সুনামগঞ্জ সদরে হচ্ছে দুই স্বাস্থ্যশিক্ষা প্রতিষ্ঠান

বিশেষ প্রতিনিধি::
সুনামগঞ্জে নার্সিং কলেজ এবং ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি’র জমি নির্ধারণ করা হয়েছে। সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের উত্তর দিকের আলীপাড়ামুখী সড়কের পূর্ব পাশে প্রায় ৬০ কোটি টাকা ব্যয়ে এই দুটি প্রতিষ্ঠান হচ্ছে। বুধবার থেকে নার্সিং কলেজের ৩ একর জমির সয়েল টেস্টের কাজ শুরু হয়েছে। এর আগে এই জমির ডিজিটাল সার্ভের কাজ হয়। নার্সিং কলেজের কাজ করছে গণপূর্ত বিভাগ এবং ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজির কাজ করবে স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর।
নার্সিং কলেজে এসএসসি পাস করে ডিপ্লোমা কোর্সে ভর্তি হওয়ার সুযোগ থাকবে। আবার এইচএসসি পাস করে নার্সিং’এ বিএসসি অধ্যয়ন করা যাবে।
সুনামগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাস বলেন,‘সুনামগঞ্জ-৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নানের চেষ্টায় এই জেলায় নার্সিং কলেজ এবং ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি হচ্ছে। দুটি প্রতিষ্ঠানেরই জমি নির্ধারণ হয়েছে। জমির মালিকদের চার ধারার নোটিশও শীঘ্রই দেওয়া হবে। জমি মালিকরা এই দুই প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে তাঁদের জমি দিতেও আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। দুটি প্রতিষ্ঠানেরই অর্থ ছাড়ের প্রক্রিয়া শেষ পর্যায়ে বলে জানান তিনি।
সুনামগঞ্জের বাসিন্দা ঢাকার গার্মেন্টস ব্যবসায়ী শ্যামল রায় বলেন,‘প্রতিষ্ঠান দুটির জমি নির্ধারণে বিলম্ব হচ্ছিল, মাননীয় অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান সম্প্রতি জেলা প্রশাসক মহোদয়কে দ্রুত সদর হাসপাতালের কাছাকাছি জমি নির্ধারণ করে দেবার নির্দেশনা দেন এবং ওই প্রকল্পের অর্থ ছাড়ের বিষয়টি তিনি দেখবেন বলে জানান।’
সুনামগঞ্জ গণপূর্ত বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী প্রসেনজিৎ পাল বললেন,‘সুনামগঞ্জ নার্সিং কলেজের জমি নির্ধারণের পর ডিজিটাল সার্ভে সম্পন্ন হয়েছে, এখন সয়েল টেস্ট করা হচ্ছে। সয়েল টেস্টের পর স্থাপত্য অধিদপ্তর থেকে নকশা দেওয়া হবে। এরপর প্রাক্কলন তৈরি করে তত্বাবধায়ক প্রকৌশলীর অনুমোদন নিতে হবে। তত্বাবধায়ক প্রকৌশলীর অনুমতি পাওয়া গেলে দরপত্র প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।’
সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাস বলেন,‘একই ভূমির পাশে ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি’র জন্য জমি নির্ধারণ করা হয়েছে। ৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হবে এই প্রতিষ্ঠান। ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি’তে একইভাবে ডিপ্লোমা ও বিএসসি কোর্সে ল্যাবরেটরি টেকনেশিয়ান হতে আগ্রহীরা ভর্তি হবে।’

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» আবু খালেদ চৌধুরীর ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

» জগন্নাথপুরে নবগঠিত পৌর যুবলীগের একাংশের আনন্দ মিছিল

» হবিগঞ্জে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ, স্বামী গ্রেফতার

» জগন্নাথপুরে পৌর যুবলীগের কমিটি প্রত্যাখান করে ঝাড়ু মিছিল

» জগন্নাথপুরে ‘অপহরণের অভিযোগ সত্য নয়, প্রেমের টানে পালিয়েছিল তরুণী’

» বেরাতে এসে নদীতে ডুবে প্রাণ গেলো এসএসসি শিক্ষার্থীর

» বাস-মাহেন্দ্রের সংঘর্ষে কলেজছাত্রীসহ নিহত ৬

» নিউজিল্যান্ডে যেভাবে ইসলাম এসেছে

» জগন্নাথপুরে কলেজ শিক্ষক সমিতির কমিটি গঠন, আহবায়ক মতিন, সদস্য সচিব আব্দুর রহমান

» নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

সুনামগঞ্জ সদরে হচ্ছে দুই স্বাস্থ্যশিক্ষা প্রতিষ্ঠান

বিশেষ প্রতিনিধি::
সুনামগঞ্জে নার্সিং কলেজ এবং ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি’র জমি নির্ধারণ করা হয়েছে। সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের উত্তর দিকের আলীপাড়ামুখী সড়কের পূর্ব পাশে প্রায় ৬০ কোটি টাকা ব্যয়ে এই দুটি প্রতিষ্ঠান হচ্ছে। বুধবার থেকে নার্সিং কলেজের ৩ একর জমির সয়েল টেস্টের কাজ শুরু হয়েছে। এর আগে এই জমির ডিজিটাল সার্ভের কাজ হয়। নার্সিং কলেজের কাজ করছে গণপূর্ত বিভাগ এবং ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজির কাজ করবে স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর।
নার্সিং কলেজে এসএসসি পাস করে ডিপ্লোমা কোর্সে ভর্তি হওয়ার সুযোগ থাকবে। আবার এইচএসসি পাস করে নার্সিং’এ বিএসসি অধ্যয়ন করা যাবে।
সুনামগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাস বলেন,‘সুনামগঞ্জ-৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নানের চেষ্টায় এই জেলায় নার্সিং কলেজ এবং ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি হচ্ছে। দুটি প্রতিষ্ঠানেরই জমি নির্ধারণ হয়েছে। জমির মালিকদের চার ধারার নোটিশও শীঘ্রই দেওয়া হবে। জমি মালিকরা এই দুই প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে তাঁদের জমি দিতেও আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। দুটি প্রতিষ্ঠানেরই অর্থ ছাড়ের প্রক্রিয়া শেষ পর্যায়ে বলে জানান তিনি।
সুনামগঞ্জের বাসিন্দা ঢাকার গার্মেন্টস ব্যবসায়ী শ্যামল রায় বলেন,‘প্রতিষ্ঠান দুটির জমি নির্ধারণে বিলম্ব হচ্ছিল, মাননীয় অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান সম্প্রতি জেলা প্রশাসক মহোদয়কে দ্রুত সদর হাসপাতালের কাছাকাছি জমি নির্ধারণ করে দেবার নির্দেশনা দেন এবং ওই প্রকল্পের অর্থ ছাড়ের বিষয়টি তিনি দেখবেন বলে জানান।’
সুনামগঞ্জ গণপূর্ত বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী প্রসেনজিৎ পাল বললেন,‘সুনামগঞ্জ নার্সিং কলেজের জমি নির্ধারণের পর ডিজিটাল সার্ভে সম্পন্ন হয়েছে, এখন সয়েল টেস্ট করা হচ্ছে। সয়েল টেস্টের পর স্থাপত্য অধিদপ্তর থেকে নকশা দেওয়া হবে। এরপর প্রাক্কলন তৈরি করে তত্বাবধায়ক প্রকৌশলীর অনুমোদন নিতে হবে। তত্বাবধায়ক প্রকৌশলীর অনুমতি পাওয়া গেলে দরপত্র প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।’
সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাস বলেন,‘একই ভূমির পাশে ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি’র জন্য জমি নির্ধারণ করা হয়েছে। ৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হবে এই প্রতিষ্ঠান। ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি’তে একইভাবে ডিপ্লোমা ও বিএসসি কোর্সে ল্যাবরেটরি টেকনেশিয়ান হতে আগ্রহীরা ভর্তি হবে।’

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।