1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
কোরআন থেকে শিক্ষা - জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর
সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৯:১৬ পূর্বাহ্ন

কোরআন থেকে শিক্ষা

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০২৪
  • ২১ Time View

আয়াতের অর্থ : ‘হে আমাদের প্রতিপালক! তুমি তো জানো যে আমরা গোপন করি ও যা আমরা প্রকাশ করি, আকাশমণ্ডলী ও পৃথিবীর কিছুই আল্লাহর কাছে গোপন থাকে না। সমস্ত প্রশংসা আল্লাহরই, যিনি আমাকে আমার বার্ধক্যে ইসমাঈল ও ইসহাককে দান করেছেন। আমার প্রতিপালক অবশ্যই প্রার্থনা শুনে থাকেন। হে আমাদের প্রতিপালক! আমাকে নামাজ কায়েমকারী কোরো এবং আমার বংশধরদের মধ্য থেকেও।

…হে আমাদের প্রতিপালক! যেদিন হিসাব অনুষ্ঠিত হবে সেদিন আমাকে, আমার মা-বাবাকে এবং মুমিনদেরকে ক্ষমা কোরো।’ (সুরা : ইবরাহিম, আয়াত : ৩৮-৪১)

 

আয়াতগুলোতে দোয়ার শিষ্টাচার শেখানো হয়েছে।

শিক্ষা ও বিধান

 

১. আয়াত থেকে বোঝা যায়, পার্থিব জীবনে মানুষের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবলম্বন জীবিকা ও বাসস্থান এবং পরকালীন মুক্তির জন্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন শিরকমুক্ত ঈমান ও আমল।

২. সাধ্যানুযায়ী সন্তানের অর্থনৈতিক সুখ-স্বাচ্ছন্দ্যের ব্যবস্থা করা এবং তাদের প্রতি সহানুভূতিপূর্ণ আচরণ করা পিতার দায়িত্ব।

৩. ইবরাহিম (আ.) প্রথমে আল্লাহর আদেশ পালন করেছেন এবং পরে পরিবারের জন্য দোয়া করেছেন। সুতরাং বোঝা গেল, আল্লাহর আনুগত্য দোয়া কবুলে সহায়ক। তিনি মক্কা ছেড়ে কিছু দূরে অগ্রসর হওয়ার পর দোয়া করেন।৪. দোয়ার শিষ্টাচার হলো তাতে আল্লাহর প্রশংসামূলক বাক্য উচ্চারণ করা।

৫. সন্তান-সন্ততিরও দায়িত্ব পিতা-মাতার কল্যাণ কামনা করে দোয়া করা। যেমনটি ইবরাহিম (আ.) করেছেন। (মাআরেফুল কোরআন : ৫/২৫২)

সৌজন্যে কালের কণ্ঠ

শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩
Design & Developed By ThemesBazar.Com