1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
কাজে ফাঁকি দেওয়া মহা অপরাধ - জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ১১:১৬ পূর্বাহ্ন

কাজে ফাঁকি দেওয়া মহা অপরাধ

  • Update Time : শনিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২২
  • ১৬৭ Time View

কর্মস্থলে কাজে ফাঁকি দেওয়ার সুযোগ যেমন ইসলামে নেই তেমনি তাবৎ দুনিয়ার কোনো ধর্ম ও মতবাদই কর্মে ফাঁকি দেওয়া সমর্থন করে না। এটি একটি অন্যতম দুর্নীতির উপায়। কর্মে ফাঁকি দেওয়ার অর্থ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গকে তাদের ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করা। সুতরাং এটিও এক ধরনের জুলুম ও দুর্নীতি।

শরিয়ত এটাকে মহাঅপরাধ হিসাবে আখ্যায়িত করেছে। রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘তোমরা প্রত্যেকেই দায়িত্বশীল। তোমাদের প্রত্যেককেই নিজ দায়িত্ব সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।’ (সহিহ বুখারি : ৪৭৮৯)।

আল্লাহর রাসূল (সা.) একদিকে বলেছেন, ‘ঘাম শুকানোর আগেই শ্রমিকের পারিশ্রমিক দিয়ে দাও।’ (ইবনে মাজাহ : ২৪৩০)। অন্যদিকে শ্রমিককে তার সঙ্গে চুক্তিকৃত কাজে কোনো ধরনের ফাঁকি না দিয়ে পূর্ণ সামর্থ্য অনুযায়ী করার নির্দেশ দিয়েছেন।

বর্তমান বিশ্বায়ন, পুঁজিবাদ আর ভোগবাদী অর্থনীতিতে যে কোনো মূল্যে মানুষ নীতি- নৈতিকতা বিসর্জন দিয়ে শর্টকাট উপায়ে সফল হতে চায়। বাংলাদেশে বিশেষ করে চাকরিজীবীরা কর্মক্ষেত্রে ফাঁকি দেওয়াকে দুর্নীতি মনে করে না। অতিরিক্ত লাভ ও লোভের নেশায় তারা ফাঁকি দেয়। কর্তব্য জ্ঞান ভুলে তারা অনৈতিক পথে চলে। তারা ভুলে যায় প্রতিদিন আট বা দশ ঘণ্টা নিজ কর্মক্ষেত্রে কাজ করার জন্য কর্তৃপক্ষ তাদের বেতন দেয়।

নির্ধারিত সময়ে নির্ধারিত সেবা দেওয়া তার দায়িত্ব। সরকারি-বেসরকারি সব ধরনের অফিসে কাজে ফাঁকি দেওয়ার উৎসব হয়। নির্ধারিত সময়ে অফিসে না থাকার কারণে সেবা প্রার্থীকে যথাসময়ে যথাযথ সেবা প্রদানে ব্যর্থ হন। কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া কেউ যদি কর্মক্ষেত্রে অনুপস্থিত থাকেন তাহলে তার বেতন হালাল হবে না। আর বেতন হালাল না হলে কোনো ইবাদতই কবুল হবে না। আর ইবাদাত কবুল না হলে জাহান্নাম অবধারিত।

আমাদের মনে রাখতে হবে শুধু আর্থিক দুর্নীতিই দুর্নীতি নয়। কর্মক্ষেত্রে কাজে ফাঁকি দেওয়া বড় ধরনের দুর্নীতি। অন্যকে বা অন্যের সন্তানকে ফাঁকি দিলে নিজেকে বা নিজের সন্তানকেও অন্য কেউ ফাঁকি দেবে এটাই প্রকৃতির নিয়ম। বর্তমানে কর্মক্ষেত্রে উপস্থিত থেকেও কাজ না করে ফাঁকি দেওয়ার অন্যতম উপকরণ হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ব্যাপক ব্যবহার। আল্লাহতায়ালা আমাদের সঠিক বুঝ দান করুন। আমিন।
সৌজন্যে যুগান্তর

শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩
Design & Developed By ThemesBazar.Com
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com