সোমবার, ২০ জানুয়ারী ২০২০, ০৭:৫২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
’সরকারি চাকরিতে ৩ লাখ ১৩ হাজার পদ শূন্য’ জগন্নাথপুরের মিরপুর ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলন আজ জগন্নাথপুরের লহরী গ্রামে শীতবস্ত্র বিতরণ আদালতের আদেশে জগন্নাথপুরের বিএন উচ্চ বিদ্যালয়ের শতবর্ষ উৎসব আবারো স্থগিত মিরপুরে বর্নিল সাজে দুইদিন ব্যাপি প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন মৌলভীবাজারে স্ত্রী-মাসহ ৪ জনকে হত্যার পর আত্মহত্যা জগন্নাথপুরে ইউনিয়ন আ,লীগের সম্মেলন সফল করার লক্ষে প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে ডাক্তার-নার্সের অবহেলায় শিশুর মৃত্যুের অভিযোগে তদন্ত কমিটি গঠন মুঠোফোনে প্রেমের ফাঁদে ফেলে কিশোরগঞ্জের তরুণী কে জগন্নাথপুর এনে ধর্ষণ নান্দনিক আয়োজনে ঐতিহ্যবাহি মিরপুরের উচ্চ বিদ্যালয়ে সাবেক শিক্ষার্থীদের মিলনমেলায় বাঁধাভাঙা উচ্ছ্বাস

জগন্নাথপুরে আনন্দ হত্যাকাণ্ডের রহস্য অজানা, নেই গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার::
  • Update Time : শনিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ১৯৯৩ Time View

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌরশহরে স্টুডিও মালিক আনন্দ সরকার (২৩) হত্যাকাণ্ডের একদিন পর গতকাল শুক্রবার রাতে

জগন্নাথপুর থানায় নিহতের ভাই বাদি হয়ে মামলা করেছেন।  ঘটনার দুইদিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ হত্যাকাণ্ডের রহস্য কিংবা কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানান, গত বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের পাশে পৌরশহরের কমিউনিটি সেন্টার এলাকার আনন্দ ডিজিটাল স্টুডিওর মালিক আনন্দ সরকারের জবাইকৃত মরহে পুলিশ তার দোকানঘর থেকে উদ্ধার করে। দুর্বৃত্তরা আনন্দকে গলা কেটে জবাই করে হত্যার পর দোকানঘর তালাবদ্ধ করে পালিয়ে যায়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জগন্নাথপুর থানার ওসি (তদন্ত) নব গোপাল দাস জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, ব্যবসায়ী হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মামলা হয়েছে। হত্যার কারণ এখনও জানা যায়নি। তবে তদন্ত চলছে। এঘটনায় কেউ গ্রেফতার কিংবা আটক হয়নি বলে তিনি জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, প্রায় দুই বছর পূর্বে নেত্রকোণা জেলার মোহনগঞ্জ থানার বটতলা গ্রামের সুনিল সরকারের ছেলে আনন্দ সরকার জগন্নাথপুর পৌরশহরে কাজের সন্ধানে আসে। বছর খানিক শহরের একটি স্টুডিও দোকানে কর্মচারির হিসেবে কাজ করে। প্রায় ৮/৯ মাস পূর্বে আনন্দ সরকার জগন্নাথপুর উপজেলার পরিষদের পাশে শহরের কামাল কমিউনিটি সেন্টার এলাকায় ভাড়া দোকান নিয়ে ‘আনন্দ ডিজিটাল স্টুডিও নামে দোকান পরিচালনা করে আসছিল। গত তিন দিন ধরে আনন্দ সরকারের মোবাইল ফোন বন্ধ পেয়ে গত বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) দুপুরে তার মা ও বড় ভাই জগন্নাথপুরে খোঁজতে এসে স্টুডিওতে গিয়ে দেখেন তালাবদ্ধ। পরে স্থানীয়রা তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় আনন্দের নিতর দেহ পড়ে আছে। এঘটনায় পুলিশের ক্রাইম সিন ইউনিটের একটি দল ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24