বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯, ১২:৫৬ পূর্বাহ্ন

সড়কের প্রাণ গেল কলেজছাত্রীসহ তিনজনের

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৮
  • ২৪ Time View

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::
কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলায় দুই মাইক্রোবাস ও বালিবাহী ট্রাকের ত্রিমুখী সংঘর্ষে দুই কলেজ ছাত্রীসহ ৩ নারী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় শিশুসহ আহত হয়েছেন আরও ১১ জন। গতকাল বুধবার দুপুর পৌনে ২টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চান্দিনা উপজেলাধীন গোবিন্দপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন দেবিদ্বার উপজেলার প্রেমু গ্রামের আব্দুল ওহাবের মেয়ে পপি আক্তার (১৮), একই গ্রামের মরিয়ম আক্তার মুনমুন (১৮)। তারা উভয়ই চান্দিনা মহিলা ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী ছিলেন। অন্যজন হলেন কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামের লাভলী আক্তার (২৮)। মাইক্রোবাস যাত্রী আহত সামছুল হুদা জানান, তিনি চান্দিনা বাসস্টেশন থেকে কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট যাওয়ার উদ্দেশে মাইক্রোবাসে ওঠেন। ওই মাইক্রোবাসে কলেজছাত্রীসহ আরও অন্তত ১০ জন ছিলেন। গোবিন্দপুর স্টেশনে পৌঁছার পর যাত্রী নামানোর জন্য গাড়িটি থামলে পেছনের একটি মাইক্রোবাস ওভারটেকিং করছিল। এসময় পেছন থেকে ছুটে আসা দ্রুতগামী বালুবাহী ট্রাক দুটি মাইক্রোবাসকে পেছন থেকে ধাক্কা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ময়নামতি হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হারাধন চন্দ্র দাস জানান, একটি বড় মাইক্রোবাস চান্দিনা থেকে ক্যান্টনমেন্ট যাচ্ছিল। অন্যটি বিদেশি যাত্রী নিয়ে ঢাকা থেকে মনোহরগঞ্জ যাচ্ছিল। মাইক্রোবাসের যাত্রী নামানোর সময় পেছন থেকে ট্রাক ধাক্কা দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলে লাভলী আক্তার নিহত হন। বাকিদের কুমিল্লা ইস্টার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর পপি আক্তার ও অন্য হাসপাতালে নেওয়ার পথে মুনমুনের মৃত্যু হয়। দুর্ঘটনাকবলিত মাইক্রোবাসগুলো উদ্ধার করা হয়েছে। তবে ঘাতক ট্রাকটি আটক করা সম্ভব হয়নি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24