1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ১১:২৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
সৈয়দপুরের প্রবীণ আলেম মাওলানা সৈয়দ আব্দুল আউয়াল সাহেব বড় হুজুর রহ.এর জানাজা অনুষ্ঠিত শেরপুরের নালিতাবাড়িতে আখ চাষীদের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন জগন্নাথপুরের সৈয়দপুরে করোনায় সুস্থ গৃহকর্তা, আক্রান্ত স্ত্রী-সন্তানসহ ৩ জন জগন্নাথপুরে পল্লী বিদ্যুতের এক মাঠকর্মী করোনা শনাক্ত জগন্নাথপুরে ইউপি সদস্য করোনায় আক্রান্ত দেশে ২৮২৮ জন করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ৩০ জুমার খুতবা চলাকালীন দানবাক্স চালানো কি জায়েজ? করোনায় জগন্নাথপুরে নতুন করে বাবা ছেলেসহ আক্রান্ত ৫ শেরপুরের নকলায় সুগারক্রপ চাষের আধুনিক প্রযুক্তি শীর্ষক চাষী প্রশিক্ষণ জগন্নাথপুরে এবার হিন্দ্র সম্প্রদায়ের মধ্যে ত্রাণ সহায়তা দিলেন যুক্তরাজ্য আ.লীগ নেতা আপ্তর আলী

করোনা,জগন্নাথপুর বাজারে ক্রেতাদের ঢল,বেশি দামে বিক্রি,সাত প্রতিষ্ঠানকে অর্থদণ্ড

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৯ মার্চ, ২০২০
  • ২১২৬ Time View

স্টাফ রিপোর্টার::
আজ বৃহস্পিতবার সকালে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম স্বাভাবিক থাকলেও দুপুরের আগেই হঠাৎ করে অস্তির হয়ে উঠে সুনামগঞ্জের প্রবাসি অধ্যুষিত জগন্নাথপুরের বাজার।
আজ বিকেলে জগন্নাথপুর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জগন্নাথপুর পৌরশহরের সদরের জগন্নাথপুর বাজারে জগন্নাথপুর উপজেলা সহকারি (এস্যিান্ড) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইয়াসির আরাফাতের নেতৃত্বে থানা পুলিশের উপস্থিততে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে বেশি দামে পেঁয়াজসহ দ্রব্য বিক্রির করার দায়ে সাতটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নিকট থেকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।
যে সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে জরিমানা আদায় করা হয়েছে সেগুলো হলো হাবিব স্টোর ১০ হাজার, রিয়ান স্টোর ২০ হাজার টাকা, বাউধরণ স্টোর ১০ হাজার, ব্যবসায়ী সিরাজ মিয়া ৫ হাজার, জুবায়ের ৫ হাজার, শংকর রায় ৫ হাজার ও শ্যামপদ ৫ হাজার টাকা।
ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক জগন্নাথপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (এসিল্যান্ড) ইয়াসির আরাফাত বলেন, করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি সুযোগকে কাজে লাগিয়ে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী বাজারে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে মাস্ক, চাল, পেঁয়জসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্র্রব্যসামগ্রীর দাম বাড়াচ্ছে এমন অভিযোগে আমরা অভিযান পরিচালনা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এর বিভিন্ন ধারায় সাতটি দোকান থেকে ৬০ হাজার টাকা অর্থদÐ আদায় করা হয়েছে। এবং বাজারে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি না করার জন্য ব্যবসায়ীদেরকে সতর্ক করা হয়েছে।
ক্রেতা ও স্থানীয়রা জানান, করোনাভাইরাসের প্রার্দুভাব বাড়তে থাকায় জগন্নাথপুরে হঠাৎ করে নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্যের দাম বেড়ে যায়। গতকাল সকাল ১০টায় দিকে জগন্নাথপুর বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ খুচরা মূল্যে বিক্রি হয়েছে ৪০ টাকা দরে বিক্রি হলেও দুপুর ১২ টা থেকে ৬০ খেকে ৬৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।। একইভাবে ১৫ টাকা মূল্যের প্রতিকেজি আলু ২০ থেকে ২৫টা দরে বিক্রি হয়। ৫০ কেজি চালের বস্তায় ১৭০০ টাকা থেকে ২০০০ টাকায় মূল্যে প্রতি বস্তা বিক্রি হচ্ছে। এদিকে আজ সকাল থেকে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাজারে ক্রেতাদের ঢল নামে। নিত্য প্রয়োজনীয় পূণ্যে মজুদ করতে কেউ কেউ বেশি বেশি করে পূণ্য ক্রয় করেছেন।
বাজারে আসা মধ্যবিত্ত ক্রেতা তৌরিছ মিয়া বলেন, সকালের দিকে বাজারে খাদ্যদ্রব্যে মূল্যে স্বাভাবিক থাকলেও হঠাৎ করে বাজারে ক্রেতা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আলু পেয়াঁজ, চালের দাম বেড়ে যায়। দ্রæত প্রশাসনিক তদারকি না হলেও তীব্র সংকট দেখা দেবে দ্রব্যে।
জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহফুজুল আলম মাসুম বলেন, বাজার স্বাভাবিক রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Design & Developed By ThemesBazar.Com