সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:৪৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম:

জগন্নাথপুরে অফিসপাড়ায় ঈদের ছুটির আমেজ শুরু

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই, ২০১৫
  • ৩২ Time View

ঈদুল ফিতর সন্নিকটে
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডেস্ক:: ঈদের আনন্দ স্বজনদের সঙ্গে উপভোগ করতে গন্তব্য ছাড়ছেন ঘরমুখো মানুষ। আজ বৃহস্পতিবার শেষ কর্মদিবস হলেও জগন্নাথপুরের অফিসপাড়ায় গত তিন দিন ধরে ছুটির আমেজ বিরাজ করছে। অধিকাংশ সরকারী কর্মকর্তা কর্মচারী বাড়িতে চলে গেছেন। কর্মকর্তাদের মধ্যে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বাদে সবাই এখন ঈদের ছুটিতে আছেন। কর্মকর্তাদের পাশাপাশি কর্মচারীরাও যার যার গন্তব্যে পৌঁছতে জগন্নাথপুর ছেড়েছেন। রাজধানীর বাস, লঞ্চ ও ট্রেন স্টেশনগুলোতে গত কয়েকদিন ধরে সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ছিল ঘরমুখো যাত্রীদের ভিড়। পবিত্র শবে কদর উপলক্ষে বুধবারের সরকারি বন্ধের সুযোগকে কাজে লাগিয়ে বৃহস্পতিবার ছুটি নিয়ে আগেভাগে অনেকেই বাড়ি ফিরছেন অনেকেই। ঈদ উপলক্ষে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে প্রতিদিন ৬৬টি যাত্রীবাহী ট্রেন পূর্ব ও পশ্চিমাঞ্চলে ছেড়ে যাচ্ছে। প্রতিদিন প্রায় পৌনে ২ লাখ যাত্রী বিভিন্ন গন্তব্যে ভ্রমণ করছেন জানিয়েছেন রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। এবার ঈদ উপলক্ষে অন্য যে কোনো সময়ের চেয়েও সিডিউল অনুযায়ী ট্রেন চলানো হচ্ছে। এছাড়াও এবার বাসে যাত্রী হয়রানী অনেকটা সহনীয় রয়েছে। রাজধানীসহ দেশের মফস্বল শহরগুলোতে এখন ঈদের আমেজ বাড়ছে। আত্বীয় স্বজনদের সাথে ঈদ করতে আসা স্বজনদের উপস্থিতিতে মফস্বল শহরগুলোতে বাড়তি উচ্ছ্বাস দেখা দিয়েছে। জগন্নাথপুরের প্রবাসী অধ্যুষিত উপজেলার প্রবাসীরা দেশে আসায় ঈদকে সামনে রেখে আত্বীয় স্বজনরা রয়েছেন মহানন্দে। যারা আসতে পারেননি তারাও ঈদের আনন্দে শরিক হতে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। জগন্নাথপুর উপজেলা প্রশাসনে সনাতনধর্মালম্বী কর্মচারীরা ছাড়া প্রায় সব অফিসের কর্মকর্তার পাশাপাশি কর্মচারীরা ছুটিতে চলে গেছেন। কর্মকর্তার মধ্যে ইতিমধ্যে গন্তব্য ছেড়েছেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তাসহ কর্মচারীরা এখন জগন্নাথপুরে নেই। শিক্ষা কর্মকর্তা মঙ্গলবার সর্বশেষ অফিস করে বাড়ি চলে গেছেন। ওই অফিসের কর্মচারীরাও চলে গেছেন। উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি,উপজেলা প্রকৌশলী,উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী গন্তব্য ছেড়েছেন বেশ আগেই। এছাড়াও মৎস্য কর্মকর্তা,সমাজসেবা,সমবায়,পরিসংখ্যান, হিসাবরক্ষন কর্মকর্তাসহসবকটির অফিসে এখন ছুঠির আমেজ। আজ বৃহস্পতিবার শেষ কর্মদিবস হলেও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তর বাদে সকল দপ্তরের তালা ঝুলবে। জগন্নাথপুর থানায় কর্মকর্তারা সমন্ধয়ের মাধ্যমে ভাগাভাগি করে নিয়েছেন। অফিসার ইনচার্জ আসাদুজ্জামানসহ কয়েকজন কর্মকর্তা থাকবেন। ইতিমধ্যে থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তদন্ত খান মোহাম্মদ মাইনুল জাকির,এস.আই মুজিবুর রহমান, মফিদুল আলম,রফিকুল ইসলাম ঈদের গন্তব্যের পথে প্রস্তুতি নিয়েছেন। দায়িত্বে থাকবেন ওসি আসাদুজ্জামান সহএস.আই মঈন আহমদ, রতন দেবনাথ, অর্নিবান বিশ্বাস প্রমুখ। ঈদের ছুটির এক সপ্তাহ আগ থেকে যেভাবে ঈদের আমেজে অফিসপাড়া ফাঁকা হয়েছে ঠিকসেইভাবে অফিস খোলার এক সপ্তাহ পর থেকে আবার কর্মচাঞ্ছল্য দেখা দিবে। সবার ঈদ আনন্দ ও নিরাপদ গন্তব্য কামনায় স্বজন ও শুভান্যুধায়ীরা পথ চেয়ে আছেন।
জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির বলেন,আমি জগন্নাথপুরে ঈদ করব। তাই এবার বাড়ি যাইনি। নতুন ঈদগাহ তৈরী হচ্ছে আশা করছি সবাইকে নিয়ে নামাজ আদায় করে ঈদ কাটাব।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24