1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
রশি আছে, পোস্টার নেই, জগন্নাথপুরে বৃষ্টিতে ভিজে প্রচারণা - জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর
বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:১১ অপরাহ্ন

রশি আছে, পোস্টার নেই, জগন্নাথপুরে বৃষ্টিতে ভিজে প্রচারণা

  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২২
  • ২৭৭ Time View

বিশেষ প্রতিনিধি::
জগন্নাথপুরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দের পর থেকেই আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচারণায় নির্বাচনী পোস্টারে ছেয়ে গিয়েছিল পুরো উপজেলা। হাট-বাজার ও গ্রামগঞ্জের সড়কের ওপর রশিতে ঝুলছিল ওই সব পোস্টার। কিন্তু ঝিরিঝিরি বৃষ্টিতে নষ্ট হয়ে গেছে অধিকাংশ পোস্টার।
সোমবার উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এ দৃশ্য দেখা গেছে।
নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের সমর্থক ও প্রচার কাজে যুক্ত থাকা ব্যক্তিদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, বৃষ্টির মৌসুম না থাকা লেমিনেটিং ছাড়া বেশির ভাগ পোস্টারই ছাপা করা হয়। আর ওই সব পোস্টার অনেক জায়গায় রশি দিয়ে ঝুলানো হয়েছিল, কিন্তু গত রবিবার রাত থেকে বৃষ্টি হওয়ায় এখন শুধুই রশি আছে, পোস্টার নেই। কোথাও আবার রশিতে ঝুলছে ছেঁড়া পোস্টার। কোথাও কোথাও রশিও ছিঁড়ে নিচে পড়ে আছে।
সমর্থকরা জানান, পোস্টার নষ্ট হয়ে যাওয়ায় এখন তাঁদের আবার নতুন করে পোস্টার লাগাতে হবে। বৃষ্টির কারণে পোস্টার নষ্ট হওয়ায় প্রার্থীরা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।
জানা গেছে, প্রতিটি সাদা-কালো নির্বাচনী পোস্টারের জন্য আড়াই থেকে তিন টাকা খরচ হয়। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ঠিক কী পরিমাণ পোস্টার টাঙানো হয়েছিল, তার সুনির্দিষ্ট কোনো হিসাব নেই। তবে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, এ পর্যন্ত উপজেলাজুড়ে টানানো পোস্টারের সংখ্যা প্রায় দেড় লাখ হবে।
এদিকে বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে প্রচারণা চালিয়েছেন নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্রার্থীরা। গতকাল দিনভর ঝড়-বৃষ্টিতে ভিজে তাঁরা মাঠে ভোট আদায়ে প্রচার চালান।
উপজেলার গড়গড়ি গ্রামে বৃষ্টিতে ভিজে গণসংযোগকালে কথা হয় চেয়ারম্যান প্রার্থী মুক্তাদির আহমদ মুক্তার (আনারস) সঙ্গে। তিনি বলেন, পুরো এলাকাতেই পোস্টার টাঙানো হয়েছিল। বৃষ্টিতে এসব পোস্টারের অধিকাংশই নষ্ট হয়ে গেছে। এখন আবার নতুন করে পোস্টার টাঙাতে হবে।
তিনি আরও বলেন, বৃষ্টির দিনে ঘরে বসে থাকলে তো হবে না। নির্বাচনী মাঠে এগিয়ে রয়েছি। বিগত করোনা মহামারি ও বন্যা পরিস্থিতি যেভাবে জনগণের পাশে ছিলাম এখনও আছি।
নারী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী রিনা বেগম বলেন, নির্বাচনের আর বেশি দিন নেই। বৃষ্টিতে বসে থাকলে প্রচারণায় পিছিয়ে পড়ব। তাই বৃষ্টি উপেক্ষা করে প্রচারে আছি।
উল্লেখ্য, একটি পৌরসভা ও আটটি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আগামী ২ নভেম্বর ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৫, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩
Design & Developed By ThemesBazar.Com
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com