বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ০১:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম:

প্রতিটি উপজেলায় একটি করে মিনি ষ্টেডিয়াম নির্মাণ করা হবে-প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৬
  • ৮৩ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডেস্ক:: বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রাজখালী এবং কলসিন্দুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ছেলেদের (বঙ্গবন্ধু) ফাইনালে টাইব্রেকারে ৩-২ গোলে রাজাখালী হারায় দিনাজপুরের বীরগঞ্জের মরিচা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে। আর মেয়েদের (বঙ্গমাতা) ফাইনালে খর্দ্দকৌড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে ৩-১ গোলে হারিয়ে ময়মনসিংহের ধোবউড়ার কলসিন্দুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন হয়। এই নিয়ে টানা তৃতীয়বার চ্যাম্পিয়ন হলো তারা।
ছেলেদের ফাইনালে নির্ধারিত সময়ের খেলা শেষ হয় ১-১ গোলে। এরপর ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। অতিরিক্ত সময়ের ১০ মিনিটে কোনো দলই গোল করতে না পারায় টাইব্রেকারে ভাগ্য নির্ধারিত হয়। ভাগ্যের সেই খেলায় ৩-২ ব্যবধানে জিতে শিরোপা জয়ের উৎসবে মেতেছে রাজাখালী স্কুল। একই মাঠে বিকালে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে নিরঙ্কুশ প্রাধান্য ধরে রেখে শিরোপা জিতেছে কলসিন্দুর স্কুলের মেয়েরা। এর আগে ২০১৩ ও ২০১৪ সালেও চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল তারা। ম্যাচ শেষে খেলোয়াড়দের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান।
বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা ৬৩ হাজার ৫০৯। খেলোয়াড় সংখ্যা ১০ লাখ ৭৯ হাজার ৬৫৩। বঙ্গমাতা প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট অংশগ্রহণকারী বিদ্যালয়ের সংখ্যা ছিল ৬৩ হাজার ৪৩১। অংশগ্রহণকারী খেলোয়াড় সংখ্যা ১০ লাখ ৭৮ হাজার ৩২৭।
ছেলেদের ম্যাচটি টিভিতে দেখলেও গ্যালারিতে বসে মেয়েদের ফাইনাল ম্যাচ উপভোগ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছে ক্ষুদে এই ফুটবলারদের খেলায় মুগ্ধ হয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি সত্যি আনন্দিত এই টুর্নামেন্টে এতো খেলোয়াড় খেলেছে। আমি জানি না, পৃথিবীর অন্যকোনো দেশে কোনো টুর্নামেন্টে এত বিশাল অংকের দলের অংশগ্রহণে খেলা হয় কিনা। এই ছোট্ট ছোট্ট শিশুরা এত সুন্দর নৈপুণ্য দেখিয়েছে। মাঝে মাঝে মনে হয় যে, বড়দেরও হার মানিয়ে দিয়েছে আজকে আমাদের এই শিশুরা।’
স্কুলগুলো শিক্ষক-শিক্ষিকাদের খেলাধুলার বিষয়ে আরো একটু মনোযোগী হতে আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। খেলাধুলার উন্নয়নে প্রতিটি উপজেলায় একটি করে মিনি স্টেডিয়াম করে দেয়ার কথাও বলেন প্রধানমন্ত্রী, যেখানে স্কুল-কলেজের ছেলেমেয়েরাই বেশি প্রাকটিস করবে। শিশুদের অভিনন্দন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘শুধু এখানে যারা উপস্থিত আছে সেই ছোট্ট সোনামণিরাই নয়, সমগ্র বাংলাদেশে যারা এই টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছে তাদের সবাইকে আমি আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছি এবং আমি তাদের দোয়া করি যেন তারা স্কুলে ভালোভাবে খেলে ভবিষ্যতে আরো ভালো খেলা উপহার দিতে পারে।’
টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন দল পেয়েছে এক লাখ টাকা, রানার্সআপ ৭৫ হাজার এবং তৃতীয় স্থান অধিকারী দল পেয়েছে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24