1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
এমপি মানিকের পরিচয় দিয়ে মোবাইল ফোনে চাঁদা দাবি - জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর
বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৩৩ পূর্বাহ্ন

এমপি মানিকের পরিচয় দিয়ে মোবাইল ফোনে চাঁদা দাবি

  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৬ নভেম্বর, ২০১৯
  • ২৮৬ Time View

সুনামগঞ্জ-৫ (ছাতক-দোয়ারা) আসনের সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মুহিবুর রহমান মানিকের পরিচয় দিয়ে জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তার কাছে মুঠোফোনে চাঁদা দাবি করছে প্রতারকচক্র। বিষয়টি পুলিশ সুপারকেও জানিয়েছেন সংসদ সদস্য মানিক।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, রোববার সুনামগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাসের মুঠোফোনে কল (নম্বর ০১৪০৫১৬১৯৩৩) দিয়ে এক প্রতারক ওপর প্রান্ত থেকে বলে, ‘আমার নম্বর তোমার সেভ নেই। আমি মুহিবুর রহমান মানিক বলছি।’

সিভিল সার্জন তখন বলেন, এমপি মানিক স্যারের গলার কণ্ঠ এমন নয়। প্রতারক এসময় বলে আমি উনার ব্যক্তিগত সহকারী। সিভিল সার্জন বলেন, তার কণ্ঠও এটি নয়। এরপর ওপাশ থেকে বলতে থাকে আপনারা টেন্ডারে অনেক অনিয়ম করেছেন। সিভিল সার্জন বলেন, আমরা কোন টেন্ডার করি নি। সিভিল সার্জন বলেন, আপনার বিষয়টি আমি পুলিশ সুপারকে জানাচ্ছি। এরপর ফোন কেটে দেয়।
একইভাবে ওই অফিসের ডেপুটি সিভিল সার্জন আশরাফুল ইসলামকে একই নম্বর থেকে ফোন করে মুহিবুর রহমান মানিকের পরিচয় দিয়ে বিজয় দিবসের ম্যাগাজিনের জন্য চাঁদা চায়। আচরণ ও কথাবার্তায় সন্দেহ হওয়ায় সঙ্গে সঙ্গেই ওই কর্মকর্তা বলেন, আপনার নম্বর আমি এসপি সাহেবকে দেব। পরে ফোন কেটে দেয়।

একই নম্বর থেকে ফোন দিয়ে সুনামগঞ্জ গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবিল আয়ান, দিরাই উপজেলা প্রকৌশলী মো. ইফতেকার হোসেন, জামালগঞ্জ এবং শাল্লার উপজেলা প্রকৌশলীর কাছে মুহিবুর রহমান মানিকের পরিচয় দিয়ে চাঁদা দাবি করে। গত এক সপ্তাহ হয় বিভিন্ন
সময়ে ফোন দিয়ে এই চাঁদা দাবি করা হয়।
সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিককে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বিষয়টি অবগত করেন।
মুহিবুর রহমান মানিক এই প্রতিবেদককে বলেন, স্বাধীনতা বিরোধী, দুর্নীতি ও চাঁদাবাজীর বিরুদ্ধে আমি সব সময় সোচ্চার। আমার দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে আমি কখনোই এসবের সাথে আপোস করি নি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সব সময়ই দুর্নীতি ও চাঁদাবাজীর বিরুদ্ধে সকলকে সতর্ক করছেন। আমরা প্রধানমন্ত্রী’র নির্দেশনা এলাকার মানুষের কাছে তুলে ধরছি। আমি দেশের বিভিন্ন এলাকায় সংগঠিত কয়েকটি আলোচিত দুর্নীতির ঘটনার তদন্ত কমিটিতে রয়েছি। আমার ধারণা দুর্নীতিবাজ চক্রই এভাবে আমার নাম ব্যবহার করে ফোন দিয়ে, যারা বুঝবে না, তাদের কাছে আমার ভাবমূর্তি নষ্টের অপচেষ্টা করছে।

সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান জানালেন, সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক বিষয়টি তাকে জানিয়েছেন। তারা মুঠোফোন নম্বর নিয়ে চাঁদাবাজচক্রকে খুঁজে বের করার চেষ্টা করবেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩
Design & Developed By ThemesBazar.Com