বৃহস্পতিবার, ২২ অগাস্ট ২০১৯, ০৭:২৪ অপরাহ্ন

বাজারে আসছে ডায়েবেটিক চা

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ২২ আগস্ট, ২০১৬
  • ২৮ Time View

স্টাফ রিপোর্টার::খুব শীঘ্রই চায়ের জগতের নতুন সংযোজন হিসেবে বাজারে আসছে ডায়াবেটিক চা। বাংলাদেশ চা বোর্ডের চা ব্যবস্থাপনা কোষের মহা- ব্যবস্থাপক মো. শাহজাহান আকন্দ এই চা উদ্ভাবন করেছেন।

এখন এই চা এর কার্যকারিতা নিয়ে শেষ পর্যায়ের গবেষণা চলছে। এই চা ডায়াবেটিক রোগীরা কতটুকু বা কি পরিমাণে খাবেন কিংবা আদৌ খেতে পারবেন কিনা তা নিয়ে শেষ মুহূর্তের পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে বলে শাহজাহান আকন্দ জানিয়েছেন।

Stevia (স্ট্যাভিয়া)-র পাতা ও চা-পাতার সংমিশ্রণ ঘটিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই ডায়াবেটিক চা। Stevia (স্ট্যাভিয়া) গাছের আদি নিবাস উগান্ডায়। দীর্ঘদিন ধরে পর্যবেক্ষণ ও তথ্যভিত্তিক বিশ্লেষণের পর তিনি এই সার্বজনীন প্রাকৃতিক পানিয় উদ্ভাবন করতে সক্ষম হন। তবে মো. শাহজাহান বলেন, তিনি এই চা নিয়ে অত্যন্ত আশাবাদী।

Stevia ( স্ট্যাভিয়া ) গাছটি Stevia Reboubiana (স্ট্যাভিয়া রিবৌবিয়ানা) এর পরিবারভুক্ত। Stevia (স্ট্যাভিয়া) একটি উপকরণ যা Stevia (স্ট্যাভিয়া) গাছের পাতার নির্যাস এবং ডায়াবেটিকস হেলিং- এ সাহায্য করে। এটি সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক। ইহা পাউডার ও তরল আকারেও ব্যবহার করা যায়। এটি মানুষের ব্লাড সুগারে তেমন কোন প্রভাব ফেলে না। এটি জিরো ক্যালরি অন্তর্ভুক্ত এবং একই ঘনত্বে সাধারণ চিনির তুলনায় ১০০-৩০০ গুন মিষ্টি।

এতে কার্বোহাইড্রেট ক্যালরি বা কৃত্রিম উপাদান নেই। এর স্বাদ কিছুটা ম্যানথল এর কাছাকাছি। Stevia (স্ট্যাভিয়া) ফ্যামিলির Asteraceac Speecis মেক্সিকো, প্যারাগুয়ে, ব্রাজিলে মিষ্টি খাবার হিসেবে বহু বছর ধরে ব্যবহার হয়ে আসছে । Stevia (স্ট্যাভিয়া) ওই অঞ্চলে ট্র্যাডিশনাল মেডিসিন হিসেবেও ব্যবহার হয়ে আসছে ।

Stevia (স্ট্যাভিয়া) বার্ন এবং Colic (ক’লিক) পেটের সমস্যা, নিম্ন রক্তচাপ এবং কোন কোন ক্ষেত্রে জন্মনিরোধক হিসেবেও কাজ করে। বর্তমানে Stevia (স্ট্যাভিয়া) সুগারের বিকল্প হিসেবেও বহুল ব্যবহার হচ্ছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24