1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
পরকীয়া প্রেমের জের স্ত্রী কে হত্যার পরিকল্পনায় পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তার - জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:৫৭ অপরাহ্ন

পরকীয়া প্রেমের জের স্ত্রী কে হত্যার পরিকল্পনায় পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তার

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৩ মে, ২০২১
  • ৪২৫ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টি ফোর ডেস্ক -গায়ত্রী অমর সিং নামে এক এনজিও কর্মীর সঙ্গে সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের পরকীয়ার সম্পর্ক ছিল বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করেছেন মাহমুদা আক্তার মিতুর বাবা সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেন। বুধবার চট্টগ্রামের পাচঁলাইশ থানায় দায়ের করা মামলার এজাহারে এ অভিযোগ করেন তিনি।

২০১৪-১৫ সালে বাবুল আক্তার মিশনে সুদানে যাওয়ার সময় তার ব্যবহৃত একটি মোবাইল বাসায় রেখে যান। ওই মোবাইলে গায়ত্রী ২৯ বার বিভিন্ন ম্যাসেজ দেন। ম্যাসেজগুলো দেখে মিতু প্রথম বাবুল-গায়ত্রীর পরকীয়া সম্পর্কের কথা জানতে পারেন। এসব বিষয় মিতু তার ডায়েরিতে লিখে রেখে গেছেন বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

বাবুল আক্তার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হিসেবে কক্সবাজারে থাকার সময় গায়ত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। গায়ত্রী ইউনাইটেড ন্যাশনস হাই কমিশনার ফর রিফিউজিসের (ইউএনএইচসিআর) একজন কর্মকর্তা বলে এজাহারে বলা হয়েছে।

পাঁচ বছর আগে স্ত্রী মাহমুদা আক্তার মিতু হত্যাকাণ্ডের পর তৎকালীন পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারই মামলা করেছিলেন। সেই মামলা তদন্তদকারী সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কার্যত বাতিল করে দেওয়ার পর বুধবার বাবুলকেই আসামি করে মামলা করেন মিতুর বাবা সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা মোশাররফ।

মিতু হত্যাকাণ্ডে বাবুল আক্তারের জড়িত থাকার ‘তথ্য প্রমাণ’ পাওয়ার কথা জানিয়ে পিবিআই বুধবার তার মামলায় চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেওয়ার পরপরই তার শ্বশুর নতুন মামলা করেন। তাতে প্রধান আসামি করেন জামাতাকে।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ‘তালেবান’ এবং ‘বেস্ট কিপ্ট সিক্রেট’ নামে দুটি বই বাবুলকে উপহার দিয়েছিলেন গায়ত্রী। বই দুটিতে গায়ত্রীর সঙ্গে বাবুলের সাক্ষাতের বিভিন্ন তারিখ ও স্থান উল্লেখ করা হয়েছে। তারা কোথায় কোথায় দেখা করেছেন, ঘুরতে গেছেন সেসব বিষয় উল্লেখ আছে। তাদের প্রথম সাক্ষাতের তারিখও লেখা আছে। ২০১৩ সালের ১১ সেপ্টেম্বর বাবুল ও গায়ত্রীর প্রথম দেখা হয় বলে বইয়ের পৃষ্টায় লেখা রয়েছে।

এজাহারে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, ২০১৩ সালের ৮ অক্টোবর বাবুল-গায়ত্রী কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতে একসঙ্গে সময় কাটান। এছাড়া ওই বছরের ১২ অক্টোবর তারা একসঙ্গে রামু মন্দিরে ঘুরতে যান। ‘বেস্ট কিপ্ট সিক্রেট’ বইয়ের দ্বিতীয় পাতায় লেখা রয়েছে, ‘উইথ মাই সিনসিয়ার লাভ, ইউরস গায়ত্রী’।

মো. মোশাররফ হোসেন এজাহারে আরও অভিযোগ করেন, তার মেয়ে মিতু এই ‌‘অনৈতিক সম্পর্কের’ বিষয়ে প্রতিবাদ করলে তাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করেন বাবুল। নির্যাতনের বিষয়টি মিতু জানিয়েছিলেন বলে এজাহারে উল্লেখ করেন তার বাবা।

মিতুর বাবার দায়ের করা এই মামলায় বাবুল আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পাঁচদিনের রিমান্ডে নিয়েছে পিবিআই। মো. মোশাররফ হোসেন তার মামলায় বাবুল আক্তার ছাড়াও সাতজনকে আসামি করেছেন।

২০২০ সালের জানুয়ারিতে আদালতের নির্দেশে মিতু হত্যা মামলা তদন্তের দায়িত্ব পায় পিবিআই। এর আগে সেটি নগর গোয়েন্দা পুলিশ তদন্ত করেছিল। তারা প্রায় তিন বছর তদন্ত করেও অভিযোগপত্র দিতে ব্যর্থ হয়। পরে ২০২০ সালের জানুয়ারিতে আদালত মামলা তদন্তের ভার পিবিআইকে দেন।

২০১৬ সালের ৫ জুন ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে গিয়ে চট্টগ্রাম নগরের জিইসি মোড়ের কাছে ওআর নিজাম রোডে নির্মমভাবে খুন হন মাহমুদা খানম মিতু। ছুরিকাঘাত ও গুলি চালিয়ে হত্যা করা হয় তাকে। ঘটনার পর বাবুল আক্তার অজ্ঞাতপরিচয় তিন ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করেন।





শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩
Design & Developed By ThemesBazar.Com
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com