1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
জগন্নাথপুরে বাঁধ নির্মাণ: ১০ মাসে মিলেনি চূড়ান্ত বিল - জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর
শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৫৩ পূর্বাহ্ন

জগন্নাথপুরে বাঁধ নির্মাণ: ১০ মাসে মিলেনি চূড়ান্ত বিল

  • Update Time : বুধবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ১৩১ Time View

বিশেষ প্রতিনিধি::
জগন্নাথপুর উপজেলায় হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ সংস্কার কাজের গত মৌসুমের চুড়ান্ত বিল কাজের শেষের ১০ মাস পরও পায়নি প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি পিআইসির লোকজন। ফলে তাদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। ফলে এবার ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ সংস্কার কাজের প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি পিআইসিতে কৃষক ও জনপ্রতিনিধিরে আগ্রহ নেই।
কৃষক ও পানি উন্নয়ন বোর্ড পাউবো সূত্র জানায়, ২০১৭ সালে অকাল বন্যায় জেলার সবকটি হাওরের ফসল হারানোর পর হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ সংস্কার কাজে ঠিকাদারী প্রথা বাতিল করে পিআইসি প্রথা চালু করা হয়। ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ সংস্কার কাজের নীতিমালা অনুযায়ী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে জরিপ কাজ সম্পন্ন করে প্রাক্কলন তৈরি ও গণশুনানির মাধ্যমে জনপ্রতিনিধি ও উপকারভোগী কৃষকদের নিয়ে পিআইসি কমিটি গঠন করার কথা থাকলেও এবার এখন পর্যন্ত জরিপ কাজ ও পিআইসি কমিটি গঠন করা হয়নি। গত কয়েক দিন ধরে গণশুনানি হলেও কোন কমিটি গঠন হয়নি।
পাউবো সূত্র আরও জানায়, নিয়ম অনুযায়ী ১৫ ডিসেম্বর কাজ শুরু করে ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে কাজ শেষ করার কথা। গত বছর ২৮ টি প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির মাধ্যমে উপজেলার ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ সংস্কার কাজ করা হয়। চার কিস্তিতে বিল পরিশোধ করার কথা থাকলেও কাজ শেষ ও ফসল উত্তোলনের ১০ মাস পরও চুড়ান্ত বিল পরিশোধ করা হয় নি।
নলুয়ার হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ সংস্কার ভূরাখালি বাঁধের পিআইসি কমিটির সভাপতি রনধীর দাস বলেন, অনেক ধারদেনা করে কাজ শেষ করেছি। রাতের পর রাত বাঁধে কাজ করে অকাল বন্যার ঝুঁকি থেকে বাঁধ রক্ষা করেছি। ফসল উত্তোলন হয়েছে। তারপরও বার বার ধর্না দিয়ে চূড়ান্ত বিল পাচ্ছি না।
আরেক প্রকল্প কমিটির সভাপতি আহমেদ আলী বলেন, জরিপের নামে পাউবোর লোকজন ইচ্ছে মতো চূড়ান্ত বিল কমিয়ে দেওয়া ও বিল পরিশোধে বিলম্ব ও হয়রানির কারণে পিআইসির প্রতি আগ্রহ হারাচ্ছে লোকজন। নিজেদের জমির ফসল রক্ষায় আমরা পিআইসিতে কাজ করি।
হাওর বাঁচাও আন্দোলন জগন্নাথপুর উপজেলা কমিটির আহ্বায়ক সিরাজুল ইসলাম বলেন, গত বছর বাঁধ ভেঙে কয়েকটি হাওরের ফসল তলিয়ে যাওয়া ও ঝুঁকিপূর্ণ বাঁধ রক্ষায় এলাকাবাসীর আপ্রাণ চেষ্টা থেকে শিক্ষা নিয়ে আমাদেরকে এবার সময়মতো কাজ শুরু করার কথা ছিল। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন পিআইসি কমিটি গঠন না হওয়া আমরা আবারও নির্ধারিত সময়ে কাজ শুরু ও শেষ নিয়ে শঙ্কিত। তিনি বলেন, বন্যার কারণে এবার হাওরে এমনিতে অতিরিক্ত কাজ করতে হবে।
পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-সহকারী প্রকৌশলী হাসান গাজী বলেন, বরাদ্দ প্রাপ্তিতে বিলম্ব হওয়ায় চূড়ান্ত বিলের কিছু টাকা পরিশোধ করা সম্ভব হয়নি। আশা করছি খুব শীঘ্রই পরিশোধ করা হবে।
তিনি বলেন, হাওরের এখনও জরিপ কাজ চলমান রয়েছে। তাই পিআইসি গঠন করা যাচ্ছে না। আমরা গণশুনানির মাধ্যমে কমিটি গঠন প্রক্রিয়া চালিয়ে যাচ্ছি। তিনি বলেন, এবার ৫০টি প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি গঠনের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে।





শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩
Design & Developed By ThemesBazar.Com
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com