বুধবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২০, ০৩:৪০ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
হলিমপুর অনন্ত জিউর আখড়ার গুরুশ্রীল প্রভূপাদ জগদানন্দন দাস বৈষ্ণব মহারাজ পরলোকগমন দক্ষিণ সুনামগঞ্জে খিরা খাওয়া নিয়ে বিরোধে নিহত-১ প্রশ্নফাঁস ঠেকাতে সরকার সবধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে : শিক্ষামন্ত্রী চীনে করোনাভাইরাসে মৃত্যু ১৩২ জনের, আক্রান্ত প্রায় ৬ হাজার জগন্নাথপুরে সোনা মিয়ার মৃত্যু শোক সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে জননী ক্রিকেট ক্লাবের বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল আজ জগন্নাথপুর বাজারের তরুণ ব্যবসায়ীর অকাল মৃত্যু জগন্নাথপুরের সামাজিক সংগঠন স্টুডেন্ট’স কেয়ার’র নতুন কমিটি গঠন পাইলগাঁও জমিদার পরিবারের উত্তরসূরিদের সাথে সিলেট সিমি মেয়েরের মতবিনিময় সুনামগঞ্জসহ আরো চার জেলায় শিক্ষক নিয়োগ স্থগিত

বেরাতে এসে নদীতে ডুবে প্রাণ গেলো এসএসসি শিক্ষার্থীর

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ২২ মার্চ, ২০১৯
  • ২১৩ Time View

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::
বন্ধুদের সাথে ঘুরতে এসে মনু নদীতে ডুবে প্রাণ গেলো আব্দুছ ছালাম (১৭) নামে এক শিক্ষার্থীর।
শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার হাজীপুরের কটারকোন ব্রিজ সংলগ্ন মনু নদীতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ওই শিক্ষার্থী নরসিংদী জেলার শিবপুর থানার আছকির তলা গ্রামের রফিকুল ইসলামের পুত্র ও এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রত্যাশী।

স্থানীয় ও ওই শিক্ষার্থীর সাথে ঘুরতে আসা সহপাঠি এবং তার প্রাইভেট কোচিংয়ের শিক্ষক সুলেমান ভুইঁয়া জানান, আব্দুছ ছালাম চলতি বছরে শিবপুর উপজেলার চৈতন্যাপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে সদ্য সমাপ্ত এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে মাধবকুন্ড জলপ্রপাতসহ মৌলভীবাজারের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান পরিদর্শনের জন্য একটি প্রাইভেট গাড়িযোগে ছালাম, তার বন্ধু নওশাদ, কাওসার এবং তাদের প্রাইভেট কোচিং শিক্ষকসহ ১৪ জন সহপাঠি রওয়ানা দেয়। শুক্রবার সকালে মাধবকুন্ড জলপ্রপাত দেখে শমসেরনগরের মাধবপুর লেকের উদ্দেশে যাওয়ার পথে কুলাউড়া-শমসেরনগর রোডের কটারকোনাস্থ মনু ব্রিজের পৌছালে তারা নদীতে গোসল করার জন্য গাড়ি থেকে নেমে যায়। পরে সব বন্ধু ও তাদের সাথে থাকা প্রাইভেট কোচিংয়ের শিক্ষক সুলেমান ভুইঁয়া মিলে মনু নদীতে গোসল করতে নামেন। এক পর্যায়ে সবার অলক্ষ্যে ছালাম পানিতে ডুব দেয়। পরে তাকে দেখতে না পেয়ে সহপাঠিরা খুঁজাখোজি ও চিৎকার করতে থাকেন। তাদের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এসে তাকে খুঁজতে থাকেন এবং না পেয়ে কুলাউড়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সকে খবর দিলে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ছালামকে নদী থেকে উদ্ধার করে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। হাসাপতালে নিয়ে আসার পর জরুরী বিভাগের চিকিৎসক আবু বকর নাসের মো. রাশু তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কুলাউড়া থানার ওসি (তদন্ত) সঞ্জয় চক্রবর্ত্তী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পানিতে ডুবে শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় কুলাউড়া থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং তাঁর পরিবারের সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্ত করা হবে কি না সে বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কতৃপক্ষের সাথে আলাপ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24