সোমবার, ২৬ অগাস্ট ২০১৯, ০৪:৪৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে বিদ্যালয় সমূহে পরিচ্ছিন্ন রাখতে ডাষ্টবিন বিতরণ শুরু জগন্নাথপুরে কমিউনিটি পুলিশিং সভায় পুলিশ সুপার- সুনামগঞ্জের শান্তি শৃঙ্খলা নিশ্চিতে কাজ করতে চাই বিশ্বনাথে পাইপগানসহ গ্রেফতার-১ মাহী বি চৌধুরীকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ ভিডিও কেলেঙ্কারি : জামালপুরে নতুন ডিসি নিয়োগের প্রজ্ঞাপন জগন্নাথপুরে সৈয়দপুর গ্রামবাসীর উদ্যোগে সভা অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের নির্বাচন সম্পন্ন:সভাপতি পঙ্কজ দে,সেক্রেটারী মহিম জগন্নাথপুরে নৌকাবাইচ:এবার সোনার নৌকা,সোনার বৈঠা জিতল কুতুব উদ্দিন তরী জগন্নাথপুরে সড়ক সংস্কার-অবৈধ যান অপসারণের দাবীতে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি মালিক,শ্রমিক নেতারদের জগন্নাথপুরে এনজিও সংস্থা আশা’র উদ্যোগে তিনদিন ব্যাপি ফিজিওথেরাপী চিকিৎসা ক্যাম্প শুরু

মধ্যরাতে তালা ভেঙ্গে বাসায় লুটপাট করেন বিশ্বনাথ থানার এসআই বিনয়’

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭
  • ৩৯ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক :: সিলেটের বিশ্বনাথে পুলিশের এক এসআইয়ের বিরুদ্ধে মধ্যরাতে তালা ভেঙ্গে বাসায় ঢুকে লুটপাট ও নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন উপজেলা জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. লেবু মিয়া।

মঙ্গলবার সিলেট জেলা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন। লেবু মিয়া বিশ্বনাথের দৌলতপুর ইউনিয়নের জগদীশপুর গ্রামের মখলিছুর রহমানের ছেলে।

তিনি অভিযোগ করেন, রিমান্ডের আসামী না হলেও তাকে থানায় নিয়ে বেআইনীভাবে হাত-পায়ে ইলেকট্রিক শক দেয়াসহ রাতভর নির্যাতন চালিয়েছেন এসআই বিনয় ভূষণ চক্রবর্তী। এমন কী বাসার মহিলাদের ওপর হাত তুলতেও দ্বিধাবোধ করেননি ওই পুলিশ অফিসার।

জনগণের জান ও মালের নিরাপত্তা দেয়া পুলিশের দায়িত্ব হলেও সেই পুলিশ কর্তৃক নির্যাতিত হয়ে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি জানিয়ে লেবু মিয়া বলেন, বিশ্বনাথ থানার এসআই বিনয় ভূষণ চক্রবর্তী তাকে থানায় নিয়ে তার উপর অমানুষিক নির্যাতন চালান। তিনি নির্যাতনের বিচার চেয়ে উপ মহা পুলিশ পরির্দশক, অতিরিক্ত উপ মহা পুলিশ পরির্দশক ও জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে লেবু মিয়া জানান, উপজেলার জগদীশপুর গ্রামের আশক আলীর ছেলে মেহেদী হাসান আফরোজের সাথে তার যুক্তরাজ্য প্রবাসী নানি ইন্দ্রবান বিবির জায়গা সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে মামলা-মোকদ্দমা রয়েছে। তার নানি দীর্ঘদিন থেকে যুক্তরাজ্যে বসবাস করছেন। এ কারণে তার মালিকানাধীন বিশ্বনাথ টিএন্ডটি রোডে অবস্থিত ইন্দ্রবান মঞ্জিল নামের বাসাটি লেবু মিয়া দেখাশোনা করেন। কয়েক মাস পূর্বে আফরোজ তাকে এবং তার দুই ভাই ও প্রবাসী নানিকে আসামি করে আদালতে মামলা দায়ের করে। মামলা চলাকালীন অবস্থায় গত ১২ নভেম্বর রাত ২টার দিকে বিশ্বনাথ থানার এসআই বিনয়ের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ইন্দ্রবান মঞ্জিলে যায়। বাড়ির মূল গেইট তালাবদ্ধ থাকায় একজন পুলিশ সদস্য লাফ দিয়ে দেয়ালের ভেতরে প্রবেশ করেন। পুলিশের চেঁচামেচি ও গেইটের শব্দ পেয়ে বাসার সকলের ঘুম ভেঙে যায়। এতে নারী ও শিশুরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। প্রথমে ডাকাত মনে করলেও পরে জানালার ফাঁক দিয়ে দেখা যায় পুলিশ। ভেতরে প্রবেশ করে ওই পুলিশ সদস্য গেইটের তালা ভেঙে দিলে মামলার বাদি আফরোজসহ পুলিশ সদস্যরা বাসার ভেতরে প্রবেশ করে বসবাসরত ভাড়াটেদের বিভিন্ন কক্ষের দরজায় লাথি দিতে থাকেন। একপর্যায়ে সকল ভাড়াটেরা দরজা খুলে দিলে এসআই বিনয় পুলিশ সদস্যদের নিয়ে ঘরের ভেতরে প্রবেশ করে লেবু মিয়াকে খুঁজতে থাকেন। ভাড়াটেরা লেবু এখানে নেই জানালে এসআই বিনয় ক্ষিপ্ত হয়ে অকথ্য ভাষায় তাদের গালিগালাজ করেন।

এ সময় মহিলারা আপত্তি জানালে এসআই বিনয় দু’জন মহিলার গায়ে হাতও তুলেন বলে লেবু মিয়া অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, গভীর রাতে গেইটের তালা ভেঙ্গে বাসায় প্রবেশ করে আসামি ধরা আইন সঙ্গত নয়। একান্ত প্রয়োজন হলে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিকে সঙ্গে নিয়ে আসতে হয় দাবি করে ওয়ারেন্ট থাকলে দিনের বেলায় এসে গ্রেপ্তার করার কথা বলেন লেবু মিয়া। এরপরও পুলিশ বাসায় প্রবেশ করে তাকে হ্যান্ডকাপ পরায়। পরে বিনয়ের নেতৃত্বে পুলিশ হাতুড়ি এবং দা দিয়ে ঘরে থাকা দুটি স্টিলের ও একটি কাঠের আলমারি ভেঙে বাড়ির দলিলপত্রসহ একটি ফাইল, লেবু মিয়া এবং তার নানির নামীয় কয়েকটি ব্যাংকের চেকবই, ক্রেডিট কার্ড, নগদ ১ লাখ ৬২ হাজার ৭৫০ টাকা, তিন ভরি ছয় আনা পরিমাণের একটি সোনার হার ও দুটি হাতের বালা লুট করে নিয়ে যায়।

লেবু মিয়া দাবি করেন, এসআই বিনয় বাদি আফরোজের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে থানায় নিয়ে তাকে রাতভর নির্যাতন করেছেন। রিমান্ডের আসামী না হওয়া সত্তে¡ও তার দুই হাত ও পায়ে কয়েকবার ইলেকট্রিক শক দেয়া হয়েছে। পরের দিন আদালতে প্রেরণ করা হলে আদালত তার জামিন মঞ্জুর করেন। তিনি আরো অভিযোগ করেন, এসআই বিনয় বিশ্বনাথ থানায় যোগদানের পর থেকে এলাকার অনেক অসহায় মানুষকে হয়রানি করেছেন। গ্রেপ্তারের নামে তার উপর যে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালানো হয়েছে উল্লেখ করে লেবু মিয়া সংবাদ সম্মেলনে এসআই বিনয়ের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য এবং তার লুট হওয়া মালামাল উদ্ধারে সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24