বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:

সুনামগঞ্জ জেলা যুবলীগের নতুন কমিটির আভাস

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৪ অক্টোবর, ২০১৭
  • ২১ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক ::
জেলা যুবলীগের নতুন কমিটি গঠন নিয়ে আবারো আলোচনা শুরু হয়েছে। গুঞ্জন উঠেছে যেকোন সময় আসতে পারে ক্ষমতাসীন দলের অন্যতম সহযোগী সংগঠনের নতুন নেতৃত্ব।
গত বছরের ১৩ এপ্রিল জেলা যুবলীগের নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠন হয়। খায়রুল হুদা চপলকে আহ্বায়ক, আসাদুজ্জামান সেন্টু ও খন্দকার মঞ্জুর আহমদেকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে কেন্দ্রীয় সভাপতি মোহাম্মদ ওমর ফারুক ও সাধারণ সম্পাদক মো. হারুনুর রশিদ কমিটি অনুমোদন করেন। কমিটিতে ১৮ জনকে সদস্য করা হয়। কমিটি গঠনের পর বেশ জোরেসুরে শুরু হয় সাংগঠনিক কার্যক্রম। বেশ কয়েকটি উপজেলায় সম্মেলনও করেন জেলা যুবলীগের নেতৃবৃন্দ। জটিলতা তৈরি হলেও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলাও কমিটি দেয় জেলা যুবলীগ। তবে জেলা কমিটিকে ডিঙিয়ে তাহিরপুর ও জামালগঞ্জ উপজেলা কমিটি অনুমোদন করিয়ে নেন সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন।
মূলত বোরো ফসল ডুবির ঘটনার পর বাঁধের কাজ পাওয়া জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক খায়রুল হুদা চপলকে নিয়ে শুরু হয় বিতর্ক। দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ও জেলা আইনজীবী সমিতির দায়ের করা মামলায় আসামি করা হয় তাকে। এক পর্যায়ে সিঙ্গাপুর যাওয়ার চেষ্টাকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে এপিবিএন গ্রেফতার করে খায়রুল হুদা চপলকে। বর্তমানে চপল কারাগারে আটক আছেন। তার কারাগারে যাবার পরই নতুন কমিটি নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়। জুলাই মাসের শেষের দিকে ছাত্রলীগের কিছু সাবেক নেতা নতুন কমিটি আনার চেষ্টা করেও সফল হননি। আগস্ট মাসে আ.লীগ ও অঙ্গসংগঠনের কোনো কমিটি অনুমোদন হয় না। অক্টোবর মাসে আবারও কমিটি গঠনের তোড়জোড় শুরু হয়েছে। জেলা ছাত্রলীগের কিছু সাবেক নেতা নেতৃত্ব আসার চেষ্টা করছেন বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানাগেছে। জেলা আ.লীগের এক প্রভাবশালী নেতা ও জেলার কয়েকজন সংসদ সদস্য কমিটি আনতে সাবেক ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দকে সমর্থন দিচ্ছেন। এনিয়ে নেতারা দফায় দফায় বৈঠকও করেছেন। নেতৃত্ব আসতে অনেকেই নানা জায়গায় দৌড়ঝাঁপও করছেন।
জেলা যুবলীগের এক নেতা জানান, বর্তমান কমিটির মেয়াদ এক বছর আগেই শেষ হয়েছে। বর্তমানে মেয়াদ উত্তীর্ণ নেতৃত্ব দিয়েই সংগঠন চলছে। এছাড়া আহ্বায়ক কারাগারে থাকায় সাংগঠনিকভাবে কেউ যুবলীগের দায়িত্বে নেই। সংগঠনকে গতিশীল করতে নতুন নেতৃত্বের বিকল্প নেই।
এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সভাপতি মোহাম্মদ ওমর ফারুকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24