1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
জগন্নাথপুরে ভয়াবহ বন্যা, আশ্রয় কেন্দ্রে ঠাঁই মিলছে না, মানুষের আহাজারি - জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:২৬ অপরাহ্ন

জগন্নাথপুরে ভয়াবহ বন্যা, আশ্রয় কেন্দ্রে ঠাঁই মিলছে না, মানুষের আহাজারি

  • Update Time : রবিবার, ১৯ জুন, ২০২২
  • ১৪১১ Time View
স্টাফ রিপোর্টার::
অব্যাহত বৃষ্টিপাত ও উজানের ঢলে সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ
চরম আকার ধারণ করেছে। চারদিকে পানি আর পানি। বাসা বাড়ীতে পানি উঠে যাওয়ায় মাথা গোঁজার ঠাইয়ের জন্য মানুয় আশ্রয় কেন্দ্রে ছুটেও ঠাঁই মিলছে না আশ্রয় কেন্দ্রগুলিতে।
গত শুক্রবার ভোররাত থেকে জগন্নাথপুর পৌরএলাকাসহ  উপজেলাজুড়ে  ভয়াবহ বন্যা রূপ দিয়েছে।
বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা ও বিদ্যুৎ সংযোগ।
 সিলেটের বিভাগীয় শহরের সঙ্গে যোগাযোগের প্রধান সড়ক জগন্নাথপুর-সিলেট সড়ক, জগন্নাথপুর-সুনামগঞ্জসহ জগন্নাথপুর উপজেলা সদরের সঙ্গে যাতায়াতের সড়কগুলি পানিতে তলিয়ে গেছে। পানিতে তলিয়ে গেছে জগন্নাথপুর পৌরশহরের প্রধান ব্যবসা কেন্দ্র, জগন্নাথপুর বাজার, উপজেলা পরিষদ, এসিল্যান্ড অফিসসহ গুরুত্বর সেবাকেন্দ্র গুলি।এছাড়া গ্রামীন রাস্তা-ঘাট নিমজ্জিত হয়ে পড়েছে বন্যার পানিতে।
গত শুক্রবার থেকে আজ রবিবার সকাল পর্যন্ত জগন্নাথপুরের প্রায় চার লাখ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন।
সরেজমিন কয়েকটি আশ্রয় কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায়, কেন্দ্র কেন্দ্রগুলোতে ঠাঁই মিলছে না পানিবন্দি মানুষের।
ইকড়ছই সরকারী প্রার্থমিক বিদ্যালয়, ইকড়ছই আলিয়া মাদ্রাসা, বালিকা উচ্চ বিদ্যলায়সহ প্রতিটি কেন্দ্র মানুষের উপচে পড়া ভির। এসব কেন্দ্র ত্রাণের জন্য আহাজারি চলছে। আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয নেতা লোকজন জানান, প্রতিটি গ্রামের বসতবাড়ী তলিয়ে গেছে। অনেকের বাড়ীঘরে গলা পানি।
অনুমতি বৈদ্য জানান,  শুক্রবার ভোর থেকে বসতঘরে পানি প্রবেশ করে। গলা সমান পানি ঘরে থাকায় পরিবারের লোকজন নিয়ে আশ্রয় কেন্দ্র আশ্রয় দিয়েছি। গত দুই দিন ঘরে এখানে কোনো ত্রাণ সহায়তা পৌঁছেনি। ত্রাণের জন্য মানুষের মধ্যে আহাজারি চলছে।
পৌরএলাকার খালিকনগরের বাসিন্দা আলামিনের সঙ্গে কথা বন্যাকবলিত এলাকায়। তিনি জানান, ভোররাত থেকে পানি বাড়তে থাকে। দুপুরের দিকে পুরো খালিকনগর নিমজ্জিত হয়ে পড়ে। অনেক পরিবার স্থানীয় খালিকনগর সরকারী প্রাথমিক বিদযালয়ে আশ্রয় নিয়েছে। কেউ কেউ আশ্রয় কেন্দ্র স্থান না পেয়ে উঁচু স্থানে আত্মীয় স্বজনদের বাড়ীতে ছুটছেন। আমি আমার পরিবার নিয়ে শহরের ইকড়ছই এলাকায় আশ্রয় পেয়ে সেখানে যাচ্ছি।
নলুয়া হাওর ব্যষ্টিত চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম বকুল বলেন, আমাদের পুরো ইউনিয়নের মানুষ পানিবন্ধি। গোলার ধান,  গরু, ছাগল, হাঁস মোগর নিয়ে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন হাওরপারের মানুষ।
এদিকে গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টা থেকে জগন্নাথপুরের বিদ্যুৎ সরবরাহ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেলে। ফলে বিদ্যুৎ না থাকায় মোবাইল নেটওয়ার্ক ও ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক এসকল হয়ে পড়েছে।
জগন্নাথপুর উপজেলা আবাসিক (বিদ্যুৎ) প্রকৌশলী আজিজুল ইসলাম জানাল, সিলেটের বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ আঁকার ধারণ করায় সিলেটের বরইকান্দি বিদু্যতের সাবস্টেশন পানিতে নিমজ্জিত হওয়ায় সংযোগ বন্ধ করা হয়েছে। ওই সাবস্টেশন থেকে জগন্নাথপুরে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হয়ে থাকে। আমরা চেষ্টা করছি বিদ্যুৎ সচল রাখার।
 জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ( ইউএনও) সাজেদুল ইসলাম বলেন,, পানিবন্দি মানুষের জন্য আশ্রম কেন্দ্র খোলা হয়েছে। এছাড়া বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ সহায়তা পৌছে দিতে আমরা তৎপর  রয়েছি।

শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১
Design & Developed By ThemesBazar.Com