সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৭:২২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে নৌপথে বেপরোয়া ‘চাঁদাবাজি’,চাঁদা না দিলে শ্রমিকদের মারধর করে লুটে নেয় মালামাল মিরপুরের সেই প্রার্থী আপিলে ফিরলেন নির্বাচনী লড়াইয়ে মিরপুর ইউপি নির্বাচনে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করলেন দুইজন, কাল প্রতিক বরাদ্দ পড়াশোনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের নামাজ শেখানো হয় যে বিদ্যালয়ে পানির নিচে প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিতে গিয়ে মৃত্যু! সিলেটে চারদিনের রিমান্ডে পিযুষ যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ২ জগন্নাথপুরে ৩৯টি মন্ডপে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি,চলছে প্রতিমা তৈরীর কাজ জগন্নাথপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কমিটির বিরুদ্ধে অপপ্রচারে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে ৬ মাসেও বকেয়া টাকা মিলেনি, ঋণের চাপে দিশেহারা পিআইসিরা

দলছুট লে: কর্ণেল আলী আহমদ হঠাও জগন্নাথপুর তৃণমূল বিএনপি বাঁচাও দাবী করে বিবৃতি

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৫
  • ৫০ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডেস্ক::গত ১৪ অক্টোবর বুধবার “দৈনিক সুনামগঞ্জের খবর” পত্রিকায় “জগন্নাথপুর বিএনপি’র কোন্দল, মালেক খানকে বহিষ্কারের দাবী অব: লে:ক: আলীর” শিরোনামে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি, সুনামগঞ্জ জেলা মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি, বৃহত্তর সিলেট ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সাবেক সহ-সভাপতি, জিয়া পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা, সুনামগঞ্জ জেলা ও জগন্নাথপুর উপজেলা আহ্বায়ক কমিটির অন্যতম সদস্য, রাষ্ট্রীয় সম্মানী ভাতাপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা, তৃণমূল বিএনপি নেতা- এম এ মালেক খানকে দল থেকে বহিস্কার করার দাবী জানিয়েছেন জাতীয় পার্টি (এরশাদ) থেকে সদ্য বিএনপিতে যোগদানকারী বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শিক্ষা কোরের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক লে: কর্ণেল আলী আহমদ। যিনি ইতোমধ্যে বিভিন্নভাবে তদবির করে জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক মনোনীত হয়েছেন। যেহেতু লে: ক: আলী বিএনপিতে নতুন এসেছেন তাই স্বাভাবিকভাবেই দলের ত্যাগী পরিক্ষিত ও দীর্ঘদিনের নিবেদিত প্রাণ তৃণমূল নেতাকর্মীদের সাথে তাঁর চেনা-জানা বা দলীয় সম্পর্ক নেই। এমতাবস্থায় তিনি ইদানিং উপজেলার সবকটি ইউনিয়ন আহ্বায়ক কমিটি গঠন করেছেন। উক্ত কমিটিতে ত্যাগী দীর্ঘদিনের পরিক্ষিত ও বিগত আন্দোলন সংগ্রামে সক্রিয় অংশগ্রহণকারী তৃণমূল নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে ঘরে বসে অল্প সংখ্যক লোক দিয়ে পকেট কমিটি গঠন করার ফলে তৃণমূল নেতাকর্মীদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। এতে দলে স্থবিরতা দেখা দেওয়ায় মাননীয় বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ডাকে চলমান আন্দোলনকে বেগবান করার মহৎ উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে জগন্নাথপুরের মাটি ও মানুষের দীর্ঘদিনের সাহসী সৈনিক তৃণমূল বিএনপি নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মালেক খানের নেতৃত্বে উপজেলার ত্যাগী ও বঞ্চিত ৮০ শতাংশ তৃণমূল নেতাকর্মীবৃন্দ ঐক্যবদ্ধভাবে আমরা উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের সর্বস্তরের তৃণমূল নেতাকর্মীবৃন্দ উপজেলা বিএনপিকে ঐক্যবদ্ধ ও শক্তিশালী করার মহৎ উদ্দেশ্যে তৃণমূলের মনোনীত আহ্বায়ক কমিটি গঠন করে, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপি’র মাননীয় আহ্বায়ক, সাবেক সংসদ সদস্য জননেতা নাসির উদ্দিন চৌধুরীর নিকট বিনীত আবেদন জানাই। এতে দলে নবাগত লে: ক: আলী তাঁর নেতৃত্ব চলে যাওয়ার ভয়ে এবং এলাকায় জননেতা মালেক খান এর বিপুল জনপ্রিয়তার কারণে ইর্ষান্বিত হয়ে তিনি বিএনপি প্রতিষ্ঠালগ্নের পরিক্ষিত কর্মী তৃণমূলের বন্ধু শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের আদর্শের সৈনিক বীর মুক্তিযোদ্ধা মালেক খানকে বহিষ্কারের দাবী করায় আমরা তৃণমূল নেতাকর্মীবৃন্দ মর্মাহত হয়েছি। তার এহেন দাম্বিকতাপূর্ণ আচরণের বিরুদ্ধে আমরা তীব্র নিন্দা, ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। একই সাথে জগন্নাথপুর উপজেলার বিএনপিতে কোন্দল ও দলকে টুকরো টুকরো করার ষড়যন্ত্র থেকে বিরত থাকার জন্য আহ্বান করছি। লে: ক: আলীর স্মরণ করা উচিত যে, তিনি ৭১ সালে সিলেট সরকারী এম.সি কলেজে স্বাধীনতা বিরোধী সংগঠন ইসলামী ছাত্রসংঘের সভাপতি ছিলেন। এখনও সময় আছে তার এ মনোভাব পরিত্যাগ করা প্রয়োজন। এখানে উল্লেখ করা আবশ্যক যে, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রবীণ তৃণমূল বিএনপি নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মালেক খান সুনামগঞ্জ-৩ আসনে যাতে দলীয় মনোনয়ন না পান, এজন্যেই লে:ক: আলী মুক্তিযোদ্ধা মালেক খানকে তার প্রতিদ্বন্ধী মনে করে তাঁকে দল থেকে বহিষ্কারের দাবী ও ষড়যন্ত্র করছেন যা নিতান্তই বাতুলতা মাত্র। তার এ হীন চক্রান্তের বিরুদ্ধে আমরা তৃণমূল নেতাকর্মীবৃন্দ প্রতিবাদ ও রুখে দাঁড়াতে চাই। একই সাথে আমরা সুনামগঞ্জ জেলা মাননীয় আহ্বায়ক ও দলীয় হাই কমান্ডের নিকট আকুল আবেদন জানাই যে, “দলছুট লে: ক: আলীকে দ্রুত হঠাও- জগন্নাথপুর তৃণমূল বিএনপিকে বাঁচাও”। বিবৃতি দাতারা হলেন- ১নং কলকলিয়া ইউনিয়ন বিএনপি’র তৃণমূল মনোনীত আহ্বায়ক শমসের উদ্দিন আহমেদ, ১নং সদস্য মোঃ এখলাছুর রহমান তালুকদার (নিকসন্) ও ১০১ সদস্য। ২নং পাটলী ইউনিয়ন বিএনপি’র তৃণমূল মনোনীত আহ্বায়ক মোঃ জামিল হোসেন গেদন, ১নং সদস্য মঈনুল ইসলাম ও ১০১ সদস্য। ৩নং মীরপুর ইউনিয়ন তৃণমূল মনোনীত বিএনপি’র আহ্বায়ক মোঃ খুরশীদ আলম, ১নং সদস্য আব্দুল হান্নান ও ৭১ সদস্য। ৫নং চিড়াউড়া হলদিপুর ইউনিয়ন তৃণমূল মনোনীত আহ্বায়ক হাজী ছায়াদ মিয়া, ১নং সদস্য মামুর আহমদ ও ৮১ সদস্য। ৬নং রানীগঞ্জ ইউনিয়ন বিএনপির তৃণমূল মনোনীত আহ্বায়ক সামছুল ইসলাম, ১নং সদস্য মোঃ আকমল হোসেন ও ৭১ সদস্য। ৭নং সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র তৃণমূল মনোনীত আহ্বায়ক হাফিজ কবির আহমদ, ১নং সদস্য আলমগীর হোসেন জিম্মাদার ও ১০৯ সদস্য। ৮নং আশারকান্দি ইউনিয়ন বিএনপি’র তৃণমূল মনোনীত আহ্বায়ক মোঃ গোলাম মোস্তফা, ১নং সদস্য গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী পারভেজ ও ৮১ সদস্য। ৯নং পাইলগাঁও ইউনিয়ন বিএনপি’র তৃণমূল মনোনীত আহ্বায়ক শাহ্ মোঃ ইয়াওর মিয়া, ১নং সদস্য শামীম আহমদ হেনু ও ১০১ সদস্য।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24