বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:১৩ অপরাহ্ন

জগন্নাথপুরে ভুল চিকিৎসায় অন্তঃস্বত্ত্বা নারী গর্ভের তিন মাসের সন্তান নষ্ট: থানায় অভিযোগ দায়ের

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
  • ৭০ Time View

স্টাফ রিপোর্টার :: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নে ভুল চিকিৎসায় এক দরিদ্র নারীর তিন মাসের গর্ভের সন্তান নষ্ট হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় অন্তঃস্বত্ত্বা নারীর স্বামী বাদি হয়ে গতকাল জগন্নাথপুর থানায় ওই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন। জগন্নাথপুর থানা পুলিশ ও গর্ভের সন্তান নষ্ট হওয়া নারীর পরিবারের লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের বাঘময়না গ্রামের হতদরিতদ্র সাহেদ মিয়া তাঁর তিন মাসের অন্তস্বত্ত্বা স্ত্রী জ্বরে আক্রান্ত নাজমা বেগম কে ৭ আগষ্ট দুপুর ১২টায় রানীগঞ্জ বাজারের আশা ফার্মেসীতে নিয়ে গেলে ডাক্তার সুষেন চন্দ্র চন্দ বিভিন্ন ঔষধ দেন। এসব ঔষধ সেবনের পর স্ত্রীর শারিরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে পরদিন সকালে স্বামী তাকে নিয়ে আবারও ওই ডাক্তারের ফার্মেসীতে নিয়ে যান। সেখানে আসার পর ডাক্তার একটি স্যালাইন দেন। এরপরও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় আমি সিলেট রাগিব-রাবেয়া হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করি। সেখানের চিকিৎসকরা জানান,ভুল চিকিৎসার কারণে আমার স্ত্রীর গর্ভের সন্তান নষ্ট হয়ে গেছে। পরে স্ত্রীকে চিকিৎসা করিয়ে সুস্থ করে বাড়ি নিয়ে আসি। গর্ভের সন্তান নষ্ট হওয়া নারীর স্বামী মোঃ সাহেদ মিয়া বলেন,আমি অশিক্ষিত ও দরিদ্র মানুষ। আশা ফার্মেসীতে অনেক আশা নিয়ে ডাক্তার সুষেন কে দেখাতে যাই। আমার স্ত্রী অন্তঃস্বত্ত্বা বলার পর তিনি অনেক পরীক্ষা নিরিক্ষা করে তাকে ঔষধ দেন। ঔষধ খাওয়ার পর থেকে পেটে ব্যথা শুরু হয়। পরদিন আবার নিয়ে গেলে তিনি ঠিক হয়ে যাবে বলে স্যালাইন দেন। তারপরও না কমায় আশংকাজনক অবস্থায় স্ত্রীকে নিয়ে সিলেট রাগিব-রাবেয়া হাসপাতালে ভর্তি করি। সেখানে চিকিৎসকরা বলেছেন ভুল চিকিৎসায় আমার অনাগত সন্তান নষ্ট হয়েগেছে। পরে ডাক্তারদের পরামর্শে স্ত্রীকে সুস্থ করে বাড়ি নিয়ে আসি। এঘটনার ন্যায় বিচার পেতে আমি আমি আইনের আশ্রয় নিয়েছি।
অভিযুক্ত চিৎিসক সুষেন চন্দ্র চন্দ জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। একজন গ্রাম্য ডাক্তার হিসেবে আমি নিয়মমেনেই ফার্মেসী ব্যবসা করছি। তিনি জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বিষয়টি আমি বাজার কমিটির নেতাদের অবহিত করেছি। জগন্নাথপুর থানার উপ-পরির্দশ কবির আহমদ জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ভুল চিকিৎসায় অন্তঃস্বত্বা নারীর সন্তান নষ্ট হওয়ার অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল পরির্দশ করে তদন্ত শুরু করেছি। তদন্তের পর এবিষয়ে আইনানুগ পদক্ষেপ নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24