শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ০২:৫২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুরের সাম্রাটে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র মনাফকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ জগন্নাথপুরের চিতুলিয়া গ্রামে আগুন,দুইটি ঘরসহ পুড়ল ১২ লাখ টাকার মালামাল জগন্নাথপুরে এখনও সম্পন্ন হয়নি আ.লীগের ওয়ার্ড ভিত্তিত্ব কমিটি প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা শুরু ১৭ নভেম্বর জগন্নাথপুরে সংবাদ প্রকাশের পর অবশেষে সুযোগ পেল ১৭ পরীক্ষার্থী বন্ধ হলো ফেসবুকের সাড়ে পাঁচ’শ কোটি ভুয়া অ্যাকাউন্ট রংপুর এক্সপ্রেসে আগুন, চারটি বগি লাইনচ্যুত জেলা মহিলা আ.লীগ নেত্রী রফিকা চৌধুরীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে জগন্নাথপুরে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

জগন্নাথপুরের বড় ফেচিবাজার-রাস্তা-ঘাটসহ কয়েকটি গ্রাম বন্যায় প্লাবিত

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১৮ জুন, ২০১৮
  • ১৩৮ Time View

বিশেষ প্রতিনিধি:: জগন্নাথপুরের নদী তীরবর্তী এলাকা বন্যায় প্লাবিত হয়ে পড়েছে। রাস্তাঘাট-হাটবাজারসহ বাড়ি-ঘরে পানি প্রবেশ করেছে। ফলে গত তিনদিন ধরে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন লোকজন। হুমকির মুখে পড়েছে গ্রামের একটি বাঁধ। একটি ভেঙে গেলে পুরো জগন্নাথপুর বন্যা কবলিত হয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।
সোমবারও পানি আরো বৃদ্ধি পেয়েছে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন।
স্থানীয়রা জানান, গত কয়েকদিনের অব্যাহত ভারি বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে কুশিয়ার নদীর পাড়স্থ জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের জালালপুর ভাঙাবাড়ি নামকস্থানে বেড়িবাঁধটি পানির প্রচন্ড চাপে হুমকির মুখে পড়েছে। স্থানীয় প্রশাসনের পর থেকে প্রায় চারশত মাঠির বস্তা ফেলে বাঁধটি রক্ষার প্রচেষ্ঠা চলছে। এদিকে শনিবার আলীপুর-ইনাতগঞ্জের খাল দিয়ে পানি প্রবেশে করে তলিয়ে গেছে কুশিয়ার নদীর তীরবর্তী বিস্তৃন এলাকা। তলিয়ে গেছে জগন্নাথপুর-বেগমপুর সড়কের পূর্বকাতিয়া আলালখালির পূর্ব দিক হইতে বড় ফেচিবাজার পর্যন্ত প্রায় এক কিলোমিটার রাস্তা। ফলে ওই সড়কে সরাসরি যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে পড়েছে।
এছাড়া বড়ফেচি বাজার, পূর্ব জলালপুর, কাতিয়া, পূর্ব কাতিয়া, নতুন কসবা গ্রাম বন্যায় প্লাবিত হয়ে পড়েছে।
বড় ফেচিবাজারের ব্যবসায়ী রিয়াদ জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আজকে (সোমবার) পানি আরো বেড়েছে। অনেক দোকানে পানি প্রবেশ করেছে। আমরা খুবই দূর্ভোগে পড়েছি ব্যবসা বানিজ্য নিয়ে।
জগন্নাথপুর-শিবগঞ্জ-বেগমপুর সড়কের পরিবহন নেতা আবদুল মুকিত বলেন, সড়কের এক কিলোমিটার এলাকায় বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় গত তিনদিন ধরে ওই সড়কে সরাসরি যানচলাচল বন্ধ রয়েছে।
কাতিয়া গ্রামের বাসিন্দা যুবলীগ নেতা সেলিম খান জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, কুশিয়রা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় কয়েকটি গ্রাম বন্যায় প্লাবিত হয়ে গেছে। অনেক ঘর-বাড়িতে পানি ঢুকে গেছে। দিন দিন পানি বাড়ছেই। লোকজন কষ্ঠের মধ্যে পড়েছেন।
বড় ফেচিবাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সাধারন সম্পাদক ইলিয়াস মিয়া জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, অব্যাহত বৃষ্টিপাতে ও পাহাড়ি ঢলে পুরো বাজারে পানি উঠে গেছে। বাজারের নিচু এলাকায় কোন কোন দোকানঘরের ভেতরে পানি প্রবেশ করেছে। বাজারে উরু থেকে হাটু পানি পর্যন্ত রয়েছে। ব্যবসায়ীরা চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য অদুদু মিয়া জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, পাহারি ঢল ও গত কয়েকদিনের বর্ষণে ৪/৫টি গ্রামসহ রাস্তা-ঘাট-হাটবাজারে পানি প্রবেশ করেছে। হুমকির মুখে পড়েছে কুশিয়ারাপাড়স্থ জলালপুর ভাঙাবাড়ি নামকস্থানের বেড়িবাঁধ। আমরা মাটির বস্তা দিয়ে বাঁধ রক্ষার চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, এ বাঁধটি ভেঙে গেলে পাইলগাঁও ইউনিয়নসহ জগন্নাথপুরের দক্ষিনাঞ্চলের কয়েকহাজার মানুষ পানি বন্ধ হয়ে পড়বে।
জগন্নাথপুরের ইউএনও মোহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, খবর পেয়ে ঝুঁকিপূন বাঁধটি পরিদর্শন করেছি। বাঁধ রক্ষায় কাজ করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24