রবিবার, ২৫ অগাস্ট ২০১৯, ০২:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে নৌকাবাইচ:এবার সোনার নৌকা,সোনার বৈঠা জিতল কুতুব উদ্দিন তরী জগন্নাথপুরে সড়ক সংস্কার-অবৈধ যান অপসারণের দাবীতে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি মালিক,শ্রমিক নেতারদের জগন্নাথপুরে এনজিও সংস্থা আশা’র উদ্যোগে তিনদিন ব্যাপি ফিজিওথেরাপী চিকিৎসা ক্যাম্প শুরু জগন্নাথপুরে মারামারি মামলাসহ বিভিন্ন ওয়ারেন্টের ১১ আসামী গ্রেফতার জগন্নাথপুরে পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু জগন্নাথপুরে ডেঙ্গু প্রতিরোধে সচেতনতামুলক সভা অনুষ্ঠিত ২১ আগস্টের মাস্টারমাইন্ডদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে আপিল করা হবে: ওবায়দুল কাদের ধর্মীয় শিক্ষার প্রয়োজন চিরদিন ৭১’র বয়স ৫ মাস,তবুও মানবতাবিরোধী অপরাধে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা,প্রত্যাহারের দাবী ঠিকাদারের দায়িত্বহীনতায় জগন্নাথপুর-বেগমপুর সড়কে অসহনীয় দুর্ভোগ

ইউরোপে বসবাসরত অনিয়মিত বাংলাদেশিদের ভেরিফিকেশন করবে এসবি

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৯ অক্টোবর, ২০১৭
  • ১৩ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক ::ইউরোপ থেকে অনিয়মিত বাংলাদেশিদের ফেরত আনতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও স্পেশাল ব্রাঞ্চকে (এসবি) ফোকাল পয়েন্ট হিসেবে নির্ধারণ করা হয়েছে। এছাড়া অনিয়মিত বাংলাদেশিদের নাগরিকত্ব ভেরিফিকেশনের জন্য তিনটি ডাটাবেজ ব্যবহার করা হবে। এগুলো হলো, জাতীয় পরিচয়পত্র, পাসপোর্ট অধিদফতর এবং জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) ডাটাবেজ। এর আগে চলতি বছরের ২০ সেপ্টেম্বর নিউ ইয়র্কে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের অভিবাসন-বিষয়ক মন্ত্রী দিমিত্রিস আভ্রেমোপোলস একটি স্ট্যান্ডার্ড অব প্রসিডিওর (এসওপি) স্বাক্ষরিত হয়। এসওপি স্বাক্ষর বাস্তবায়নের জন্য একটি টাস্কফোর্সও গঠন করা হয়। রবিবার (৮ অক্টোবর) পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত টাস্কফোর্সের প্রথম বৈঠকে ইউরোপে অনিয়মিত বাংলাদেশিদের ফেরত আনতে ভেরিফিকেশন সংক্রান্ত এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বৈঠকের বিষয়ে জানতে চাইলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘এসওপি বাস্তবায়নের জন্য এই টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে। আজকের বৈঠকে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো অনিয়মিত বাংলাদেশিদের তথ্য এই তিনটি মন্ত্রণালয় ও সংস্থাকে জানাবে ভেরিফিকেশনের জন্য।’ তিনি বলেন, ‘এসওপি অনুযায়ী আমরা স্পেশাল ব্রাঞ্চে একটি বিশেষায়িত সেল গঠন করব, যেখানে সম্পৃক্ত সব মন্ত্রণালয় ও সংস্থার প্রতিনিধি থাকবেন। তারা বাংলাদেশিদের নাগরিকত্ব ভেরিফিকেশন করবেন।’

সরকারের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘আমরা ইউরোপীয় ইউনিয়নকে দ্রুত এ বৈঠকের বিষয়ে জানিয়ে তাদের তথ্য আমাদের কাছে পাঠাতে বলব।’ তিনি আরও বলেন, ‘নাগরিকত্ব ভেরিফিকেশনের জন্য তিনটি ডাটাবেজ ব্যবহার করা হবে। প্রথমটি জাতীয় পরিচয়পত্র ডাটাবেজ, দ্বিতীয়টি পাসপোর্ট অধিদফতর ও তৃতীয়টি বিএমইটির ডাটাবেজ।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা অনিয়মিত বাংলাদেশিদের ফেরত আনার জন্য একটি এসওপি স্বাক্ষর করেছি। আজকের বৈঠকে কিভাবে অনিয়মিতদের ফেরত আনা হবে, তা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। এই বৈঠকে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও সংস্থার কর্মকর্তারা তাদের অভিমত দিয়েছেন।’ সবার অভিমতের আলোকে কাজ করা হবে বলেও তিনি জানান।

চলতি বছরের প্রথমদিক থেকে বাংলাদেশের সঙ্গে ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যে অনিয়মিত বাংলাদেশিদের ফেরত আনতে একটি এসওপি স্বাক্ষর করার জন্য আলোচনা শুরু হয়। ওই এসওপি অনুযায়ী একজন বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠানোর আগে তার বিরুদ্ধে সব ধরনের প্রশাসনিক ও আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে। এছাড়া তাকে ফেরত পাঠানোর আগে তার বাংলাদেশি নাগরিকত্ব ইউরোপেই নিশ্চিত করতে হবে বলে দুই পক্ষ একমত হয়েছে। এ চুক্তির অধীনে প্রথম ছয় মাসের প্রতিমাসে ১০০ জনের বেশি তারা ফেরত পাঠাতে পারবে না।

ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো বাংলাদেশিদের জন্য ২০১৪ সালে প্রায় ২৬ হাজার, ২০১৫ সালে প্রায় ২১ হাজার ও ২০১৬ সালে প্রায় ২৫ হাজার রেসিডেন্ট পারমিট ইস্যু করেছে। কিন্তু ২০১৭ সালের জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত মাত্র ৪ হাজার ১০০ পারমিট ইস্যু করেছে বলে জানান পররাষ্ট্র সচিব। তিনি বলেন, অনিয়মিত বাংলাদেশিদের কারণে তারা অল্পসংখ্যাক ভিসা ইস্যু করছে। এর ফলে বৈধপথে বাংলাদেশিদের ইউরোপ যাওয়া কঠিন হয়ে যাচ্ছে।’

ইউরোপীয় ইউনিয়নের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৬ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত যুক্তরাজ্য বাদে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৭টি দেশে প্রায় দুই লাখ বৈধ ভিসাধারী বাংলাদেশি রয়েছেন, যাদের সেখানে থাকা ও কাজ করার অনুমতি আছে।

অন্য আরেকটি পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, ২০১৬ সালে ৮ হাজার ২০০ জন এবং ২০১৭ সালের ১৯ জুলাই পর্যন্ত ৮ হাজার ৫০০ জন বাংলাদেশি ইটালিতে অবৈধভাবে প্রবেশ করেছেন।

এদিকে ২০১৫ সালের জানুয়ারি থেকে চলতি বছরের মার্চ-পর্যন্ত অনিয়মিত বাংলাদেশিদের ফেরত আনতে প্রায় সাড়ে চার হাজার ট্রাভেল পারমিট ইস্যু করেছে ইউরোপে অবস্থিত বাংলাদেশের দূতাবাসগুলো।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24