শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:৪৩ পূর্বাহ্ন

হাওরপাড়ের মানুষের রাত কাটছে নির্ঘুম, জগন্নাথপুরে জলদস্যুদের উৎপাতবৃদ্ধি

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৮ আগস্ট, ২০১৪
  • ৮৪ Time View

আলী আহমদ#

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর ও দিরাই উপজেলার হাওর ব্যষ্টিত গ্রামগুলোতে জলদস্যুদের উৎপাত বৃদ্ধি পেয়েছে। গত কয়েকদিন ধরে জলদস্যুরা নলুয়ার হাওরপাড়ের কয়েকটি গ্রামে হানা দিলেও গ্রামবাসীর সমন্ধিত ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্ঠার কারণে তা ভেস্তে গেছে।

হাওর ব্যষ্টিত নলুয়ার হাওরপাড়ের গ্রামের বাসিন্দারা জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে জলদস্যুরা নৌকাযোগে এসে বেড়ি গ্রামের জাহাঙ্গীর মিয়ার বাড়িতে উঠার চেষ্ঠা করে। বিষয়টি টের পেয়ে গ্রামবাসী মসজিদের মাইকে মাইকিং করে হানা দিলে ডাকাতদের অভিযান ভেস্তে যায়। গত এক সপ্তাহ ধরে জলদস্যুদের উৎপাতে হাওর ব্যষ্টিত গ্রমাবাসীরা রাত জেগে নিঘুম রাত কাটাচ্ছেন। হাওরে নৌকাযোগে ডাকাতদলের অবস্থানের সংবাদ পেয়ে গ্রামবাসীরা বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে দিরাই ও জগন্নাথপুর উপজেলার হাওরব্যষ্টিত ১০ গ্রামের মানুষ মসজিদের মাইকে মাইকিং করে রাত জেগে পাহাড়া দেয়ার ঘোষনা দেন। জলদস্যু ডাকাতরা হাওরব্যষ্টিত কয়েকটি বাড়িতে হানা দেয় বলেও অভিযোগ রয়েছে। গ্রামবাসীর ঐক্যবদ্ধ পাহারার কারণে ডাকাতদল পিছু হটে।

হাওরপাড়ের গ্রামবাসীর জানান, জলদস্যুরা ইঞ্জিন চালিত নৌকা যোগে বাড়িতে উঠে পরিবারের রোকজনকে অস্ত্রের মূখে জিন্মি করে মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। হাওর অঞ্চলে এখন এক বাড়ি থেকে আরেক বাড়িতে যাতায়াত করতে হলে নৌকা ছাড়া যাতায়াত করা যায় না। তাই নলুয়ার হাওরব্যষ্টিত গ্রামবাসী আতংকে রাত কাটাচ্ছেন। জগন্নাথপুর ও দিরাই উপজেলার নলুয়ার হাওর ব্যষ্টিত গ্রামগুলো হলো দাসনোয়াগাঁও, ভুরাখালি, বাউধরন, বেড়ি,গাধিয়ালা, বেতাউকা দিরাই উপজেলার হালেয়া, টংগর, তারাপাশা, রায়বাঙ্গালী। বেড়িগ্রামের বাসিন্দা শিক্ষক ফরুখ আহমদ জানান, বর্ষা মৌসুমের কারণে হাওরব্যষ্টিত গ্রামগুলোর চারপাশ পানিতে ভরপুর। এসুযোগে জলদস্যুরা প্রতিনিয়ত নৌকাযোগে এসে গরম্ন ছাগলসহ মূল্যবান মালামাল চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে। সুযোগ পেলে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ডাকাতি করছে। তাই আমরা এখন আতংকে রাত কাটাচ্ছি। তিনি জানান, নলুয়ার হাওর ব্যষ্টিত ১০ গ্রামের মসজিদে মাইকিং করে গতরাত মানুষকে পাহারা দিতে আহবান জানানো হয়। ওই রাতে একদল ডাকাত হাওরে অবস্থান করছিল। বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে।

ভূরাখালি গ্রামের বাসিন্দা সিদ্দিকুর রহমান জানান, হাওর ব্যষ্টিত গ্রামগুলোর বাসিন্দারা এখন কষ্টে আছেন। একদিকে হাওরের উতাল পাতাল ঢেউয়ের সাথে যুদ্ধ করে বাড়িঘর রক্ষার সংগ্রাম। অপরদিকে জলদস্যুদের হাত থেকে মালামাল রক্ষা দুরহ হয়ে পড়েছে।

দিরাই উপজেলার টংগর গ্রামের কমল মিয়া জানান, প্রায় প্রতিরাতেই নৌকা যোগে ডাকাতদল হানা দিচ্ছে।

জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আসাদুজ্জামান জানান, ডাকাতি রোধ করতে আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24