1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল ২০২০, ১১:৫১ অপরাহ্ন
Title :
দরিদ্র পরিবার কে সহায়তা করতে ১৫ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে ব্র্যাক বঞ্চিত গ্রামে ক্ষুদ্র প্রয়াস- আব্দুস সামাদ করোনাভাইরাস জগন্নাথপুরে ওমান প্রবাসীসহ দুইজনের নমুনা সংগ্রহ, এলাকায় আতঙ্ক জগন্নাথপুরে আমেরিকা প্রবাসির অর্থায়নে চাল ডাল বিতরণ জগন্নাথপুরে তরুন ব্যবসায়ী যুবলীগ নেতার উদ্যোগে অসহায়দের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ওসি হারুনুর রশীদের উদ্যাগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করোনা বিষয়ে জগন্নাথপুরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রেসব্রিফিং: অকারণে ঘর থেকে বের হলে কঠোর ব্যবস্থা প্রশাসনের কঠোরতায় ঘরে ছিল হাওরবাসী জগন্নাথপুরে সংস্কারের নামে মাজার ভাঙচুরের অভিযোগ সুনামগঞ্জে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা প্রবাসীর হৃদরোগে মৃত্যু

জগন্নাথপুরে কুশিয়ারা নদীর ভাঙন এলাকায় বিকল্প বেড়িবাঁধ হচ্ছে

  • Update Time : সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ২১৫ Time View

স্টাফ রিপোর্টার::
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় নদী ভাঙনের কবলে পড়ে একটি বোরো ফসলরক্ষা বেড়িবাঁধ হুমকির মুখে পড়ায় আরেকটি বিকল্প ফসলরক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। সুনামগঞ্জ জেলা ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ কারিগরি কমিটির সিদ্ধান্তে এ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়।
আজ সোমবার জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ মেরামত ও সংস্কার তদারক উপজেলা কমিটির সভাপতি মাহ্ফুজুল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, হাওরের ফসল রক্ষা কাজ শুরুর আগে জরিপ অনুযায়ী আমরা পাইলগাঁও ইউনিয়নের ভাঙ্গাবাড়ি এলাকায় একটি প্রকল্প গ্রহণ করেছিলাম। প্রকল্পটি কুশিয়ারা নদীর ভাঙ্গনে পড়ায় বিষয়টি আমরা জেলা কমিটির সভায় অবহিত করলে জেলা কারিগরি কমিটির একটি প্রতিনিধিদল সরেজমিনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বিকল্প একটি ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণের সিদ্ধান্ত দেন।
জগন্নাথপুর উপজেলা পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্র জানায়, জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের কুশিয়ারা নদীর ডান তীরে ভাঙ্গাবাড়ি নামক এলাকায় ভেটুর হাওরের ফসল রক্ষায় একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি (পিআইসি) গঠন করা হয়। ৩৯ নং প্রকল্পে ১৬ লাখ ৫ হাজার টাকা বরাদ্দ প্রদান করা হয়। সভাপতি হিসেবে কৃষক গোলাম রব্বানী ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে পাইলগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আলেক মিয়া দায়িত্ব দিয়ে কাজ শুরু করা হয়। কিছু কাজ করার পর প্রকল্পটি ভাঙ্গনের কবলে পড়ে।
৩৯ নং প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি গোলাম রব্বানী জানান, হাওরের ফসলরক্ষা বেড়িবাঁধ কমিটির অংশে ৩০০ ফুট এলাকা হঠাৎ করে নদী ভাঙ্গনের হুমকির কবলে পড়ে। এরমধ্যে আমি প্রকল্পের ৪০ শতাংশ কাজ শেষ করেছি। দ্রুত এ প্রকল্পের সীমানা পরিবর্তন করে আরেকটি প্রকল্প গ্রহণ করা না হলে হাওর রক্ষা সম্ভব নয় উল্লেখ করে আমরা আবেদন করি। যার প্রেক্ষিতে বিকল্প প্রকল্প গ্রহণ করা হয়।
পানি উন্নয়ন বোর্ড জগন্নাথপুর উপজেলা কার্যালয়ের মাঠ কর্মকর্তা উপ সহকারি প্রকৌশলী হাসান গাজী বলেন, গত বছর ওই এলাকায় ফসলরক্ষা বেড়িবাঁধের একটি প্রকল্প ছিল। এবার যখন প্রকল্পের জরিপ কাজ করা হয়, তখনও ওই প্রকল্প এলাকা ভাঙ্গনমুক্ত ছিল। হঠাৎ করে কুশিয়ারা নদীর ভাঙ্গন তীব্র হয়ে ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধের কাছাকাছি চলে আসে। ফলে ফসলরক্ষা বেড়িবাঁধটি হুমকির মুখে পড়ার শঙ্কা দেখা দেয়। জেলা কমিটির সুপারিশে ১২ লাখ ৪০ হাজার টাকার আরেকটি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। ৩৯ নম্বর প্রকল্প কমিটি কে দিয়েই আমরা এ কাজ বাস্তবায়ন করব।
হাওর বাঁচাও আন্দোলনের উপজেলা শাখার আহ্বায়ক সিরাজুল ইসলাম বলেন, ২৮ ফেব্রুয়ারি হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধের কাজ শেষ করার কথা এখনো ভাঙ্গা বাড়ি এলাকায় কাজ শুরু না হওয়ায় হাওরটি ঝুঁকিতে রয়েছে। দ্রুত এ প্রকল্পের কাজ শেষ করতে হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Customized By BreakingNews