বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:৫৫ পূর্বাহ্ন

সুনামগঞ্জ মুক্ত দিবস আজ

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৭
  • ৪৬ Time View

স্টাফ রিপোর্টার
১৯৭১ সালের এই দিনে (৬ ডিসেম্বর, সোমবার) সুনামগঞ্জ শহর হানাদার বাহিনী মুক্ত হয়। তৎকালীন সুনামগঞ্জ মহকুমা শহর ছেড়ে পিছু হটে পাকবাহিনী। হানাদার মুক্ত হয়ে সুনামগঞ্জ শহর ‘জয় বাংলা- জয় বঙ্গবন্ধু’ শ্লোগানে মুখরিত হয়। সুনামগঞ্জ শহরের প্রতিটি এলাকার ঘরে ঘরে ওড়ে স্বাধীনতার লাল সবুজ পতাকা। অবশ্য সুনামগঞ্জ মুক্ত দিবসের দিনেই সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের ছাত্রনেতা মুক্তিযোদ্ধা তালেব উদ্দিনসহ ৩ মুক্তিযোদ্ধাদের নির্মমভাবে হত্যা করে পালায় পাক হায়েনারা। এই ঘটনাটি ছিল সুনামগঞ্জের মুক্তিকামী মানুষের জন্য বেদনাদায়ক। এবার মুক্ত দিবস উদযাপন উপলক্ষে নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সুনামগঞ্জ জেলা ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সুনামগঞ্জ জেলা ইউনিট কমান্ড।
জেলা প্রশাসনের আয়োজনে এবং মুক্তিযোদ্ধা সংসদ জেলা ইউনিট কমান্ড ও সদর উপজেলা কমান্ডের সহযোগিতায় কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে সকাল ১০টায় বর্ণাঢ্য র‌্যালি, সাড়ে ১১টায় শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ, দুপুর ১২টায় শহীদ আবুল হোসেন মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।
৫ নম্বর সাব সেক্টর কমান্ডার মেজর এম এ মোতালেব যোগীরগাওঁ, ক্যাপ্টেন যাদব আমবাড়ী বাজার এলাকা ও ক্যাপ্টেন রঘুনাথ সুনামগঞ্জ শহরতলির গৌরারং এলাকা হয়ে মুক্তিপাগল সেনাদের নিয়ে জীবন বাজি রেখে ভোরে একযোগে সুনামগঞ্জ শহরে প্রবেশ করেন। মুক্তিযোদ্ধা ও মিত্রবাহিনীর সাঁড়াশী অভিযানের মুখে পালিয়ে যায় পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী। এর আগে ২৭ নভেম্বর পাকসেনারা চারদিক দিয়ে আটঘাট বেঁধে আক্রমণ চালানোর কারণে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার মঙ্গলকাটা ধরে রাখা অসম্ভব হয়ে পড়ে। মুক্তিযোদ্ধারা পিছু হঠে পাশের গোধীগাঁও, নৈদেরখামার ও মীরেরচর এলাকায় এসে অবস্থান নিয়ে পাকসেনাদের সাথে প্রতিরোধ যুদ্ধ চালান। এক পর্যায়ে তৎকালীন মহকুমা ছাত্র লীগের সাধারণ সম্পাদক শহীদ ছাত্রনেতা মুক্তিযোদ্ধা তালেব উদ্দিন এখানে আটকা পড়েন। পাকবাহিনী সুনামগঞ্জ ছেড়ে যাবার সময় (৬ ডিসেম্বর’ ১৯৭১) আহসানমারায় তালেবসহ ৩ জনকে একরশি দিয়ে বেঁধে গুলি করে নির্মমভাবে হত্যা করে নদীতে ফেলে যায়। ৬ ডিসেম্বর সুনামগঞ্জ মুক্ত হওয়ায় সকলে আনন্দিত হয়ে উল্লাস করলেও তালেব উদ্দিনসহ ৩ মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু সহযোদ্ধাদের কাঁদায়। স্বাধীনতার ৪৬ বছর পার হলেও সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীদের অনেকেই শহীদ তালেবের নাম-পরিচয়ই জানেন না।
সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী ইনসানা আক্তার ও সজীব আহমেদ বললো,‘শহীদ তালেব উদ্দিন, গিয়াস উদ্দিন ও জগৎজ্যোতি দাস’এর একটি স্মৃতিফলক কলেজে এসে আমরা দেখেছি। কিন্তু তাঁদের সম্পর্কে কিছুই জানা নেই আমাদের।’
মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আবু সুফিয়ান, আব্দুল হাসিম ও মালেক হোসেন পীর মনে করেন, ৬ ডিসেম্বরের মুক্ত দিবসের আয়োজনে শহীদ তালেব উদ্দিনসহ ঐদিন যারা পাকহায়েনাদের হাতে নির্মমভাবে নিহত হয়েছিলেন, তাঁদের নিয়ে স্মৃতিচারণমূলক আলোচনা থাকতে পারে।
জেলা প্রশাসক ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সুনামগঞ্জ জেলা ইউনিট কমান্ডের প্রশাসক মো: সাবিরুল ইসলাম জানালেন, এবার শহীদ তালেব উদ্দিনের স্মৃতিস্তম্ভে পুস্পঅর্পণসহ অন্যান্য শহীদদের নিয়ে স্মৃতিচারণমূলক আলোচনার আয়োজনও করা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24