এইচ. এস. সি ও আলিম পরীক্ষার্থীদের পূর্ব প্রস্তুতি

সুপ্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, আগামী পহেলা এপ্রিল ২০১৯ খ্রি. হতে শুরু হচ্ছে তোমাদের চূড়ান্ত পরীক্ষা। তোমাদের সবার জন্য রইলো প্রীতি ও ভালবাসা।
প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, তোমাদের শিক্ষা জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ধাপ হলো এই পাবলিক পরীক্ষা। উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের জন্য এই পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। সুতরাং এই পরীক্ষায় ভালো ফলাফলের কোনো বিকল্প নাই। আর পূর্ব প্রস্ততি ছাড়া কোন ক্ষেত্রেই ভালো ফলাফল অর্জন সম্ভব নয়। আজ পরীক্ষার পূর্ব প্রস্তুতি নিয়ে তোমাদের উদ্দেশ্যে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করব।আশা করি এই কথাগুলো তোমাদের পরীক্ষায় ভালোভাবে প্রস্তুতি নিতে সাহায্য করবে।
একজন পরীক্ষার্থীকে ভালো ফলাফলের জন্য মানসিক ভাবে প্রস্তুতি নেয়াটা অত্যান্ত জরুরী। সে যদি মানসিক ভাবে পিছিয়ে পড়ে তাহলে ফলাফলে এর প্রভাব পড়বেই। তাই মানসিক ভাবে পরীক্ষার্থীকে অবশ্যই দৃঢ় এবং আত্মবিশ্বাসী হতে হবে। ‘আমি পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করবই’ নিজের উপর এই বিশ্বাস রাখতে হবে।
অনুরূপ ভাবে একজন পরীক্ষার্থীকে শারীরিক ভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ থাকার বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করতে হবে। সার বছর কঠোর পরিশ্রম করে প্রস্তুতি নেয়ারপর পরীক্ষার পূর্বে অসুস্থ হয়ে পড়লে সকল পরিশ্রম বৃথা যাবে। তাই পরীক্ষার পূর্বে সুস্থ থাকাটা ও প্রস্তুতির একটা অংশ। তাই পরীক্ষা সামনে রেখে পড়াশোনার পাশাপাশি পরীক্ষার্থীকে পর্যাপ্ত বিশ্রাম নিতে হবে।বিশেষ করে পরীক্ষার পূর্বের রাত্রিতে রাতজাগা যাবে না। অধিকন্তু রাত ১১ টার মধ্যেই ঘুমিয়ে পড়তে হবে। মনে রাখতে হবে পরীক্ষায় সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে অংশগ্রহণ করা পরীক্ষার একটি অংশ।
পরীক্ষার্থীরা কোনো প্রকার গুজবে কান না দিয়ে নিজের উপর বিশ্বাস রাখতে হবে এবং নতুন করে কোনো কিছু শেখার চেষ্টা না করে পূর্বে যা শিখা হয়েছে সেগুলো বারবার রিভিশন দেয়ার চেষ্টা করতে হবে।
পরীক্ষার প্রবেশ পত্র ও রেজিষ্ট্রেশন কার্ড সংগ।সংগ্রহ করার পর এগুলোর তিন সেট ফটোকপি ভিন্ন ভিন্ন স্থানে নিরাপদে সংরক্ষণ করে রাখতে হবে যাতে কোনোভাবে এগুলো হারিয়ে গেলে সহজেই ফটোকপি গুলো পাওয়া যায়। নিেম্ন বর্ণিত প্রয়োজনীয় উপকরণ গুলো পরীক্ষার্থীদের অবশ্যই সাথে রাখতে হবে।
# পরীক্ষার আগের দিন প্রবেশ পত্র ও রেজিষ্ট্রেশন কার্ডের মূল কপি, পেন্সিল, ইরেজার, স্কেল সাদা স্পষ্ট ব্যাগে সংরক্ষণ করতে হবে।
# একাধিক বল পয়েন্ট কলম (কালো কালির) সাথে রাখতে হবে।
# সময় দেখার জন্য হাতঘড়ি সাথে রাখতে হবে তবে কোনো প্রকার ইলেকট্রনিক ডিভাইস সাথে রাখা যাবে না।
# আবহাওয়ার কথা বিবেচনা করে ছোট চার্জ লাইট কিংবা মোমবাতি ও দিয়াশলাই সাথে রাখতে হব।
# শারীরিক অসুস্থতা থাকলে প্রয়োজনীয় ঔষধ সাথে রাখতে হবে।
# হাতে যথেষ্ট সময় নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রের উদ্দ্যেশ্যে রওয়ানা দিতে হবে এবং সময়মতো কেন্দ্রে পৌঁছাতে হবে।
# নিজ আসন গ্রহণ করে সঠিকভাবে বৃত্ত ভরাট করতে হবে এক্ষেত্রে ভূল করলে সাথে সাথে কক্ষ পরিদর্শককে অবগত করতে হবে।
পরিশেষ তোমাদের সর্বাঙ্গীন মঙ্গল করছে। তোমরা সুস্থ থেকে পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে ভালো ফলাফল অর্জন করো এই দোয়া করছি।

লেখক
মো. আবুতাহের রানা
প্রভাষক, শাহজালাল মহাবিদ্যালয়
কলকলিয়া, জগন্নাথপুর।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» পরীক্ষা কেন্দ্রে ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে আটক-১

» দলকে না জানিয়ে এমপি হিসেবে শপথ নিলেন বিএনপির জাহিদুর

» ‘ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার সঙ্গে শ্রীলঙ্কা হামলার সম্পর্কের প্রমাণ নেই’

» ক্লাসে শিক্ষকদের সিগারেট-পান নিষিদ্ধ

» জগন্নাথপুরে এক সন্তানের জননীর আত্মহত্যা

» জগন্নাথপুরে নিসচা’র উদ্যোগে লিফলেট বিতরণ

» জগন্নাথপুরের সাবেক ছাত্রলীগ নেতা যুক্তরাজ্য প্রবাসিকে আনহার মিয়াকে সংবর্ধনা প্রদান

» জগন্নাথপুরে সু-সেবা নেটওয়ার্ক কমিটির ত্রিমাসিক পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত

» জগন্নাথপুরে যুক্তরাজ্য প্রবাসি গীতিকার আক্কাছ মিয়াকে সংবর্ধনা প্রদান

» হবিগঞ্জে প্রেমিক হত্যার পর খাটের নিচে মাটিতে পুতে রাখে প্রেমিকা

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

এইচ. এস. সি ও আলিম পরীক্ষার্থীদের পূর্ব প্রস্তুতি

সুপ্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, আগামী পহেলা এপ্রিল ২০১৯ খ্রি. হতে শুরু হচ্ছে তোমাদের চূড়ান্ত পরীক্ষা। তোমাদের সবার জন্য রইলো প্রীতি ও ভালবাসা।
প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, তোমাদের শিক্ষা জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ধাপ হলো এই পাবলিক পরীক্ষা। উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের জন্য এই পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। সুতরাং এই পরীক্ষায় ভালো ফলাফলের কোনো বিকল্প নাই। আর পূর্ব প্রস্ততি ছাড়া কোন ক্ষেত্রেই ভালো ফলাফল অর্জন সম্ভব নয়। আজ পরীক্ষার পূর্ব প্রস্তুতি নিয়ে তোমাদের উদ্দেশ্যে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করব।আশা করি এই কথাগুলো তোমাদের পরীক্ষায় ভালোভাবে প্রস্তুতি নিতে সাহায্য করবে।
একজন পরীক্ষার্থীকে ভালো ফলাফলের জন্য মানসিক ভাবে প্রস্তুতি নেয়াটা অত্যান্ত জরুরী। সে যদি মানসিক ভাবে পিছিয়ে পড়ে তাহলে ফলাফলে এর প্রভাব পড়বেই। তাই মানসিক ভাবে পরীক্ষার্থীকে অবশ্যই দৃঢ় এবং আত্মবিশ্বাসী হতে হবে। ‘আমি পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করবই’ নিজের উপর এই বিশ্বাস রাখতে হবে।
অনুরূপ ভাবে একজন পরীক্ষার্থীকে শারীরিক ভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ থাকার বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করতে হবে। সার বছর কঠোর পরিশ্রম করে প্রস্তুতি নেয়ারপর পরীক্ষার পূর্বে অসুস্থ হয়ে পড়লে সকল পরিশ্রম বৃথা যাবে। তাই পরীক্ষার পূর্বে সুস্থ থাকাটা ও প্রস্তুতির একটা অংশ। তাই পরীক্ষা সামনে রেখে পড়াশোনার পাশাপাশি পরীক্ষার্থীকে পর্যাপ্ত বিশ্রাম নিতে হবে।বিশেষ করে পরীক্ষার পূর্বের রাত্রিতে রাতজাগা যাবে না। অধিকন্তু রাত ১১ টার মধ্যেই ঘুমিয়ে পড়তে হবে। মনে রাখতে হবে পরীক্ষায় সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে অংশগ্রহণ করা পরীক্ষার একটি অংশ।
পরীক্ষার্থীরা কোনো প্রকার গুজবে কান না দিয়ে নিজের উপর বিশ্বাস রাখতে হবে এবং নতুন করে কোনো কিছু শেখার চেষ্টা না করে পূর্বে যা শিখা হয়েছে সেগুলো বারবার রিভিশন দেয়ার চেষ্টা করতে হবে।
পরীক্ষার প্রবেশ পত্র ও রেজিষ্ট্রেশন কার্ড সংগ।সংগ্রহ করার পর এগুলোর তিন সেট ফটোকপি ভিন্ন ভিন্ন স্থানে নিরাপদে সংরক্ষণ করে রাখতে হবে যাতে কোনোভাবে এগুলো হারিয়ে গেলে সহজেই ফটোকপি গুলো পাওয়া যায়। নিেম্ন বর্ণিত প্রয়োজনীয় উপকরণ গুলো পরীক্ষার্থীদের অবশ্যই সাথে রাখতে হবে।
# পরীক্ষার আগের দিন প্রবেশ পত্র ও রেজিষ্ট্রেশন কার্ডের মূল কপি, পেন্সিল, ইরেজার, স্কেল সাদা স্পষ্ট ব্যাগে সংরক্ষণ করতে হবে।
# একাধিক বল পয়েন্ট কলম (কালো কালির) সাথে রাখতে হবে।
# সময় দেখার জন্য হাতঘড়ি সাথে রাখতে হবে তবে কোনো প্রকার ইলেকট্রনিক ডিভাইস সাথে রাখা যাবে না।
# আবহাওয়ার কথা বিবেচনা করে ছোট চার্জ লাইট কিংবা মোমবাতি ও দিয়াশলাই সাথে রাখতে হব।
# শারীরিক অসুস্থতা থাকলে প্রয়োজনীয় ঔষধ সাথে রাখতে হবে।
# হাতে যথেষ্ট সময় নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রের উদ্দ্যেশ্যে রওয়ানা দিতে হবে এবং সময়মতো কেন্দ্রে পৌঁছাতে হবে।
# নিজ আসন গ্রহণ করে সঠিকভাবে বৃত্ত ভরাট করতে হবে এক্ষেত্রে ভূল করলে সাথে সাথে কক্ষ পরিদর্শককে অবগত করতে হবে।
পরিশেষ তোমাদের সর্বাঙ্গীন মঙ্গল করছে। তোমরা সুস্থ থেকে পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে ভালো ফলাফল অর্জন করো এই দোয়া করছি।

লেখক
মো. আবুতাহের রানা
প্রভাষক, শাহজালাল মহাবিদ্যালয়
কলকলিয়া, জগন্নাথপুর।

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।