রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
‘ব্রিটিশ বাংলাদেশী হুজহু’র প্রকাশনা ও এওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানের বারোতম আসর বর্ণাঢ্য আয়োজনে সম্পন্ন পেঁয়াজ খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছি:প্রধানমন্ত্রী জগন্নাথপুর পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড আ.লীগের কমিটি গঠন জগন্নাথপুরে অগ্নিকাণ্ডে নি:স্ব ৮ পরিবার আশ্রয় নিলেন স্কুলে.মানবেতর জীবন যাপন মিশর থেকে কার্গো বিমানে পেঁয়াজ আসছে মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যে বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটি জগন্নাথপুরে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুরের সামাটে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র মনাফকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ জগন্নাথপুরের চিতুলিয়া গ্রামে আগুন,দুইটি ঘরসহ পুড়ল ১২ লাখ টাকার মালামাল

জগন্নাথপুরের নলুয়ার হাওরে বিল শুকিয়ে মাছ ধরায় চাষাবাদ ব্যাহত-দিশেহারা কৃষক

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৬
  • ৮৮ Time View

স্টাফ রিপোর্টার:: জগন্নাথপুর উপজেলার সর্ববৃহৎ নলুয়ার হাওরে বিল শুকিয়ে মাছ নিধন করা হচ্ছে। মাছ নিধনের জন্য বিল শুকিয়ে ফেলায় পানি সংকটে বিশাল আয়তনের বোরো জমি চাষাবাদ হুমকির মুখে পড়েছে। এ ঘটনায় স্থানীয় কৃষকরা দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। এ নিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের মধ্যে ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। প্রতিকার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট আবেদন করেছেন ভূক্তভোগী কৃষকরা।

স্থানীয় বিভিন্ন সূত্রে জানাগেছে, নলুয়ার হাওরে প্রায় ১০ কিলোমিটার এরিয়া নিয়ে হামহামিয়া বিল রয়েছে। এ বিলের সাথে সংযুক্ত অন্যাডহর, সেফটি, বড় ঘাটিয়া, ছোট ঘাটিয়া, চার দারিয়া, ভিতরবন, বড় কোর, ছোট কোর সহ আরো ৮ টি খন্ড বিল রয়েছে। প্রতি বছর এসব বিলের পানি দিয়ে নলুয়ার হাওরের অধিকাংশ বোরো জমি চাষাবাদ হয়ে থাকে। কিন্তু এবার বিল শুকিয়ে ফেলায় পানি সংকটে জমি চাষাবাদ ব্যাহত হচ্ছে।

কৃষকরা অভিযোগ করে জানান, এবার বিশাল আয়তনের হামহামিয়া বিলটি মাছ আহরনের জন্য সরকারের কাছ থেকে লীজ নেয় উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের খাশিলা যুগলনগর মৎস্য সমিতির সাধারণ সম্পাদক উপেন্দ্র দাস। তিনি বিলটি ফিসিং করে অবশেষে বিলটির তলদেশ শুকিয়ে মাছ ধরার জন্য উপজেলার চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়নের দাস নোয়াগাঁও গ্রামের মজনু মিয়ার লোকজনের কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন। বর্তমানে মজনু মিয়ার লোকজন বিলের তলদেশ শুকিয়ে মাছ নিধন করছেন। এতে স্থানীয় কৃষকরা বাধা দিলে এলাকায় উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। তারা বড় পানির পাম্প লাগিয়ে বিল শুকিয়ে মাছ নিধন করছেন। ইতোমধ্যে হামহামিয়া বিলের খন্ড বিল অন্যাডহর শুকিয়ে মাছ ধরা হয়ে গেছে। বর্তমানে অন্যান্য খন্ড বিল শুকিয়ে মাছ ধরতে মেশিন দিয়ে পানি সেচ করা হচ্ছে। বিলের পানি শুকিয়ে ফেলা হচ্ছে দেখে স্থানীয় কৃষকদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। পুরো বিলের পানি শুকিয়ে ফেলা হলে পানি সংকটে নলুয়ার হাওরের বিশাল আয়তনের রোপণ করা বোরো জমি পানির অভাবে নষ্ট হয়ে যাবে। এমন আশঙ্কায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন কৃষকরা।

প্রতিকার চেয়ে সম্প্রতি স্থানীয় নলুয়া নোয়াগাঁও, যাত্রাপুর ও হরিনাকান্দিসহ ৩ গ্রামবাসীর পক্ষে স্থানীয় ইউপি সদস্য অনিল দাসসহ ৮৫ জন কৃষক সাক্ষরিত একটি অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট প্রদান করা হয়।

যোগাযোগ করা হলে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হুমায়ূন কবির বলেন, বিলের পানি সেচ কাজ বন্ধ করতে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24