শনিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২০, ০২:০২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
চিরনিদ্রায় নিজের তৈরী কবরে শায়িত জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুল মনাফ শ্রদ্ধা আর ভালবাসায় জগন্নাথপুর পৌরসভার জননন্দিত মেয়র আব্দুল মনাফকে শেষ বিদায়,জানাজায় শোকার্ত মানুষের ঢল পৌর মেয়র আব্দুল মনাফ এর মরদেহে পরিকল্পনা মন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন পৌর চত্বরে মেয়র আব্দুল মনাফের মরদেহে শ্রদ্ধা নিবেদন চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সন্মেলনে পরিবর্তনের পক্ষে তৃণমূল নেতাদের আওয়াজ জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুল মনাফের মরদেহ গ্রামের বাড়িতে এসেছে:শোকার্ত জনতার ঢল জগন্নাথপুরে শিশুর মৃত্যু:’শিশুটি যখন মৃত্যুের যন্ত্রনায় চটপট করছিল,যখন ডাক্তার-নার্স ঘুমে’ জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুল মনাফ এর মরদেহ গ্রামের বাড়িতে এসেছে শোকার্ত জনতার ঢল জগন্নাথপুরের চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলন সম্পন্ন হলেও কমিটি হয়নি জগন্নাথপুরের কৃতি সন্তান ডা. আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী বারডেমের নতুন অতিরিক্ত মহাপরিচালক

প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে নেদার‌ল্যান্ডসের রাজধানীতে প্রথমবার মাইকে আজান

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::
  • Update Time : বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯
  • ১৭২ Time View

নানা প্রতিকূলতা ও সীমাবদ্ধতা উপেক্ষা করে নেদারল্যান্ডসের রাজধানী আমস্টারডামে প্রথমবার মাইকে আজান প্রচার হয়েছে।

স্থানীয় মুসল্লিসহ ভিন্ন ধর্মাবলম্বীরাও মসজিদের বাইরে দাঁড়িয়ে প্রথমবারের মতো আজান শোনার অভিজ্ঞতা অর্জন করেছেন। গত শুক্রবার জুমার ওই মুহূর্তটি স্মরণীয় করে রাখতে অনেকেই তাদের সেলফোনে রেকর্ড করে রাখেন।

মসজিদের মুখপাত্র নুরদীন ওয়াইল্ডম্যান আনাদলুকে জানান, এক সপ্তাহ আগের জুমায় এই আজান প্রচার করার কথা ছিল। কিন্তু বাধা সত্ত্বেও চলতি সপ্তাহের জুমায় লাউডস্পিকারে আজান প্রচার হয়। এতে তিনি অত্যন্ত সম্মানিত বোধ করছেন।

তিনি বলেন, আজান প্রচারের পর স্থানীয়দের কাছ থেকে নানা ধরনের প্রতিক্রিয়া পাওয়া যাচ্ছে। কেউ সমালোচনা করেন। কেউ ইতিবাচক জানিয়েছেন।

উরসুলা ভ্যান স্পর্নসেন নামে ভিন্ন ধর্মাবলম্বী একজন জানান, তিনি স্থানীয় বাসিন্দা। আজান শোনার জন্যই প্রথমবার এই মসজিদে আসেন। এটি শুনতে অনেক ভালো লাগছিল।

আমস্টারডামের ব্লু মস্ক বা নীল মসজিদ নামে পরিচিত মসজিদটিতে ৮ নভেম্বর প্রথম আজান প্রচার করার পরিকল্পনা করা হয়েছিল। কিন্ত কিছু দুষ্কৃতকারি অডিও সিস্টেমের তার কেটে দেয়ার ফলে এক সপ্তাহ পরে আজান প্রচার করার সময় নির্ধারিত হয়।

নেদারল্যান্ডসজুড়ে শতকরা ৭ ভাগ মসজিদে বছরের পর বছর ধরে লাউডস্পিকারে আজান প্রচার করা হচ্ছে। কিন্তু রাজধানী আমস্টারডামে এই প্রথম আজান প্রচার করা হয়। নেদারল্যান্ডে প্রায় ৫০০টির মতো মসজিদ রয়েছে।

ইসলাম নেদারল্যান্ডসের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্ম হলেও দেশটিতে মুসলমানদের নানা প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে বসবাস করতে হয়। দেশটিতে গত কয়েকমাস আগে নেকাব নিষিদ্ধকরণের আইন কার্যকর হয়েছে।গত দশ বছরে দেশটিতে প্রায় ৩০০টি মসজিদ হামলার শিকার হয়েছে।

সৌজন্যে যুগান্তর

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24