১২ ঘন্টার আলন্টিমেটামে খুলল বিএনপি কার্যালয়ের তালা

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::
রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেওয়ার পর ১২ ঘণ্টার অাল্টিমেটাম দিয়ে তা আবার খুলে দিয়েছেন সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ও বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আ ন ম এহছানুল হক মিলনের সমর্থকেরা।
আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের পক্ষে বিএনপির এই নেতাকে মনোনয়ন না দেওয়ায় শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিক্ষোভ শুরু করেন সমর্থকরা। এক পর্যায়ে দলের কেন্দীয় কার্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা মেরে দেন তারা।
শতাধিক বিএনপি নেতাকর্মী মিলনের পক্ষে দলটির কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেন। পরে দলের সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর কাছে জানতে চাইলেও মিলনকে কেন মনোনয়ন দেওয়া হয়নি তার উত্তর দেননি তিনি।
দুপুরের পরও মিলন সমর্থকদের বিক্ষোভ চলে। এক পর্যায়ে নিরাপত্তাকর্মীরা কার্যালয়টিতে ভেতর থেকে তালা মেরে দেন। পরে মিলনের সমর্থকরাও বাইরে থেকে ফটকে তালা মারেন। বিকেলের দিকে ১২ ঘণ্টার মধ্যে দাবি মানার আল্টিমেটাম দিয়ে তালা খুলে দেন তারা।
এ বিষয়ে চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম ফারুকি বলেন, মিলন যখন দেশের বাইরে ছিলেন তখনও তার সঙ্গে চাঁদপুরের নেতাদের যোগাযোগ ছিল। এই আসনটি উদ্ধার করার জন্য মিলনের কোনও বিকল্প নেই।
চাদপুর জেলা যুবদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আলাউদ্দিন বলেন, দলের যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর আমাদের আশ্বস্ত করেছেন। আমরা ১২ ঘণ্টার মধ্যে কচুয়া আসনে মিলনকে মনোনয়ন দেওয়ার কথা বলেছি। না হলে পল্টন কার্যালয় ও গুলশানের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে তালা দেওয়া হবে।
উল্লেখ্য, চাঁদপুর-১ (কচুয়া) আসনে ধানের শীষের মনোনয়ন পেয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মো. মোশাররফ হোসেন।
মিলন সমর্থকদের অভিযোগ, মো. মোশাররফ হোসেন এলাকায় পরিচিত নন। দলের তৃণমূলের সঙ্গে তার কোনো যোগাযোগ নেই। এজন্য তারা মোশাররফ হোসেনের পরিবর্তে এহছানুল হক মিলনকে মনোনয়ন দেওয়ার দাবি জানান।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» ‘ড. কামালের ওপর হামলা দুঃখজনক, ফৌজদারি অপরাধ’

» ভোটকক্ষে সাংবাদিকরা যা করতে পারবেন, যা পারবেন না

» বিএনপির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকন গুলিবিদ্ধ

» বিদ্রোহী প্রার্থীদের সরে দাড়াতে দুই দিনের আল্টিমেটাম আ.লীগের

» জগন্নাথপুরে বিএনপির সভায় পাশা- সকল ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ধানের শীষের বিজয় নিশ্চিতের আহবান

» জগন্নাথপুরে নৌকার পোষ্টার ছেঁড়ে ফেলায় যুবদল নেতা গ্রেফতার

» উন্নয়নের প্রতিক নৌকায় ভোট দিন- এম এ মান্নান

» জগন্নাথপুরে ডা: মাসুম খানের মৃত্যুতে শোকসভা

» নৌকা সমর্থনে পাটলী ইউনিয়ন যুবলীগের কর্মীসভা

» জগন্নাথপুরে সুজনের আয়োজনে জনগনের মুখোমুখি তিন প্রার্থী

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

১২ ঘন্টার আলন্টিমেটামে খুলল বিএনপি কার্যালয়ের তালা

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::
রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেওয়ার পর ১২ ঘণ্টার অাল্টিমেটাম দিয়ে তা আবার খুলে দিয়েছেন সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ও বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আ ন ম এহছানুল হক মিলনের সমর্থকেরা।
আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের পক্ষে বিএনপির এই নেতাকে মনোনয়ন না দেওয়ায় শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিক্ষোভ শুরু করেন সমর্থকরা। এক পর্যায়ে দলের কেন্দীয় কার্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা মেরে দেন তারা।
শতাধিক বিএনপি নেতাকর্মী মিলনের পক্ষে দলটির কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেন। পরে দলের সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর কাছে জানতে চাইলেও মিলনকে কেন মনোনয়ন দেওয়া হয়নি তার উত্তর দেননি তিনি।
দুপুরের পরও মিলন সমর্থকদের বিক্ষোভ চলে। এক পর্যায়ে নিরাপত্তাকর্মীরা কার্যালয়টিতে ভেতর থেকে তালা মেরে দেন। পরে মিলনের সমর্থকরাও বাইরে থেকে ফটকে তালা মারেন। বিকেলের দিকে ১২ ঘণ্টার মধ্যে দাবি মানার আল্টিমেটাম দিয়ে তালা খুলে দেন তারা।
এ বিষয়ে চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম ফারুকি বলেন, মিলন যখন দেশের বাইরে ছিলেন তখনও তার সঙ্গে চাঁদপুরের নেতাদের যোগাযোগ ছিল। এই আসনটি উদ্ধার করার জন্য মিলনের কোনও বিকল্প নেই।
চাদপুর জেলা যুবদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আলাউদ্দিন বলেন, দলের যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর আমাদের আশ্বস্ত করেছেন। আমরা ১২ ঘণ্টার মধ্যে কচুয়া আসনে মিলনকে মনোনয়ন দেওয়ার কথা বলেছি। না হলে পল্টন কার্যালয় ও গুলশানের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে তালা দেওয়া হবে।
উল্লেখ্য, চাঁদপুর-১ (কচুয়া) আসনে ধানের শীষের মনোনয়ন পেয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মো. মোশাররফ হোসেন।
মিলন সমর্থকদের অভিযোগ, মো. মোশাররফ হোসেন এলাকায় পরিচিত নন। দলের তৃণমূলের সঙ্গে তার কোনো যোগাযোগ নেই। এজন্য তারা মোশাররফ হোসেনের পরিবর্তে এহছানুল হক মিলনকে মনোনয়ন দেওয়ার দাবি জানান।

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।