রবিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৯, ০৯:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে শিক্ষক সংকট নিরসনে প্রবাসি সংগঠন নিয়োগ দিল ১২ প্যারা শিক্ষক যে ঘুষ খাবে সেই কেবল নয়, যে দেবে সেও অপরাধী: প্রধানমন্ত্রী বাস-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ৭ জগন্নাথপুরের পাটলীতে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা জগন্নাথপুরে গাছ কাটার ঘটনায় যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে জগন্নাথপুরে শিকল দিয়ে তিনদিন বেঁধে রাখার পর রিকশাচালকের মৃত্যু:হত্যা মামলা দায়ের ভারত বিনা যুদ্ধেই হারাচ্ছে জঙ্গি বিমান, নিহত হচ্ছেন পাইলট ২০০৫ সালের সিরিজ বোমা হামলার বিচার অবশ্যই হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী সাপের ছোবলে শিশুর মৃত‌্যু বণাঢ্য আয়োজনে জনপ্রিয় দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের বর্ষপূর্তি উদযাপন

কিছু কুলাঙ্গার বিএনপি জামায়াতের সাথে হাত মিলিয়ে উন্নয়নের ধারাকে ব্যাহত করছে- এম এ মান্নান

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ১১ জানুয়ারী, ২০১৭
  • ৪৩ Time View

কাজী মমতাজ, সুহেল আহমদ ও ইয়াকুব শাহরিয়ার::
অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। আমরা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছি। কিন্তু কিছু কুলাঙ্গার বিএনপি জামায়াতের সাথে হাত মিলিয়ে সেই উন্নয়নের ধারাকে ব্যাহত করতে চায়।’
উপজেলা ছাত্রলীগের আয়োজনে মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা সদরের শান্তিগঞ্জ বাজারে আওয়ামী লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনে ছাত্রলীগের ৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ও বর্তমান সরকারের ৩ বছর পূর্তি উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, সুনামগঞ্জের দু-একজন নেতা বলে, ‘এম.এ মান্নান সব উন্নয়ন সুনামগঞ্জ থেকে দক্ষিণ সুনামগঞ্জে নিয়ে যাচ্ছেন। তিনি বলেন, আমি ইট-বালু, পাথর ও বিল খেতে আসিনি। আমি কন্ট্রাক্টরি
করতে রাজনীতিতে আসিনি। আমি সুনামগঞ্জ পৌর কলেজে ৬ কোটি টাকা, সুনামগঞ্জ বিডি হলের জন্য ৩২ কোটি টাকা, পলাশ কলেজের জন্য ৫ কোটি টাকা দিয়ে সেই সকল প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন করছি। আমার দক্ষিণ সুনামগঞ্জের কোন ছেলে কি সেই সকল প্রতিষ্ঠান ব্যবহার করবে?
এমএ মান্নান বলেন, সুনামগঞ্জে যা আছে, দক্ষিণ সুনামগঞ্জেও তাই হবে। আমার দক্ষিণ সুনামগঞ্জের মানুষ সুনামগঞ্জে যাবে না। জেল আওয়ামী লীগের এক নেতাকে ইঙ্গিত করে বলেন, ‘প্রতিনিয়ত আমার বিরুদ্ধে সুনামগঞ্জে বসে কথা বলছে, কুৎসা রটাচ্ছে, আমি আর সহ্য করতে পারছি না। এতদিন আমি ধৈর্য ধরে বসেছিলাম। সে এক উপ-নির্বাচনে পাশ করে এমপি হয়েছিল, এখন সে মনে করেছে বিরাট কিছু হয়ে গেছে। ঠিকাদারী কাজে বালু পাথর দেওয়ার জন্য সচিবালয়ে তদবিরের জন্য ঘুরাঘুরি করে। ’
তিনি আরও বলেন, ‘সরকারের টাকা এনে নিজের নামে কলেজ প্রতিষ্ঠা করেছে, সরকারি কাজে ইট-বালু-পাথরের কন্টাক্টারি করে কালো টাকা বানিয়েছে। আমি এম এ মান্নান বিগত ৭ বছরে কত উন্নয়ন করেছি, সেটা আপনারা দেখেছেন। কই আমিতো কোন প্রতিষ্ঠানে আমার নাম ব্যবহার করিনি। ইচ্ছা করলেই তো পারতাম।’
তিনি বলেন, ‘আমি আপনাদের কথা দিয়েছিলাম, আমি নির্বাচিত হলে, আপনাদের উন্নয়নে কাজ করবো। আমার কোন আত্মীয় নাই, আপনারা সবাই আমার আত্মীয়। আমি আপনাদের পাশে আছি, মরার আগের দিন পর্যন্ত পাশে থাকবো।’
তিনি বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে যারা সুনামগঞ্জে বসে, কুৎসা রটাচ্ছে, তারা কি সিলেট বা ঢাকা গিয়ে এসব কথা বলতে পারবে? কখনোই পারবে না। তাদের সীমা এই সুনামগঞ্জ শহরের ভেতরেই। তাদের অপপ্রচারের দাঁত ভাঙা জবাব দেয়া হবে।’
প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বিগত জেলা পরিষদ নির্বাচনে, প্রধানমন্ত্রীর কথা অমান্য করে, বিএনপি-জামায়াতের সাথে হাত মিলিয়ে কালো টাকার বিনিময়ে একজন নির্বাচিত হয়েছে। সারা জেলায় মাত্র ১২শ ভোট ছিলো। তারা যদি জনপ্রিয় হয়ে থাকে, তাহলে আসুক নৌকার সাথে গণভোটে, দেখবেন ২০টি ভোট পায়-কি না। ’
তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ সরকার দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে শিক্ষা ব্যবস্থাকে উন্নতির দিকে নিয়ে যেতে প্রত্যেকটি গ্রামে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তৈরি করছে। আমরা বছরের শুরুতেই প্রত্যেকটি স্কুল, মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যে বই তুলে দিচ্ছি। ঝড়ে পড়া শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ে ফিরিয়ে আনতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করছি। আমরা গরীব অসহায় জনগণের সুবিধার্র্থে ১০ টাকা কেজিতে চাল, ১০ টাকায় ব্যাংকে একাউন্ট খোলার সুযোগ করে দিয়েছি।’
তিনি বলেন- ‘বর্তমানে বাংলাদেশে অভাব বলতে কিছুই নেই। মানুষ এখন আর এদেশে না খেয়ে ঘুমায় না। হাওরাঞ্চলের মানুষ নিয়ে আমাদের সরকারের আলাদা চিন্তা আছে। বাংলাদেশে এখন উন্নয়নের জোয়ার বইছে।’
উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি হাজী তহুর আলীর সভাপতিত্বে ও উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রভাষক নুর হোসেন ও সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম শিপনের যৌথ পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ-মৌলভীবাজার সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. শামছুন নাহার বেগম শাহানা, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম. এনামুল কবির ইমন, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি সিরাজুর রহমান সিরাজ, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. নান্টু রায়, হায়দার চৌধুরী লিটন, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোবারক হোসেন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান, সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফজলে রাব্বি স্বরণ।
এছাড়াও সভায় বক্তব্য রাখেন, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মাও. আব্দুল কাইয়ূম, আওয়ামী লীগ নেতা তেরাব আলী, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য জহিরুল ইসলাম, সমুজ আলী, শিমুলবাঁক ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান জিতু, জেলা পরিষদের মহিলা সদস্যা ফারহানা ইয়াছমিন সীমা, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি অ্যাড. বোরহান উদ্দিন দোলন, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান সুজন, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম-আহ্বায়ক মাসুক মিয়া, অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এমপির ব্যক্তিগত সহকারী হাসনাত হোসেন, জগন্নাথপুর ছাত্রলীগ নেতা শাহেদ, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা, দিলন আহমদ, ইমরান হোসেন, রয়েল আহমদ, শাহান আহমদ, আল-মাহমুদ সুহেল, ছদরুল ইসলাম, আল-আমিন আহমদ, জাহিদুল ইসলাম, জুনায়েদ আহমদ জাবেদ সহ প্রমুখ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24