লীগের দুই পক্ষের সমাবেশ,১৪৪ ধারা জারি আজ কলকলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সন্মেলন ভারমুক্ত না নতুন নেতৃত্ব? কাশফুলের শাদা যন্ত্রণা ||আব্দুল মতিন জগন্নাথপুরের মিরপুরে ডাকাত আতঙ্ক, রাত জেগে দলবেঁধে পাহারা চলছে

সুনামগঞ্জের আমপাড়া বাজারে সরকারী জায়গায় নির্মিত হচ্ছে অবৈধ স্থাপনা : ভূমি প্রশাসন নির্বিকার

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৭ মার্চ, ২০১৬
  • ৩৮ Time View

সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা : সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জাহাঙ্গীরনগর ইউনিয়নের আমপাড়া বাজারে সরকারী খাস খতিয়ানের জায়গা অবৈধ দখল করে জোরপূর্বক দোকানঘর নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ভূমিখেকো আবুল কাশেম এর বিরুদ্ধে। আবুল কাশেম সদর উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের নলুয়া গ্রামের উমেদ আলী মোল্লার পুত্র। অভিযোগে প্রকাশ,আমপাড়া বাজারটির ১১ সদস্য বিশিষ্ট পরিচালনা কমিটির সভাপতি ঘাসীগাও গ্রামের মৃত আব্দুল করিমের পুত্র আব্দুল কাদের,সাধারন সম্পাদক আমপাড়া গ্রামের আলী মিয়ার পুত্র ও মীরেরচর ইয়াকুবিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক আব্দুর রহিম,সহ-সভাপতি ঘাসীগাও গ্রামের মৃত মহব্বত আলীর পুত্র ছাদেক আলী ও সদস্য একই গ্রামের মৃত রুকুন উদ্দিনের পুত্র ফারুক হোসেনগং তাদের ব্যাক্তিগত সিদ্বান্ত মতে মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে সরকারী খাস খতিয়ানের জায়গার উপর স্থাপিত আমপাড়া খোলা বাজার (তোহা বাজার) এর জায়গায় ১টি পাকা দোকানভিটা তৈরীর জন্য জায়গা বিক্রয় করেছেন। বাজার কমিটির ৪ সদস্য এই জালিয়াতি প্রতারনার সাথে জড়িত বলে স্বীকার করেছেন বাজার কমিটির অপরাপর ৭ জন গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তি। বাজার কমিটির ক্যাশিয়ার রমজান আলী ও সদস্য ডাঃ আবুল খায়ের এর কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন,বাজারের কোন জায়গা বা ভিট বিক্রয় বা দখল সমজিয়ে দেয়ার মর্মে বাজার কমিটির কোন সদস্যরা আদৌ অবহিত নন। কমিটির সভায় এ ধরনের কোন সিদ্বান্ত হয়েছে বলেও আমাদের জানা নেই। আমপাড়া বাজার গত ৪০ বছরের প্রতিষ্ঠিত একটা খোলা বাজার। এই বাজারের কোন জায়গা বিক্রয় বা দখল পজেশন হস্তান্তরের এখতিয়ার কোন বাজার কমিটি বা ইউনিয়ন পরিষদের নেই। লোভের বশবর্তী বা ক্ষমতার অপব্যবহার করে কেউ যদি সরকারী খাস খতিয়ানের জায়গা বিশেষ মহলের কাছে হস্তান্তর করেন তাহলে এর জন্য সরকারের কাছে তারাই জবাবদিহী করবেন। আমরা এ ব্যাপারে কিছুই জানিনা। সম্প্রতি এই বাজারটি অবৈধ দখলমুক্ত রাখার জন্য জেলা প্রশাসক,সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত আবেদন করেছেন ব্যাবসায়ী কফিল উদ্দিন,মোঃ আবুল হোসেন,মোঃ মহিনুল ইসলাম,ফজলুল হক,মাসুক মিয়া,আব্দুল হেকিম,আফাজ উল্লাহ,আফাজ উল্লঅ,আব্দুল মোতালিব ও জিতু মিয়াসহ বাজারের আশপাশ এলাকার বাসিন্দারা। লিখিত আবেদনে উল্লেখ করা হয়,সদর উপজেলার ফেটারগাও মৌজার ৪৫ নং জেএলস্থিত ১ নং খতিয়ানের ১৫৫৪ নং দাগের প্রায় ২১ শতক জায়গার মধ্যে অবস্থিত আমপাড়া বাজার পেরিফেরি আওতাধীন তোহা বাজার অংশে এলাকার কতিপয় ব্যাক্তিরা সরকারের ভূমিতে দখল বিক্রি ও স্থায়ী স্থাপনা নির্মান করিতেছে। এতে করে সরকারের ভূমি বেদখল হয়ে যাচ্ছে এবং ক্ষুদ্র ও স্থায়ী ব্যাবসায়ীসহ ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে বাজারটি। জানা যায়,গত ১৩/১০/২০১৪ ইং তারিখে ২২৬৩ (৮) নং স্মারকের আদেশ মোতাবেক অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) এর নির্দেশে ৯/১১/২০১৪ ইং তারিখে সদর উপজেলা ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার মোঃ মনির হোসেন সরজমিন তদন্তক্রমে আমপাড়া বাজারের জায়গা বাংলাদেশ সরকারের নামে রেকর্ডভূক্ত বলে বর্ণিত বাজারটি পেরিফেরী (খোলাবাজার) অনুমোদনের জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। এরপর থেকেই ভূমিদস্যুরা বাজারের জায়গা দখলে মরিয়া হয়ে উঠেছে। অভিযোগ দায়েরের পরও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নীরব ভূমিকায় জনমনে উত্তেজনা বিরাজ করছে। অবিলম্বে ভূমিখেকোদের কবল থেকে বাজারটি রক্ষার দাবী স্থানীয় জনসাধারনের প্রানের দাবীতে পরিণত হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24