বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:১৪ অপরাহ্ন

সুনামগঞ্জে অসচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতা বিতরন অনুষ্ঠানে এমপি মিসবাহ – কষ্টের মধ্যেও প্রতিবন্ধীরা যেন আনন্দে থাকেন আমি এ প্রত্যাশাই করছি

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৩ আগস্ট, ২০১৫
  • ৬৩ Time View

সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা-সুনামগঞ্জে ২৪ জন অসচ্ছল প্রতিবন্ধীকে ভাতা প্রদান করা হয়েছে। রোববার দুপুর ১২টায় পৌর এলাকার হাজীপাড়াস্থ শহর সমাজসেবা কার্যালয়ে মোট ১ লক্ষ ৪৪ হাজার টাকা প্রতিবন্ধীদেরকে ভাতা হিসেবে নগদ প্রদান করা হয়। ভাতা বিতরন অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবা মন্ত্রণালয় সম্পর্কীত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ও সুনামগঞ্জ ৪ আসনের এমপি এডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ। জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপপরিচালক মোঃ তুরন মিয়ার সভাপতিত্বে ও শহর সমাজসেবা অফিসার মোঃ গিয়াস উদ্দিনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত ভাতা বিতরন সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ পৌরসভার প্যানেল মেয়র মোঃ মনির উদ্দিন,জেলা প্রতিবন্ধী অফিসের ডাঃ সীমা রায়,সাবেক কাউন্সিলর শামীম চৌধুরী শামু, সদর উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মোঃ হারুন অর রশিদ,সমাজসেবা কার্যালয়ের কম্পিউটার প্রশিক্ষক সাব্বির আহমেদ,অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর ফজলে বারী বাহাদুর, খন্ডকালীন প্রশিক্ষক হাবিবুর রহমান,অফিস সহায়ক মোঃ গোলাম মোস্তফা,ইউনিয়ন সমাজকর্মী ফেরদৌসি বেগম, নৈশপ্রহরী মনির হোসেনসহ বিভিন্ন শ্রেণীর প্রতিবন্ধী নাগরিকেগণ। ভাতা গ্রহনকারীদের মধ্যে শারীরিক প্রতিবন্ধী সাংবাদিক আল-হেলালসহ উপস্থিত সকলে সরকারের কল্যাণমূলক এ কর্মসুচির প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। ভাতা বহি বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ্ এমপি বলেন,সরকার সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় মুক্তিযোদ্ধা প্রতিবন্ধী বয়স্ক বিধবা ভাতাসহ দেশের সকল পিছিয়ে পড়া নাগরিকদের পূণর্বাসনে নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। যা এখন পর্যন্ত পৃথিবীর অনেক দেশে করা সম্ভব হয়নি। আমি সমাজসেবা মন্ত্রণালয়ে সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য হিসেবে সুনামগঞ্জ জেলায় সকল প্রকার ভাতার বরাদ্ধ তুলানামূলকভাবে বেশী করে আদায় করেছি। প্রতিবন্ধীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,যে কোন ধরনের দূর্ঘটনা বা নানাবিধ কারনে একজন মানুষ প্রতিবন্ধী হয়ে যেতে পারে। সাংবাদিক আল-হেলাল এরকম একটি দূর্ঘটনার কারনেই আজ শারীরিক প্রতিবন্ধী। তিনি বলেন,একটি পরিবারে একজন মানুষ প্রতিবন্ধী হলে তার পরিবারটি যে কত কষ্টের মধ্যে পড়ে তা ভূক্তভোগীরা ব্যাতিত অন্য কেউ উপলব্ধি করতে পারেনা। আমি শুধু আমার প্রতিবন্ধী ভাই বোনদের বলবো আপনারা নিজেকে কখনও অসহায় ভাববেননা। সরকারের পাশাপাশি আমরা আপনাদের সাথে আছি এবং থাকবো। কষ্টের মধ্যেও আপনারা আনন্দে হাসি খুশীর মধ্যে থাকবেন আমি এ প্রত্যাশাই করছি। তিনি জেলা সমাজসেবা অফিসের উপপরিচালক তুরন মিয়ার দীর্ঘদিনের সততার সাথে দায়িত্ব পালনের জন্যও ভূয়সী প্রশংসা করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24