বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ০৮:১৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে এখনও সম্পন্ন হয়নি আ.লীগের ওয়ার্ড ভিত্তিত্ব কমিটি প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা শুরু ১৭ নভেম্বর জগন্নাথপুরে সংবাদ প্রকাশের পর অবশেষে সুযোগ পেল ১৭ পরীক্ষার্থী বন্ধ হলো ফেসবুকের সাড়ে পাঁচ’শ কোটি ভুয়া অ্যাকাউন্ট রংপুর এক্সপ্রেসে আগুন, চারটি বগি লাইনচ্যুত জেলা মহিলা আ.লীগ নেত্রী রফিকা চৌধুরীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে জগন্নাথপুরে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত আর্জেন্টিনার আদালতে সু চির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ছাতক-সুনামগঞ্জ সড়কে বিআরটিসি বাস চালুর দাবি সম্মেলনকে সামনে রেখে জগন্নাথপুরে আ.লীগের কার্যকরী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে দুইটি সরকারি ইজারাকৃত জলাশয় থেকে মাছ শিকারের অভিযোগ

জগন্নাথপুরে পরিবহনে শিশুশ্রম বাড়ছে, প্রশাসন নিরব

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ২২ জুন, ২০১৮
  • ৪৯ Time View

কামরুল ইসলাম মাহি:: নাম হাসান আহমদ। বয়স ১০ বছর। সে জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের খামারখাল গ্রামের আরশ আলী ছেলে। বই খাতা কলম নিয়ে যে বয়সে স্কুলে যাওয়ার কথা, অথচ এই বয়সে গাড়ির হেলপারি করছে সে। বুধবার (২০ জুন) ঝুঁকিপূর্ণভাবে তাকে লেগুনা গাড়ির হেলপারি করতে দেখা গেছে। তার সাথে কথা হয় জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে এ প্রতিবেদকের। সে জানায়, লেখাপড়ায় তার খুব আগ্রহ ছিল, কিন্তু পারিবারিক অভাব-অনটনের কারণেই তার পিতা তাকে গাড়ির হেলপার হিসেবে দিয়েছেন।

শুধু হাসান নয়, এরকম অসংখ্য অল্প বয়সী কিশোর জীবীকার তাগিদে বেছে নিয়েছে টেম্পো, লেগুনা কিংবা অটোরিকশার চালক অথবা হেলপারির কাজ। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সামান্য কিছু অর্থের বিনিময়ে সেই ভোর থেকে মধ্যরাত অবদি গাড়ি নিয়ে ছুটে চলেন এ শহর থেকে ও শহরে। একেতো নিজ জীবনের ঝুঁকি, অন্যদিকে আরো ১০/১২ যাত্রীর জীবন ঝুঁকি নিয়ে মাত্র ১শ থেকে দেড়শ টাকার জন্য দিনরাত ছুটে চলতে হয় এসব শিশু-কিশোরদের। এছাড়াও দিনভর যাত্রীদের বকাঝকা, ভাড়া নিয়ে হট্টগুলা, ট্রাফিক পুলিশের তাড়া ইত্যাদি নানা সমস্যা আর অবহেলায় দিনপাত করতে হয় এসব শিশু-কিশোর চালক-হেলপারদের।

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে পাগলা আঞ্চলিক মাহাসড়কের ও উপজেলার অভ্যন্তরীণ সড়কগুলোতে চলাচল করা টেম্পো, লেগুনা ও অটোরিকশার চালক কিংবা হেলপার হিসেবে ১০ বছর থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশু ও কিশোরদের দেখা গেছে। এতে যাত্রীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছেন প্রতিনিয়ত। যার কারণে ছোট বড় অনেক দুর্ঘটনাও ঘটে অনেক সময়।

নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) জগন্নাথপুর শাখার সভাপতি জাহেদ আহমদের জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে জগন্নাথপুর পরিবহন সমিতির নেতাদের উদাসীনতার কারণে লাইসেন্সবীহিন চালকরা গাড়ী চালানোর সুযোগ পাচ্ছে। তিনি বলেন শিশুদেরকে হেলপার হিসেবে ব্যবহার করছে। যা সম্পূর্ণ আইন লঙ্ঘন করে কিশোরদের হেলপার আর কিছু কিছু গাড়িতে চালক হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে।

জগন্নাথপুর-সুনামগঞ্জ মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি নিজামুল করিম করিম জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আমাদের বাস-গুলোতে কখনও শিশুদের হেলপারি কাজ করতে রাখা হয়না। ছোট ছোট যানবাহনে এসব দেখা যায়।
এ ব্যাপারে জগন্নাথপুরের ইউএনও মোহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ’র সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, এ বিষয়টি একাধিকবার আমার চোখে পড়েছে। পরিবহন ও মালিক সমিতিকে আমি সর্তক করেছি। শিঘ্রীই মিটিং ডেকে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার (ওসি) হারুনূর রশীদ চৌধুরী জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, শিশু শ্রমের ব্যাপারে থানা পুলিশ তৎপর রয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24