1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
পিএসজির ৭ গোলের পাঁচটিই এমবাপ্পের, গড়লেন রেকর্ড - জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর
বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:১৫ অপরাহ্ন

পিএসজির ৭ গোলের পাঁচটিই এমবাপ্পের, গড়লেন রেকর্ড

  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৫৫ Time View

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::
ফরাসি লীগের ষষ্ঠ স্তরের দল পেইস ডি কাসেল। দুর্বল এই প্রতিপক্ষের মাঠে শক্তিশালী স্কোয়াড নিয়ে ম্যাচ খেলে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি)। আর অনুমিতভাবে ডি কাসেলকে গোল বন্যায় ভাসায় লা প্যারিসিয়ানরা। সোমবার রাতে ফ্রেঞ্চ কাপের শেষ ৩২’র ম্যাচে ৭-০ গোলের বিধ্বংসী জয়ে প্রতিযোগিতাটির শেষ ষোলোতে পৌঁছে ক্রিস্তফ গালতিয়েরের দল। পিএসজির গোলোৎসবে একাই ৫ গোল করেন ফরাসি ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপ্পে। গড়েন রেকর্ড।

বোলায়ের্ত ডেলেলিস স্টেডিয়ামে গোলোৎসবের শুরুটা এমবাপ্পেই করেন। ম্যাচের ২৯তম মিনিটে পিএসজিকে লিড এনে দেন ফরাসি ফরোয়ার্ড। ৩৩তম মিনিটে জালের দেখা পান পিএসজির ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড নেইমার। বিরতির আগে ৩৫ এবং ৪০তম মিনিটে আরও দু’বার লক্ষ্যভেদ করেন এমবাপ্পে। ৪-০ গোলের ব্যবধানে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করে পিএসজি।

বিরতির পর ৫৬তম মিনিটে নিজের চতুর্থ গোল করেন এমবাপ্পে। ৬৪তম মিনিটে স্কোরলাইন ৬-০ করেন স্প্যানিশ মিডফিল্ডার কার্লোস সলের। ৭৯তম মিনিটে নিজের পঞ্চম এবং দলের সপ্তম গোলটি করেন এমবাপ্পে।

পিএসজির ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে এক ম্যাচে ৫ বার জালের দেখা পেলেন কাতার বিশ্বকাপের গোল্ডেন বুট বিজয়ী তারকা এমবাপ্পে। পিএসজির হয়ে সবচেয়ে বেশি ২০০ গোল এডিনসন কাভানির। এমবাপ্পের গোল সংখ্যা ১৯৬। অর্থাৎ, উরুগুইয়ান তারকাকে ছুঁতে মাত্র ৪ গোল প্রয়োজন ফরাসি ফরোয়ার্ডের। কাভানিকে টপকে পিএসজির সর্বোচ্চ গোলদাতা হতে এমবাপ্পের প্রয়োজন ৫ গোল।

পেইস ডি কাসেলের নিজস্ব বড় মাঠ নেই। হোম ভেন্যু হিসেবে লিগ ওয়ানের ক্লাব লঁসের বোলায়ের্ত ডেলেসিস স্টেডিয়াম ব্যবহার করে দলটি। ফ্রান্সের নর্ড বিভাগের কয়েকটি ছোট ক্লাব অঙ্গীভূত হয়ে পেইস ডি কাসেল পথচলা শুরু করে ২০১৮ সালে। ফরাসি ফুটবলের ষষ্ঠ স্তর রিজিওনাল ওয়ানে খেলা ক্লাবটি ফ্রেঞ্চ কাপের রাউন্ড অব ৬৪তে চতুর্থ স্তরের দল ওয়াসকুয়েহালকে টাইব্রেকারে হারিয়ে পিএসজির প্রতিপক্ষ হয়। এই পুঁচকে দলের বিপক্ষে শুধু লিওনেল মেসিকে বিশ্রাম দেন পিএসজি কোচ গালতিয়ের। দুর্বল দল হলেও শক্তিশালী দল নিয়ে লড়ার কারণ কী? ম্যাচশেষে কিলিয়ান এমবাপ্পে জানান, ডি কাসেলকে তাচ্ছিল্য না করতেই তাদের বিপক্ষে স্বাভাবিক খেলাটা খেলেছে পিএসজি। এমবাপ্পে বলেন, ‘আমাদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলে প্রতিপক্ষকে সম্মান জানাতে চেয়েছি। পরিকল্পনা অনুসারে তাই করেছি এবং আমরা খুশি।’

এমবাপ্পে বলেন, ‘এটা আমাদের এবং তাদের (ডি কাসেল) জন্য বড় সুযোগ ছিল। এই ম্যাচ আমাদের মনে করিয়ে দেয় যে, আমরাও ছোট স্তরের ফুটবল থেকে উঠে এসেছি। আর এটি মনে রাখা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এমনকি একটি খেলার জন্য হলেও।’

শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১
Design & Developed By ThemesBazar.Com