স্কুলছাত্রকে হত্যার পর লাশ পুঁতে ফেলল বন্ধুরা

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::

পাবনা সদর উপজেলার দুবলিয়া গ্রামের মো. রবিউল ইসলাম প্রামানিকের মেজ ছেলে আশিক মাহমুদ অনি বাবু (১৪)। সে এবার জেএসসি পরীক্ষা শেষ করেছে। অনি দু’টি অ্যানড্রয়েট মোবাইল ফোন ব্যবহার করতো, যার প্রতি বন্ধুদের লোভ ছিল। কয়েক দিন আগে তার জমানো সাড়ে চার হাজার টাকা হারিয়ে যায়। এসব নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে তার ঝগড়া হয়। এর জের ধরে অনিকে হত্যার পর লাশ পুঁতে রাখা হয়।

পাবনা সদর থানার দুবলিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মনোরঞ্জন রায় সমকালকে এসব তথ্য জানান। শুক্রবার সকালে দুবলিয়া হাইস্কুলের দক্ষিণ পাশের একটি হলুদ ক্ষেত থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মনোরঞ্জন রায় বলেন, এসব ছাড়াও প্রেমঘটিত বিষয় থাকতে পারে। তবে এ ঘটনা ঘটেছে তার বন্ধুদের দ্বারা। ঘটনার পর থেকে তারা সবাই পলাতক রয়েছে।

আজ শুক্রবার দুপুরে পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে অনির খুনীদের খুঁজে বের করতে পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

এলাকার লোকজন বলছে, ‘মোবাইল ফোনই অনির জীবনের কাল হলো।’

পুলিশ জানায়, গত ২৬ নভেম্বর অনি বাবু দুবলিয়া বাজার থেকে নিখোঁজ হয়। ওইদিন সন্ধ্যায় সে বাবার টিনের দোকানে যায়। এ সময় বাবা রবিউল প্রামানিক তাকে বাড়ি যেতে বলে। সে দোকান থেকে বেরিয়ে আর বাড়ি ফেরেনি। অনেক খোজাখুঁজির পরেও অনিকে পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে অনির বাবা রবিউল ইসলাম গত ২৭ নভেম্বর পাবনার আতাইকুলা থানায় একটি জিডি করেন। এদিকে শুক্রবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে দুবলিয়া হাইস্কুলের দক্ষিণ পাশের একটি হলুদ ক্ষেতে শ্রমিকরা কাজ করার সময় কোদালের কোপে একটি হাত বেরিয়ে আসে। এভাবে লাশটি উদ্ধারের পর অনির পরিবারের সদস্যরা এসে সেটি শনাক্ত করেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» আবু খালেদ চৌধুরীর ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

» জগন্নাথপুরে নবগঠিত পৌর যুবলীগের একাংশের আনন্দ মিছিল

» হবিগঞ্জে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ, স্বামী গ্রেফতার

» জগন্নাথপুরে পৌর যুবলীগের কমিটি প্রত্যাখান করে ঝাড়ু মিছিল

» জগন্নাথপুরে ‘অপহরণের অভিযোগ সত্য নয়, প্রেমের টানে পালিয়েছিল তরুণী’

» বেরাতে এসে নদীতে ডুবে প্রাণ গেলো এসএসসি শিক্ষার্থীর

» বাস-মাহেন্দ্রের সংঘর্ষে কলেজছাত্রীসহ নিহত ৬

» নিউজিল্যান্ডে যেভাবে ইসলাম এসেছে

» জগন্নাথপুরে কলেজ শিক্ষক সমিতির কমিটি গঠন, আহবায়ক মতিন, সদস্য সচিব আব্দুর রহমান

» নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

স্কুলছাত্রকে হত্যার পর লাশ পুঁতে ফেলল বন্ধুরা

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::

পাবনা সদর উপজেলার দুবলিয়া গ্রামের মো. রবিউল ইসলাম প্রামানিকের মেজ ছেলে আশিক মাহমুদ অনি বাবু (১৪)। সে এবার জেএসসি পরীক্ষা শেষ করেছে। অনি দু’টি অ্যানড্রয়েট মোবাইল ফোন ব্যবহার করতো, যার প্রতি বন্ধুদের লোভ ছিল। কয়েক দিন আগে তার জমানো সাড়ে চার হাজার টাকা হারিয়ে যায়। এসব নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে তার ঝগড়া হয়। এর জের ধরে অনিকে হত্যার পর লাশ পুঁতে রাখা হয়।

পাবনা সদর থানার দুবলিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মনোরঞ্জন রায় সমকালকে এসব তথ্য জানান। শুক্রবার সকালে দুবলিয়া হাইস্কুলের দক্ষিণ পাশের একটি হলুদ ক্ষেত থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মনোরঞ্জন রায় বলেন, এসব ছাড়াও প্রেমঘটিত বিষয় থাকতে পারে। তবে এ ঘটনা ঘটেছে তার বন্ধুদের দ্বারা। ঘটনার পর থেকে তারা সবাই পলাতক রয়েছে।

আজ শুক্রবার দুপুরে পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে অনির খুনীদের খুঁজে বের করতে পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

এলাকার লোকজন বলছে, ‘মোবাইল ফোনই অনির জীবনের কাল হলো।’

পুলিশ জানায়, গত ২৬ নভেম্বর অনি বাবু দুবলিয়া বাজার থেকে নিখোঁজ হয়। ওইদিন সন্ধ্যায় সে বাবার টিনের দোকানে যায়। এ সময় বাবা রবিউল প্রামানিক তাকে বাড়ি যেতে বলে। সে দোকান থেকে বেরিয়ে আর বাড়ি ফেরেনি। অনেক খোজাখুঁজির পরেও অনিকে পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে অনির বাবা রবিউল ইসলাম গত ২৭ নভেম্বর পাবনার আতাইকুলা থানায় একটি জিডি করেন। এদিকে শুক্রবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে দুবলিয়া হাইস্কুলের দক্ষিণ পাশের একটি হলুদ ক্ষেতে শ্রমিকরা কাজ করার সময় কোদালের কোপে একটি হাত বেরিয়ে আসে। এভাবে লাশটি উদ্ধারের পর অনির পরিবারের সদস্যরা এসে সেটি শনাক্ত করেন।

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।