1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
যুদ্ধের জন্য পশ্চিমারা বহু বছর ধরে প্রস্তুতি নিচ্ছিল: রাশিয়া - জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর
বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:৫৫ অপরাহ্ন

যুদ্ধের জন্য পশ্চিমারা বহু বছর ধরে প্রস্তুতি নিচ্ছিল: রাশিয়া

  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৪৭ Time View

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::

ইউক্রেনে যে যুদ্ধ চলছে তা এখন আর ‘হাইব্রিড’ পর্যায়ে নেই বরং তা ‘একটি প্রকৃত যুদ্ধের’ রূপ নিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ। তিনি অভিযোগ করেছেন, পশ্চিমা দেশগুলো ক্রমাগত মস্কোর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। দক্ষিণ আফ্রিকা সফররত ল্যাভরভ প্রিটোরিয়ায় এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেছেন। খবর পার্স টুডের।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেছেন, “ইউক্রেনে যা কিছু ঘটছে তা একটি যুদ্ধ। এটি কোনও হাইব্রিড যুদ্ধ নয় বরং প্রকৃত যুদ্ধ। পশ্চিমারা এ যুদ্ধের পরিকল্পনা বহু আগে থেকে করে আসছিল।”

সের্গেই ল্যাভরভ বলেন, ইউক্রেনে বিদ্যমান রুশ ভাষা থেকে শুরু করে সংস্কৃতি পর্যন্ত সবকিছু ধ্বংস করা ছিল এ পরিকল্পনার উদ্দেশ্য। তিনি অভিযোগ করেন, শত শত বছর ধরে ইউক্রেনের রুশ ভাষাভাষি মানুষ তাদের মাতৃভাষায় কথা বলে আসলেও এখন তাদের কাছ থেকে মায়ের ভাষা কেড়ে নেয়ার ষড়যন্ত্র চলছে।

ল্যাভরভ বলেন, ইউক্রেনে রুশ ভাষার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট যেকোনও ধরনের কথাবার্তা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আর এসব কিছু করা হচ্ছে পাশ্চাত্যের প্রত্যক্ষ পৃষ্ঠপোষকতায়।

দক্ষিণ আফ্রিকা সফররত রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেছেন, তার দেশ যুদ্ধের শুরুর দিকেই কিয়েভের সঙ্গে সংলাপে বসতে চেয়েছিল। কিন্তু আমেরিকা ও তার ইউরোপীয় মিত্ররা কিয়েভকে সংলাপ থেকে সরিয়ে নিয়েছে।
ইউক্রেনে যে যুদ্ধ চলছে তা এখন আর ‘হাইব্রিড’ পর্যায়ে নেই বরং তা ‘একটি প্রকৃত যুদ্ধের’ রূপ নিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ। তিনি অভিযোগ করেছেন, পশ্চিমা দেশগুলো ক্রমাগত মস্কোর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। দক্ষিণ আফ্রিকা সফররত ল্যাভরভ প্রিটোরিয়ায় এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেছেন। খবর পার্স টুডের।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেছেন, “ইউক্রেনে যা কিছু ঘটছে তা একটি যুদ্ধ। এটি কোনও হাইব্রিড যুদ্ধ নয় বরং প্রকৃত যুদ্ধ। পশ্চিমারা এ যুদ্ধের পরিকল্পনা বহু আগে থেকে করে আসছিল।”

সের্গেই ল্যাভরভ বলেন, ইউক্রেনে বিদ্যমান রুশ ভাষা থেকে শুরু করে সংস্কৃতি পর্যন্ত সবকিছু ধ্বংস করা ছিল এ পরিকল্পনার উদ্দেশ্য। তিনি অভিযোগ করেন, শত শত বছর ধরে ইউক্রেনের রুশ ভাষাভাষি মানুষ তাদের মাতৃভাষায় কথা বলে আসলেও এখন তাদের কাছ থেকে মায়ের ভাষা কেড়ে নেয়ার ষড়যন্ত্র চলছে।

ল্যাভরভ বলেন, ইউক্রেনে রুশ ভাষার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট যেকোনও ধরনের কথাবার্তা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আর এসব কিছু করা হচ্ছে পাশ্চাত্যের প্রত্যক্ষ পৃষ্ঠপোষকতায়।

দক্ষিণ আফ্রিকা সফররত রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেছেন, তার দেশ যুদ্ধের শুরুর দিকেই কিয়েভের সঙ্গে সংলাপে বসতে চেয়েছিল। কিন্তু আমেরিকা ও তার ইউরোপীয় মিত্ররা কিয়েভকে সংলাপ থেকে সরিয়ে নিয়েছে।

শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১
Design & Developed By ThemesBazar.Com