বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ০২:২৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:

রানীগঞ্জের ১২টি গ্রামে পল্লী বিদ্যুৎ সংযোগ উপলক্ষে সভা

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬
  • ১৫ Time View

রানীগঞ্জ ইউনিয়ন প্রতিনিধি :: জগন্নাথপুর উপজেলার কুশিয়ারা নদীর দক্ষিণ পাড়ে পল্লী বিদ্যুৎতায়নের সংযোগ প্রদানের লক্ষে উদ্বুদ্বকরন সভা রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের রৌয়াইল উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের ১২ টি গ্রামে বিদ্যুৎতায়নের লক্ষে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তাদীর আহমদ মুক্তা। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হবিগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার গণেশ চন্দ্র দাশ। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হবিগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির রিটেইনার প্রকৌশলী হুমায়ুন কবীর। সভায় পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডিজিএম বলেন,প্রতিটি গ্রামে সরকারের পল্লী বিদ্যুতায়নের অংশ হিসেবে জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ও রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের সকল গ্রামে বিদ্যুৎ সংযোগের প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে আলীপুর গ্রামে বিদ্যুতায়ন করা হয়েছে। পাইলগাঁও ইউনিয়নের ১২ টি গ্রামে মাস খানেকের মধ্যে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা হবে।রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের ১২ টি গ্রামে অক্টোবরের ২৫ তারিখ থেকে সংযোগ চিহ্নিতকরনের কাজ শুরু হবে।তিনি বলেন,মাননীয় অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী জনাব এম এ মান্নানের প্রচেষ্টায় সম্ভব দ্রুততম সময়ের মধ্যে এই এলাকায় সংযোগ প্রদানের জন্য আমরা অগ্রাধিকার প্রকল্প গ্রহণ করেছি।
স্থানীয় ইউ পি সদস্য নাজমুল হকের পরিচালনায় মঙ্গলবার দুপুরে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রবীন শিক্ষক হাজী নূরুল ইসলাম,আওয়ামী লীগ নেতা আবু তাহের মজনু,শাহজাহান সিরাজী,অধ্যাপক শাখাওয়াত হোসেন আজাদ,অাতাউর রহমান মেম্বার,শহিদুর রহমান মোসাহিদ,শামসুল মিয়া প্রমুখ। সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন ছাত্রলীগ নেতা আল মামুন।

24-01-o-copyসভায় সভাপতির বক্তব্যে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তাদীর আহমদ বলেন,ভৌগলিক কারণে সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি থেকে পাইলগাঁও ও রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের কুশিয়ারা নদীর দক্ষিনপাড়ে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান সম্ভব নয়। তাই স্থানীয় সংসদ সদস্য মাননীয় অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী মহোদয়ের প্রচেষ্টায় এই এলাকাকে হবিগঞ্জ পল্লী বিদ্যুত সমিতিতে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে।ইতিমধ্যে পাইলগাঁও ইউনিয়নের গ্রাম সমূহে লাইন নির্মানের কাজ শেষ হয়েছে।কিছু গ্রাম বাকী রয়েছে দ্রুত এই গ্রামসমূহ বিদ্যুতায়নের জন্য লাইন নির্মান করা হবে।রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের ১৩ টি গ্রামে মাঠপর্যায়ের কাজ শুরু হয়েছে।বছর খানেকের মধ্যে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।তিনি বলেন, কোনো অসাধু ব্যক্তি বিদ্যুৎ সংযোগের নাম করে যেন আর্থিক সুবিধা না নেয় তার জন্য সকলকে সচেতন থাকতে হবে।তিনি মাঠপর্যায়ে কর্তব্যরত কর্মকর্তাদের সহযোগিতা করার জন্য সকলের প্রতি অনুরোধ জানান।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24