বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০২:৩০ পূর্বাহ্ন

নিউইয়র্কে বোমা হামলার প্রতিবাদে প্রবাসীদের বিক্ষোভ

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৭
  • ৪৭ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক :: যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে সন্ত্রাসবাদী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে ম্যানহাটনের পোর্ট অথরিটি বাস টার্মিনালে বাংলাদেশি আকায়েদ উল্লাহর ঘৃনিত বোমা হামলা ঘটনার তীব্র নিন্দা ও ধিক্কার জানান হয়। দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করা হয় আত্মঘাতি বিস্ফোরণকারী আকায়েদ উল্লাহর।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর) রাতে বাঙালি অধ্যুষিত ব্রঙ্কসের স্টারলিং-বাংলাবাজার এভিনিউ এলাকায় বাংলাদেশি-আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিল এ বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে। নানা শ্রেণি-পেশার বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি সমাবেশে যোগ দেন।

বাংলাদেশি-আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট আইনজীবী মোহাম্মদ এন মজুমদারের সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশি-আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিলের সেক্রেটারী নজরুল হক, ব্রঙ্কস বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের সভাপতি এন ইসলাম মামুন, কমিউনিটি এক্টিভিস্ট সারোয়ার জাহান লাহীন, রেজা আবদুল্লাহ, আকসাদ আলী বাবুল, জাকির চৌধুরী, মো: মতিন সরকার, এশিয়ান ড্রাইভিং স্কুলের সিইও সাইদুর রহমান লিংকনসহ কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশে বক্তারা তাদের উদ্বেগের কথা উল্লেখ করে বলেন, আকায়েদ বাংলাদেশি নামের কলঙ্ক। এ ন্যাক্কারজন ঘটনায় বাংলাদেশিদের মান-সম্মান ধূলিস্মাৎ হয়েছে। বাংলাদেশিদের মুখ পুড়েছে আকায়েদের কারণে। হুমকির মুখে পড়েছে প্রবাসী বাঙালিদের জীবন-জীবিকা। গোটা কমিউনিটিতে প্রভাব পড়েছে অপ্রত্যাশিত এ ঘটনায়। বাংলাদেশী কমিউনিটি এ ধরণের ঘৃন্য কাজকে কোনভাবেই মেনে নিতে পারে না।

তারা বলেন, এদেশ আমাদের সকলের। এ দেশকে নিরাপদ রাখা আমাদের সকলেরই দায়িত্ব। বক্তারা সন্ত্রাসীদের যুক্তরাষ্ট্র ছাড়ার পরামর্শ দিয়ে বলেন, সন্ত্রাসীর জায়গা যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে হবে না। এ ধরণের ন্যাক্কারজন ঘটনার পুনরাবৃত্তি দেখতে চান না বলেও তারা উল্লেখ করেন।

বক্তারা অভিভাবকদেরকে তাদের সন্তানদের বেশি করে সময় দেয়ার পরামর্শ দিয়ে বলেন, সন্তানেরা কি করছে, কখন কার সঙ্গে মিশছে, এগুলো খেয়াল রাখতে হবে মা-বাবাদের। এ ব্যাপারে সচেতন হতে হবে সকলকে। কোথাও অসঙ্গতিপূর্ণ কিছু দেখলে সংশ্লিষ্টদের অবহিত করারও পরামর্শ দেন তারা।

সভাপতির বক্তব্যে আইনজীবী মোহাম্মদ এন মজুমদার সমাবেশে যোগদানের জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশ জাতি ও দেশ হিসেবে সন্ত্রাসের বিষয়ে জিরো টলারেন্সে বিশ্বাসী। বাংলাদেশ সন্ত্রাসকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখান করে।

তিনি অভিবাসীদের আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়ে বলেন, একজন সন্ত্রাসী কেবলই সন্ত্রাসী। সন্ত্রাসীর অন্য কোন পরিচয় থাকতে পারে না। আত্মঘাতি বিস্ফোরণকারী আকায়েদ উল্লাহ বাংলাদেশি অভিবাসী হলেও সে কিছুতেই বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করে না। এটি একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা। একজন হামলাকারীর দায় পুরো কমিউনিটি নিতে পারে না। অবশ্যই এই সন্ত্রাসীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া উচিত।

সমাবেশে সন্ত্রাস বিরোধী বিভিন্ন শ্লোগান সম্বলিত প্ল্যাকার্ড বহন করা হয় এবং বিক্ষোভকারীরা সন্ত্রাস বিরোধী শ্লোগান উচ্চারণ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।

উল্লেখ্য, নিউইয়র্কের ম্যানহাটনে টাইম স্কয়ার সাবওয়ে স্টেশন থেকে পোর্ট অথরিটি বাসস্টেশনে যাতায়াতের ভূগর্ভস্থ পথে স্থানীয় সময় গত সোমবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে বোমা হামলা হয়। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে বাংলাদেশি আকায়েদ উল্লাহকে গ্রেপ্তার করা হয়। বিস্ফোরণে আকায়েদ উল্লাহ নিজে গুরুতর আহত হন এবং অন্য তিনজন পথচারী সামান্য আহত হন। এ বোমা হামলার ঘটনায় গ্রেপ্তার আকায়েদ উল্লাহকে সন্ত্রাসবাদী কর্মকান্ডের অপরাধে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24