1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
  3. ali.jagannathpur@gmail.com : Ali Ahmed : Ali Ahmed
  4. amit.prothomalo@gmail.com : Amit Deb : Amit Deb
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১২:৫৮ পূর্বাহ্ন

জগন্নাথপুর থানার এক এস. আইয়ের বিরুদ্ধে উৎকোচের বিনিময়ে তদন্ত না করে চাঁদাবাজির প্রতিবেদন দেওয়ার অভিযোগ

  • Update Time : মঙ্গলবার, ১৭ মে, ২০২২
  • ১২১৮ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদক – সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় ভূমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এক প্রবাসীর দায়েরকৃত মিথ্যা চাঁদাবাজির মামলা তদন্ত না করে উৎকোচের বিনিময়ে সত্য বলে প্রতিবেদন দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে জগন্নাথপুর থানার উপ পরিদর্শক শহিদুল ইসলাম এর বিরুদ্ধে। সুনামগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার জগন্নাথপুর সার্কেল এর নিকট ভুক্তভোগী উপজেলার চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের কবিরপুর গ্রামের আকবর হোসেন মঙ্গলবার লিখিত এ অভিযোগ করেন।
ভুক্তভোগীর লিখিত অভিযোগ ও এলাকাবাসী সূত্র থেকে জানা গেছে,যুক্তরাজ্য প্রবাসী জরিফ চৌধুরীর সাথে তার ভাতিজা একই গ্রামের কৃষক আকবর হোসেন এর ভূমি সংক্রান্ত বিরোধ দীর্ঘদিন ধরে চলছিল। যার জের ধরে জরিফ চৌধুরী বাদী হয়ে সুনামগঞ্জের আমল গ্রহণকারী জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে গত ১৬ মার্চ আকবর হোসেন কে প্রধান আসামি করে আট জনের বিরুদ্ধে তিন লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন।আদালত মামলাটি তদন্তের জন্য জগন্নাথপুর থানা পুলিশ কে দায়িত্ব দিলে থানার উপ পরিদর্শক শহিদুল ইসলাম তদন্তের দায়িত্ব পান। গত ১৮ এপ্রিল তিনি মামলার বিবরণ সত্য বলে আদালতে প্রতিবেদন পাঠান।
কৃষক আকবর হোসেন অভিযোগ করে বলেন, থানার উপ পরিদর্শক শহিদুল ইসলাম কোন ধরনের তদন্ত না করে ঘটনাস্থলে না গিয়ে মিথ্যা চাঁদাবাজির মামলা কে সত্য বলে প্রতিবেদন দেন। তিনি অভিযোগ করে বলেন, প্রবাসীর জরিফ চৌধুরী কাছ থেকে মোটা অংকের উৎকোচ নিয়ে তদন্ত ছাড়াই আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা চাঁদাবাজির প্রতিবেদন দিয়েছেন। এছাড়াও গোপনে আমাদের বিরুদ্ধে হুমকির অভিযোগ এনে মামলা দিয়ে আমাদের চার জনকে গত ১০ মে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠায়। পরে আমরা আদালত থেকে জামিন নিয়ে আসি।
চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য কবিরপুর গ্রামের বাসিন্দা হীরা মিয়া বলেন, আমাদের জানামতে কোন ধরনের চাঁদাদাবির ঘটনা ঘটে নি।ভূমি নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে বিরোধ রয়েছে এটা সবাই অবগত আছেন। এধরণের অভিযোগ তদন্ত করতে পুলিশ ঘটনাস্থলে যাওয়ার অভিযোগ তিনি জানেন না।
চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম বকুল বলেন, তদন্ত না করে নিরীহ মানুষের ওপর মিথ্যা চাঁদাবাজির অভিযোগ আনা সঠিক হয়নি। বিষয়টি আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় আলোচনা করব।
জগন্নাথপুর থানার উপ পরিদর্শক শহিদুল ইসলামের মুঠোফোনে ফোন দিলে তিনি বলেন, আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ সঠিক নয়। তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়া হয়েছে।
সুনামগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার জগন্নাথপুর সার্কেল শুভাশীষ ধর জগন্নাথপুর টুয়েন্টি ফোর ডটকম কে বলেন বিষয়টি তদন্ত পূর্বক দেখা হবে।

শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১
Design & Developed By ThemesBazar.Com
%d bloggers like this: