সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:০৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম:

জগন্নাথপুরে বিদ্যুতের যন্ত্রনায় রাতভর উদ্বেগ উৎকন্ঠায় কাটঁল উপজেলাবাসীর

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ৩০ জুলাই, ২০১৫
  • ৪৬ Time View

আলী আহমদ: জগন্নাথপুর উপজেলা জুড়ে বিদ্যুতের অস্বাভাবিক লোড-শেডিংয়ে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয়েছে উপজেলাবাসীর। বুধবার ও বৃহস্পতিবার এ উপজেলা দিবারাত্রি বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। একদিকে প্রচন্ড গরম অপর দিকে বিদ্যুৎ না থাকার ফলে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয় গ্রাহকদের। দায়িত্ব পালনে চরম অবহেলার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় দায়িত্বরত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে।

্উপজেলাবাসী জানান, বুধবার সকাল ১১টার দিকে হঠাৎ করে এ উপজেলায় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। স্থানীয় বিদ্যুৎ অফিস থেকে গ্রাহকদের জানানো হয় বিকেল ৫টার দিকে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা হবে। ৫টা গড়িয়ে রাত সাড়ে দশটার দিকে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়। ১০ মিনিটের মধ্যে আবারও বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে পড়ে। বিদ্যুতের এমন ভেলকিবাজিতে গ্রাহকের মধ্যে চরম হতাশা নেমে আসে। সময় বাড়ার সাথে সাথে বিদ্যুতের দেখা না পেয়ে উপজেলাবাসীর মধ্যে উৎকন্ঠা আর মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। বুধবার গভীর রাতে জগন্নাথপুরের একমাত্র অনলাইন পত্রিকা ‘জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম’ কে মুঠোফোনে এক গৃহিনী ক্ষুব্দ কন্ঠে বলেন, ‘ভাই বিদ্যুৎ কী আর আসবে না’। প্রচন্ড গরম পড়েছে এর মধ্যে বিদ্যুৎ নাই। চরম কষ্টে আছি। বাসায় পানি নাই। ছোট ছোট সন্তানরা অসুস্থ হয়ে পড়ছে। আমাদের এই বিদ্যুতের সমস্যা সমাধানের কী কেউ নাই’’। আপনারা বিদ্যুতের ব্যাপারে একটু লেখালেখি করেন, অনুরোধ রহিল। ওই গৃহিনীর মত অসংখ্যা গ্রাহকরা বিদ্যুতের খোজখবর জানতে ফোন করে তাদের ক্ষোভ আর হতাশা ব্যক্ত করেন। জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম এর পক্ষ থেকে স্থানীয় বিদ্যুত অফিসে অনেক চেষ্টা করে জানা গেল, বিদ্যুতের ৩৩ হাজার কেভি লাইনে ক্রটি থাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ রয়েছে। কাজ চলছে রাতেই বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে। অবশেষে রাত তিন টার দিকে বিদ্যুৎ সরবরাহ দেয়া হয়। পরদিন বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে আবারও বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ হয়ে যায়। এর কয়েক ঘন্টা পর বিদ্যুতের আসা যাওয়ার পালা শুরু হয়। ফের বিকেল বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয় । ফলে গ্রাহকদের মধ্যে কিছুটা স্বস্তি ফিরে এলেও উদ্বেগ বিরাজ করছে ফের আবার কখন বিদ্যুৎ চলে যায়।
পৌরশহরের ইকড়ছই এলাকার বাসিন্দা যুক্তরাজ্য প্রবাসি মতিউর রহমান জানান, দেশের পরিস্থিতি খুবই ভাল জেনে ৩/৪ দিন পূর্বে স্ত্রী সন্তান নিয়ে দেশে ফিরেছি। আসার পর থেকেই বিদ্যুতের অস্বাভাবিক লোডশেডিংয়ে পড়েছি। গত দু’দিন যাবত বিদ্যুৎ দেখা যাচ্ছে না। আমার ছোট্র সন্তানটি অসুস্থ হয়ে পড়েছে। এ দূর্ভোগ হবে শেষে হবে জানি না।
আরেক যুক্তরাজ্য প্রবাসি উপজেলা পরিষদের বাসিন্দা ওমর হাসান ভূইয়া জানান, এ মৌমুসে জগন্নাথপুরে অসংখ্যা প্রবাসি পরিবার দেশে ফিরেছেন। গরমের সাথে সাথে বিদ্যুতের যন্ত্রনায় অতিষ্ট আমরা । এ রকম বিদ্যুতের পরিস্থিতি থাকলে দেশে ফেরা নিয়ে প্রবাসিদের মধ্যে অনিহা দেখা দিবে।
জগন্নাথপুর উপেজলা ছাত্রলীগের সভাপতি মুজিবুর রহমান জানান, বিদ্যুৎ বিভ্রাটে অতিষ্ট আমরা। স্থানীয় বিদ্যুতের অফিসাওে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দায়িত্বপালনে অবহেলা ও দায়সারাভাব রয়েছে। তিনি অধিকাংশ সময় সিলেটে বসবাস করেন। । বিদ্যুতের সমস্যা দেখা দিয়ে ফোন করেও তাকে পাওয়া যায় না। জগন্নাথপুরের বিদ্যুৎ পরিস্থিতি দ্রুত সমাধানের আহবান জানান তিনি।
এ প্রসঙ্গে জগন্নাথপুর উপজেলা আবাসিক প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) জিন্নাত আলী জানান, জগন্নাথপুর-সিলেটের ৩৩ হাজার কেভি বিদ্যুতের লাইনে ক্রটি দেখা দেয়ায় সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। সমস্যা কেঁটে গেছে। তিনি বলেন, দায়িত্ব পালনে আমার কোন অবহেলা নেই ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24