বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ০৮:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:

ভবিষ্যতে ফেতনা আসবে বৃষ্টির মতো

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৭
  • ৪২ Time View

জাকারিয়া হারুন : উম্মতের চিন্তায় ব্যাকুল প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলে দিয়েছেন ভবিষ্যতে যেসব সমস্যার সম্মুখীন হবে। অত্যন্ত সর্তকতার সঙ্গে সেগুলো বলে গেছেন। হাদিসের এমন কোনো কিতাব নেই যে কিতাবে ‘আবওয়াবুল ফিতান’ নামে স্বতন্ত্র অধ্যায় নেই। এ অধ্যায়ে বর্ণিত আছে প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের ভবিষ্যত বাণী। যেমন এক হাদিস শরিফে প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, ‘ তোমাদের ঘরগুলোতে ফেতনা পতিত হবে বৃষ্টির ফোটার মতো।’

পবিত্র এ হাদিস শরিফে প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ফেতনাকে বৃষ্টির ফোটার সঙ্গে তুলনা করে এ কথা বুঝিয়েছেন, বৃষ্টির পানি যেমন মুষলধারে পড়ে ঠিক তেমনি সেই ফেতনা ব্যাপকহারে আসবে। তাছাড়া বৃষ্টির পানি যেমন একনাগাড়ে এক ফোটার পর আরেক ফোটা পড়তে থাকে তেমনি এ ফেতনাগুলো অনবরত আসতে থাকবে। ভয়াবহ এক ফেতনা শেষ হতে না হতেই অভিনব আরেক ফেতনা এসে উপস্থিত হবে। এসব ফেতনা মানুষের ঘরে ঘরে আসবে।

অপর এক হাদিস শরিফে প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, আবু মূসা (রা.)-কে বলতে শুনেছি, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, নিশ্চই তোমাদের সামনে অন্ধকার রাতের টুকরার ন্যায় একের পর এক বিপদ আসতে থাকবে। সেই বিপদের সময় সকালবেলা যে লোকটি ঈমানদার ছিলো, বিকেলবেলা সে কাফির হয়ে যাবে। আর সন্ধ্যাবেলা যে লোকটি ঈমানদার ছিলো, সকালে সে কাফির হয়ে যাবে। সে সময়ের বসে থাকা ব্যক্তি দাঁড়িয়ে থাকা ব্যক্তির চাইতে উত্তম হবে এবং দাঁড়িয়ে থাকা ব্যক্তি হেঁটে চলা ব্যক্তির চাইতে উত্তম এবং হেঁটে চলা ব্যক্তি দৌড়ে চলা ব্যক্তির চাইতে উত্তম হবে। লোকজন বললো, আপনি আমাদের কি করতে আদেশ দিচ্ছেন? তিনি বললেন, তোমরা তোমাদের ঘরের পর্দার ন্যায় হয়ে যাও (বের হয়ো না)। (সুনানে আবু দাউদ : ৪২৬২)
নিকষ অন্ধকার রাতে মানুষ স্পষ্ট কিছু দেখতে পায় না। পথ পাবে কীভাবে? কোথায় যাবে? কি করবে? তদ্রুপ সেই ফেতনাগুলোতেও মানুষ বুঝে উঠতে পারবে না। কীভাবে সে মুক্তি পাবে এ ফেতনা থেকে? কোথায় গেলে আশ্রয় পাওয়া যাবে? মোটকথা সে ফেতনা গোটা সমাজ ও পরিবেশকে বেষ্টন করে ফেলবে। বাহ্যিক চোখে তোমরা তা থেকে বাঁচার কোন পথ পাবে না। প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, তোমরা সেসব ফেতনা থেকে মহান আল্লাহর কাছে আশ্রয় প্রার্থনা করো

‘হে আল্লাহ! আমি তোমার কাছে ফেতনাসমূহ থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করছি। দৃশ্যমান ফেতনা থেকেও, অদৃশ্যমান ফেতনা থেকেও। ’ এ দুয়াটি প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের প্রতিদিনের পঠিতব্য দুয়ার মধ্যে অন্তর্ভুক্ত ছিল। সূত্র : আল্লামা তাকী উসমানীর বক্তৃতা অবলম্বনে

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24